kalerkantho

জগন্নাথপুরে ধর্ষণের শিকার প্রথম শ্রেণির ছাত্রী, ধর্ষক গ্রেপ্তার

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:৪২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জগন্নাথপুরে ধর্ষণের শিকার প্রথম শ্রেণির ছাত্রী, ধর্ষক গ্রেপ্তার

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে প্রথম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ অভিযুক্ত ধর্ষণকারীকে গ্রেপ্তার করে সুনামগঞ্জ জেল হাজতে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও মামলার এজাহারের সূত্র থেকে জানা যায়, উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের বাদ খাশিলা (পূর্বপাড়) গ্রামের আমরু মিয়ার ছেলে রুম্মান মিয়া (২৫) গত ২৩ এপ্রিল বিকেলে প্রতিবেশী জমির আলীর ছয় বছরের শিশু কন্যাকে বসত ঘরে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় মেয়েটির চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে ধর্ষণকারী পালিয়ে যায়। ধর্ষণের শিকার শিশুকন্যা খাশিলা পূর্বপাড় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা জগন্নাথপুর থানায় এজাহার দায়ের করলে জগন্নাথপুর পুলিশ এদিন সকালে স্থানীয় কলকলিয়া এলাকা থেকে রুম্মান মিয়াকে গ্রেপ্তার করে সুনামগঞ্জ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এদিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মেয়েটিকে সিলেট ওসমানি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ওয়ান স্টপ ক্র্যাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।

ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রীর বাবা জমির উদ্দিন বলেন, ঘটনায় সময় আমি ও আমার স্ত্রী বাড়িতে ছিলাম না। ঘরের ভেতর আমার কন্যাকে একা পেয়ে নরপশু তাকে ধর্ষণ করেছে। এ ঘটনায় আমি বাদী হয়ে জগন্নাথপুর থানায় মামলা দায়ের করেছি।

ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা জগন্নাথপুর থানার এসআই রাজিব বলেন, মামলার প্রেক্ষিতে ধর্ষণকারীকে গ্রেপ্তার করে সুনামগঞ্জ আদাতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ডাক্তারি চিকিৎসার জন্য মেয়েকে সিলেট ওসমানি মেডিক্যাল কলেজের ভর্তি করা হয়েছে।

জগন্নাথপুর থানার ওসি হারুনুর রশিদ চৌধুরী বলেন, শিশু ধর্ষণের ঘটনায় শিশু ও নারী নির্যাতন আইনে থানায় মামলা হয়েছে।

মন্তব্য