kalerkantho

সাংবাদিক টিপুর প্রচেষ্টায় বাড়ি ফিরলো কিশোর

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি    

২৪ মার্চ, ২০১৯ ১৮:০৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সাংবাদিক টিপুর প্রচেষ্টায় বাড়ি ফিরলো কিশোর

জনপ্রিয় অন লাইন নিউজ পোর্টাল বাংলানিউজ টুয়োন্টেফোর ডটকমের পাবনার ঈশ্বরদী প্রতিনিধি সাংবাদিক টিপু সুলতানের আন্তরিক প্রচেষ্টায় নিখোঁজ হওয়া কিশোর ইব্রাহীম হুসাইন ইবু (১২) দীর্ঘ ৮ মাস পর বাড়ি ফিরলো। সে ঢাকার উত্তরখান থানার মাদারবাড়ি এলাকার উত্তরখান ইউনিয়ন টেকনিক্যাল স্কুল এ্যান্ড কলেজের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ও একই এলাকার আলম হুসাইনের ছেলে। 

বাড়ি থেকে বের হয়ে আসা কিশোর ইব্রাহীম হুসাইন ইবুকে (১২) আজ রবিবার দুপুরে ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশন স্টেশনে তার বাবা আলম হুসাইনের নিকট সোপর্দ করা হয়। এই সময় দীর্ঘদিন পর নিখোঁজ হওয়া ছেলেকে পেয়ে বাবা ও ছেলের মধ্যে আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। আর বাবার মোবাইল ফোনে মায়ের সঙ্গে কথা বলার সময় আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়ে কিশোর ইবু। 

সাংবাদিক টিপু সুলতান জানান, গত শনিবার রাতে আমি শহরের পশ্চিম টেংরী কাচারী পাড়াস্থ রেলওয়ের ওভারব্রিজ মোড়ে চা পান করতে যাই। এই সময় স্থানীয় ওষুধ ব্যবসায়ী সাদমান রাফার নিকট থেকে ছেলেটির (ইবুর) বিষয়ে তথ্য পাই। তখন ছেলেটিকে ডেকে সব কিছু শুনে তার ঠিকানা নিই। উত্তরখান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হেলাল উদ্দিনের সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করি। ওসি ইবুর নিখোঁজের সত্যতা নিশ্চিত করেন ও পরে ইবুর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। আজ দুপুরে ছেলেটির বাবা এসে ছেলেটিকে সঙ্গে করে বাড়িতে নিয়ে যান।  

খুঁজে পাওয়া ছেলে ইবু জানায়, সে উত্তরখান  ইউনিয়ন টেকনিক্যাল  স্কুল এ্যান্ড কলেজের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল। তাকে স্কুল থেকে এনে মাদ্রাসায় ভর্তি করিয়ে দেয়। মাদ্রাসায় পড়তে ভালো না লাগাই তার ভাই আল আমিন তার মায়ের সামনে বেধড়ক মারপিট করেন। মা কিছু না বলায় অভিমান করে সে বাড়ি থেকে পালিয়ে আসে। চট্রগ্রামে যাওয়ার জন্য ট্রেনে উঠে কিন্তু ভুল ট্রেনে উঠে যশোহর স্টেশনে নেমে পড়ে। সেখানে একটি দোকানে কাজ করলেও পয়সা না দেয়ায় সে গত দেড় মাস আগে ঈশ্বরদীতে চলে আসে।

ইবুর বাবা আলম হুসাইন জানান, গত বছরের জুন মাসের দিকে ঈদের পর ইবু বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়। তার খোঁজে থানায় জিডি, পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিয়েও কোনো সন্ধান পাইনি। গত শনিবার রাতে উত্তর খান থানার ওসির নিকট থেকে ইবুর সন্ধান পেয়ে আজ নিতে এসেছি। 

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী  জানান, অভিমানে রাগ করে বাড়ি থেকে চলে আসা কিশোরটি দীর্ঘ ৮ মাস ধরে নিখোঁজ ছিল। এই সময় সে দেশের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে বেড়িয়েছে। দীর্ঘ ৮ মাস পর আজ নিজের বাবার সঙ্গে মা ও পরিবারের লোকজনের নিকট ফিরে যাচ্ছে এটা খুবই আনন্দের ব্যাপার।

মন্তব্য