kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

সাত দপ্তরের পাঁচ বছরের কাজের হিসেব চাইলেন সুলতান মনসুর

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

২৭ মার্চ, ২০১৯ ০১:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাত দপ্তরের পাঁচ বছরের কাজের হিসেব চাইলেন সুলতান মনসুর

ছবি: কালের কণ্ঠ

মৌলভীবাজার-২ কুলাউড়া আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে নির্বাচিত এমপি, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য, ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদের সঙ্গে কুলাউড়া উপজেলা উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ও আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ে মতবিনিময় সভা উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে অনুষ্ঠিত হয়।

সোমবার (২৫ মার্চ) সুলতান মনসুরের সঙ্গে সকাল ১১টায় শুরু হওয়া বৈঠক চলে দীর্ঘ আড়াই ঘণ্টা। এ সময় উপজেলা প্রশাসনিক সাতটি দপ্তরের গেল পাঁচ বছরের কাজের হিসেব চেয়েছেন তিনি।

প্রশাসনের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, গেল পাঁচ বছরে উপজেলায় কি পরিমাণ বরাদ্দ এসেছে, কতটি কাজ বাস্তবায়ন হয়েছে, কতটি চলমান, এসব কাজের বিস্তারিত লিখিত বিবরণ চেয়েছেন সুলতান মনসুর। সাতটি দপ্তরের মধ্যে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস (পিআইও), কুলাউড়া স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি), কুলাউড়ার সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তর (সওজ), কুলাউড়া উপজেলা সমাজ সেবা কার্যালয়, কুলাউড়া পিডিবি অফিস, কুলাউড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের অফিস ও বন বিভাগ।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সুলতান মনসুর বলেন, আমাকে জনগণ তাদের প্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত করেছে আর আপনারা জনগণের ট্যাক্সের টাকায় বেতন পাচ্ছেন। সুতরাং কোনো ভাবেই যেন আমার কুলাউড়াবাসী হয়রানির শিকার না হয়। সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশে সাবেক এ ডাকসু ভিপি বলেন, কুলাউড়ায় যেন কোনো দল, মত, ধর্মের মানুষ নির্যাতিত না হয়। 

আমার সব রকমের সহযোগীতা আপনাদের প্রতি থাকবে। আপনারা আপনাদের পবিত্র দায়িত্ব পালনে কখনো পিছপা হবেন না। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আবুল লাইছ। উপজেলার প্রশাসনিক বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা