kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ মে ২০১৯। ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৫ রমজান ১৪৪০

সান্তাহারে দুই বন্ধুর মধ্যে বউ বদল, তিন মাস পর ছুরিকাঘাতে একজন খুন

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি   

১৬ মে, ২০১৯ ১৬:১৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সান্তাহারে দুই বন্ধুর মধ্যে বউ বদল, তিন মাস পর ছুরিকাঘাতে একজন খুন

বউ বদলের ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই বন্ধুর মধ্যে সংঘর্ষের এক পর্যায়ে ছুরিকাঘাতে বাদল হোসেন (৩৫) নামের এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন। বুধবার রাতে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার পৌর সভার লোকো কলোনি দীঘির পাড়ে এই খুনের ঘটনা ঘটে। 

সান্তাহার টাউন ফাঁড়ির টিএসআই ওয়াদুদ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, নওগাঁ জেলা সদরের চক তারতা এলাকার মৃত আলতাব আলীর ছেলে রেজাউল ইসলামের (৩৪) সাথে সান্তাহার শহরের শহিদুল ইসলামের ছেলে বাদল হোসেনের জেল খানায় বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। 

পুলিশ জানায়, বাদল ও রেজাউল দুই জনই ছিনতাই’সহ নানা অপরাধের সাথে জড়িত এবং তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মামলা রয়েছে। বন্ধুত্বের এক পর্যায়ে তারা দুই জন নিজেদের বউ বদল করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। 

ওই এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা আবুল কাসেম বলেন, গত তিন মাস আগে তারা পরস্পর বউ বদল করে। বউ বদল হলেও রেজাউল তার পূর্বের বউ ফাতেমার সাথে গোপনে যোগাযোগ ও সম্পর্ক বজায় রাখে। মাঝে মধ্যে রেজাউল ফাতেমার সাথে দেখা করার জন্য সান্তাহারে বাদলের বাসায় যাতায়াত করতো বলে এলাকাবাসী জানায়। বুধবার দুপুরে রেজাউল বাদলের বাসায় আসলে দুই জনের মধ্যে বাক বিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। পরে রাত ৯টার দিকে রেজাউল মোটরসাইকেল নিয়ে বাদলের বাসায় আসে এবং বাসায় ঢুকে বাদলকে ছুরিকাঘাত করে দ্রুত পালিয়ে যায়। 
প্রতিবেশীরা বাদলকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে দেন। সেখানে রাতেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাদল মারা যান। 

এ ব্যাপারে সান্তাহার টাউন ফাঁড়ির পরিদর্শক আনিসুর রহমান বলেন, রেজাউলকে ধরার জন্য বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানো হচ্ছে। এ রির্পোট পাঠানোর সময় পর্যন্ত লাশ নিহতের বাড়িতে পৌৎছেনি এবং আদমদীঘি থানায় কোন মামলা মামলা দয়ের হয়নি।

মন্তব্য