kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

থাইল্যান্ড সফরে যাচ্ছে সিআরপি নারী হুইলচেয়ার বাস্কেটবল দল

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

১৯ মার্চ, ২০১৯ ২০:২৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



থাইল্যান্ড সফরে যাচ্ছে সিআরপি নারী হুইলচেয়ার বাস্কেটবল দল

সিআরপির নারী হুইলচেয়ার বাস্কেটবল দল আগামী ২৩ মার্চ একটি প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে অংশগ্রহণের উদ্দেশ্যে থাইল্যান্ড সফরে যাচ্ছে। সাত দিনব্যাপী এই ক্যাম্পের আয়োজক আন্তর্জাতিক হুইলচেয়ার বাস্কেটবল ফেডারেশন, এশিয়া ওশেনিয়া জোন। ক্যাম্পটি অনুষ্ঠিত হবে থাইল্যান্ডের সুফান বুরির ন্যাশনাল প্যারালিম্পিক ট্রেনিং সেন্টারে। যেখানে অনেক অভিজ্ঞ প্রশিক্ষকরা এশিয়া মহাদেশের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত প্রতিবন্ধী খেলোয়াড়দের হুইলচেয়ার বাস্কেটবলে দক্ষতা বৃদ্ধিতে প্রশিক্ষণ দেবেন। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হগার গ্লিনিকি যিনি জার্মান নারী দলের সাবেক কোচ এবং স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত। অন্যজন ট্রয় সাচ, যিনি অস্ট্রেলিয়ান পুরুষ দলের হয়ে দুইবার প্যারালিম্পিকে স্বর্ণপদক জিতেছেন।  

মঙ্গলবার সিআরপির বাস্কেটবল মাঠে ট্রাস্ট ফর দ্যা রিহ্যাবিলিটেশন অফ দ্যা প্যারালাইজড এর চেয়ারম্যান মুহাম্মাদ সাইদুর রহমান, সিআরপির নির্বাহী পরিচালক মোঃ সফিকুল ইসলাম এবং অন্যান্য অতিথিবৃন্দের উপস্থিতিতে ক্যাম্পে অংশগ্রহণকারী খেলোয়াড়দের হাতে বাংলাদেশের জার্সি তুলে দেন।  

সিআরপির নির্বাহী পরিচালক মোঃ সফিকুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে জানান, এই নিয়ে সিআরপির নারী হুইলচেয়ার বাস্কেটবল দল যাদের প্রত্যেকেই মেরুরজ্জুতে আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে কোন না কোন শারীরিক প্রতিবন্ধিতার শিকার, তৃতীয়বারের মত বিদেশ ভ্রমণে যাচ্ছে। এর আগে ২০১৭ সালে দলটি নেপালে একটি আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করে রানার আপ হয় এবং ২০১৮ সালে ইন্দোনেশিয়ায় পঞ্চম বালি কাপে অংশগ্রহণ করে চ্যাম্পিয়ন হয়। এবার তাদের দক্ষতা উন্নয়নে এই প্রশিক্ষণটি আরও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করবে। ১০ জন খেলোয়াড়ের এই দলের সাথে যাচ্ছে ১ জন রেফারি, ২ জন কোচ, ১ জন ক্ল্যাসিফায়ার এবং ১ জন টিম ম্যানেজার। সাত দিনব্যাপী এই ট্রেনিং চলবে ২৪ মার্চ থেকে ৩০ মার্চ পর্যন্ত। খেলোয়াড়দের এই ক্যাম্পে অংশগ্রহণ নিশ্চিতে সহায়তা করছে ইন্টারন্যাশনাল হুইলচেয়ার বাস্কেটবল ফেডারেশন (এশিয়ান ওশেনিয়া), ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অফ দি রেড ক্রস (আইসিআরসি) এবং বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সন। প্রশিক্ষণ শেষে দলটি ৩১ মার্চ দেশে ফিরবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা