kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

পোরশায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আহত ৬

সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি    

১৯ মার্চ, ২০১৯ ২০:২৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পোরশায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আহত ৬

নওগাঁর পোরশায় নির্বাচন পরবর্তী সৃষ্ট সংঘর্ষে দুই পক্ষের হামলায় অন্তত ছয়জন আহত হয়েছেন এবং একটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে তাতে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকার ১০টার দিকে পৃথক পৃথকভাবে এসব হামলার ঘটনাগুলি ঘটেছে।
 
জানা গেছে, গতকাল সোমবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ শাহ মঞ্জুর মোরশেদ চৌধুরী আনারস মার্কায় জয়লাভ করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর সোমবার দিবাগত রাতে গাঙ্গুরিয়া ইউপির সুড়ানন্দ গ্রামের আনিছুর রহমানের ছেলে (আনারস মার্কার) সমর্থক মাহাবুর হোসেনকে বেধড়ক মারপিট করে প্রতিদ্বন্দ্বী পরাজিত নৌকা মার্কার প্রার্থী আনোয়ারুল ইসলামের সমর্থকরা। পরাজয়ের গ্লানি মেনে নিতে না পেরে আবারো পরদিন আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টার সময় উপজেলার সুতরইল মোড়ে ওই পরাজিত প্রার্থী আনোয়ারুলের সমর্থকরা বিজয়ী আনারস মার্কার সমর্থক পোরশা ইসলামপুর গ্রামের মৃত সোলাইমানের ছেলে আব্দুল্লাহ শাহকে একা পেয়ে বেদড়ক পিটিয়ে মারাত্বক আহত করে।
 
এর কিছুক্ষণ পর গাঙ্গুরিয়া ইউপির আমদা গ্রামে পরাজিত প্রার্থীর লোকজন আবারো বিজয়ী প্রার্থীর লোকজনের উপর অতর্কিত হামলা করে। এ সময় পরাজিত নৌকা মার্কা সমর্থকদের হামলাকারীদের হামলায় পোরশা ইসলামপুরের খোরশেদ আলমের ছেলে আতিকুর রহমান, একই গ্রামের আহম্মদ আলীর ছেলে শরিফ আহম্মদ, মৃত ফরিদ আহম্মদের ছেলে সিদ্দিক আহম্মেদ মারত্মক আহত হয় এবং ওই সময় তারা সেখানে থাকা কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে একটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে পুড়িয়ে ফেলে। একই সময় উপজেলার নিতপুর সদরে পরাজিত প্রার্থীর লোকজন বিজয়ী আনারস মার্কার লোকজনের উপর হামলা চালায়। হামলাকারীরা নিতপুর ইউনিয়ন পরিষদেও হামলা করে। এ ঘটনায় পশ্চিম দিয়াড়াপাড়ার আব্দুর রহমানের ছেলে আনারুল হক আহত হন।
 
আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় আব্দুল্লাহকে রাজশাহী মেডিক্যালে পাঠানো হয়েছে। এবং অন্যান্যদের পোরশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
 
এ ব্যাপারে পোরশা থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিনুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, কোনো পক্ষ এখনো মামলা করেনি। মামলা হলে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে তিনি জানান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা