kalerkantho

শনিবার । ২৫ মে ২০১৯। ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৯ রমজান ১৪৪০

ভুয়া ডাক্তার ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ : কালীগঞ্জে ২ ক্লিনিককে জরিমানা

ডাক্তার না-হয়েও নামের আগে 'ডাক্তার'

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি   

২১ এপ্রিল, ২০১৯ ১৭:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ডাক্তার না-হয়েও নামের আগে 'ডাক্তার'

ডাক্তার না হয়েও নামের আগে ডাক্তার লেখার অপরাধে এবং মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ব্যবহার করার দায়ে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ২টি ক্লিনিককে ৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। রবিবার (২১ এপ্রিল) দুপুরে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুবর্ণা রানী সাহা শহরের সুমন ক্লিনিক ও ইসলামী প্রাইভেট হাসপাতালকে (ক্লিনিক) এ জরিমানা করেন। 

ভ্রাম্যমাণ আদালতের পেশকার লুত্ফর রহমান জানান, শহরের প্রধান বাস টার্মিনালে অবস্থিত সুমন ক্লিনিকে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ব্যবহার করার অভিযোগ ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া নীমতলা বাসস্ট্যান্ড থানা রোডে অবস্থিত ইসলামী (প্রা.) হাসপাতালে (ক্লিনিক) সুমন হোসেন নামের এক ব্যক্তি ডাক্তার না হয়েও নামের আগে ডাক্তার লেখার অপরাধে ওই ভুয়া ডাক্তারকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে। 

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সুর্বণা রানী সাহা বলেন, ডাক্তার না হয়েও নামের আগে ডাক্তার লেখার অপরাধে মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ এর ২৯ ধারা অপরাধ মোতাবেক ইসলামী (প্রা.) হাসপাতালে সুমন হোসেন নামের এক ভুয়া ডাক্তারকে ৫ হাজার টাকা ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ব্যবহার করায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৫১ ধারা অপরাধে সুমন ক্লিনিককে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। 

এ ছাড়া তিনি আসন্ন পবিত্র রমজান উপলক্ষে বিভিন্ন হোটেল ও দোকানে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা এবং দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায় রাখতে নির্দেশনা প্রদান করেন।  

ভ্রাম্যমাণ আদালতে পরিচালনার সময় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঝিনাইদহের সহকারী পরিচালক সুচন্দন মন্ডলসহ স্থানীয় থানা পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য