kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৪ রবিউস সানি     

কুলাউড়ায় একই পরিবারের পাঁচজনের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি   

২৬ মার্চ, ২০১৯ ০০:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুলাউড়ায় একই পরিবারের পাঁচজনের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ

ছবি: কালের কণ্ঠ

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় ইসলাম ধর্মের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে একই পরিবারের পাঁচজন হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। তারা হলেন- কুলাউড়া উপজেলার ভাটেরা ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর গ্রামের বাসিন্দা নিতাই মালাকার (৬০), স্ত্রী রত্না মালাকার (৫০), কন্যা শিল্পী মালাকার (১৮), ছেলে রিপন মালাকার (১৩) ও আরেক কন্যা শিখা মালাকার (১০)। রবিবার রাত ১০টায় ভাটেরা ইউনিয়ন পরিষদে স্বেচ্ছায় উপস্থিত হয়ে তারা ধর্মান্তরিত হন। ভাটেরা বাজার মসজিদের ইমাম হাফেজ হিফজুর রহমানের কাছে পবিত্র চার কালিমা পাঠ করে আনুষ্ঠানিকভাবে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন তারা।
 
ভাটেরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলেন, সনাতন ধর্মাবলম্বী একই পরিবারের পাঁচজন সদস্য স্বেচ্ছায় ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। স্থানীয় সূত্র জানায়, ভাটেরা ইউনিয়নের মাইজগাঁও রেলওয়ে কলোনিতে বসবাসরত নিতাই দাস (৫০) ইসলামের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে স্বপরিবারে ইসলাম ধর্ম গ্রহণে আগ্রহী হন। বিষয়টি তিনি ভাটেরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে জানালে চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম তাদের ইসলাম ধর্ম গ্রহণের প্রক্রিয়ার উদ্যোগ নেন।
 
রবিবার সকালে তারা ইউনিয়ন পরিষদে এসে ধর্মান্তরিত হবার কথা জানালে তিনি তাদের সারাদিন পর্যবেক্ষণে রেখে রাতে ইউনিয়ন পরিষদেই তাদের আনুষ্ঠানিকভাবে পবিত্র কালিমা পড়ে নিতাই দাসের পরিবারের পাঁচ সদস্য ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। ধর্ম গ্রহণ করার পর নিতাই দাসের নাম পরিবর্তন করে মো. ইব্রাহিম, স্ত্রীর নাম রহিমা, ছেলের নাম ইসমাইল এবং মেয়ের নাম আয়েশা ও ফাতেমা রাখা হয়। 
 
এ ব্যাপারে ভাটেরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম সোমবার রাতে কালের কণ্ঠকে বলেন, ইসলাম ধর্ম গ্রহণকারী পরিবারটি বর্তমানে মুসলমানদের সাহায্য ও সহযোগিতায় নিরাপদে আছে। ইব্রাহীম আলী জানান, ইসলাম ধর্ম গ্রহণকালে তাদের কাপড়-চোপড়সহ তাৎক্ষণিক খরচের যোগান পেয়েছি। ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে আমরা অনেক খুশি এবং আনন্দিত।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা