kalerkantho

বাবার পর ছেলের লালসার শিকার প্রতিবন্ধী শিশু

সিঙ্গাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ২০:২১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাবার পর ছেলের লালসার শিকার প্রতিবন্ধী শিশু

বাবা রফিজ উদ্দিন দেওয়ানের (৪৭) বিরুদ্ধে এক মাস আগে প্রতিবেশী প্রতিবন্ধী এক কন্যা শিশুকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল। তখন লোকলজ্জার ভয়ে বিষয়টি চেপে যায় ধর্ষিত শিশুটির পরিবার। পিতার পর গত রবিবার দ্বিতীয় দফায় ওই প্রতিবন্ধী শিশুটিকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তারই ছেলে আল-আমিন দেওয়ানের (২৫) বিরুদ্ধে।

ঘটনাটি ঘটেছে মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলার মধ্য ধল্লা গ্রামে। এ ঘটনায় সোমবার আল আমীনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী শিশুটির মা। ঘটনার পর আল আমীন পলাতক রয়েছে।

প্রতিবন্ধী শিশুটির মেয়েটির মা বলেন, তার প্রতিবন্ধী মেয়েকে মাস খানেক আগে মধ্য ধল্লা গ্রামের রফিজ উদ্দিন দেওয়ান ধর্ষণ করে। তখন লোকলজ্জার ভয়ে তারা বিষয়টি প্রকাশ করেননি। গত রবিবার সকাল ১১টার দিকে রফিজ উদ্দিনের ছেলে আল আমীন তার প্রতিবন্ধী মেয়েকে বিস্কুট কিনে দেওয়া কথা বলে বাড়ির পাশে বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে দ্বিতীয় দফায় তার মেয়েকে সে ধর্ষণ করে। মেয়ে বাড়িতে এসে পুরো ঘটনা আমাকে খুলে বলে।

তিনি আরো জানান, ঘটনাটি স্থানীয় গ্রাম্য মাতবর ও জনপ্রতিনিধিরা ধামাচাপা দেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে আসছিল। উপায় না পেয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছি।

সিঙ্গাইর থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় সোমবার ভিকটিমের মা অভিযুক্ত যুবক আল আমীনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন। আজ মঙ্গলবার জেলা সদর হাসপাতালে ভিকটিমের স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে আসামি আল আমীন পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। 

মন্তব্য