kalerkantho

বুধবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৩ রবিউস সানি     

সোনারগাঁয়ে ইভটিজিংয়ের দায়ে তিন বখাটের কারাদণ্ড

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৮ মার্চ, ২০১৯ ১৫:৫৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সোনারগাঁয়ে ইভটিজিংয়ের দায়ে তিন বখাটের কারাদণ্ড

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ জি আর ইনিস্টিটিউশনের সামনে ছাত্রীদের ইভটিজিং করার সময় সোমবার তিন বখাটেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেন।

সোনারগাঁ থানার এসআই আবুল কালাম আজাদ জানান, সোনারগাঁ জি আর ইনিস্টিটিউশন স্কুল অ্যান্ড কলেজ এর প্রধান গেইটের সামনে ছাত্রীদের ইভটিজিং করার সময় হাতেনাতে শাহীন, শিমুল ও আব্দুল্লাহ নামে তিন বখাটেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অঞ্জন কুমার সরকার ভ্রামম্যাণ আদালত পরিচালনা করে আমিনপুর গ্রামের ছোবহানের ছেলে শাহিন ও দিঘীর পাড় গ্রামের মোক্তার হোসেনের ছেলে আব্দুল্লাহকে তিন মাসের এবং আমিনপুর গ্রামের মাইন উদ্দিনের ছেলে শিমুলকে চার মাসের কারাদণ্ড দেন।

প্রত্যক্ষদর্শী, স্থানীয় এলাকাবাসী, অভিভাবক ও বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা কালের কণ্ঠকে জানান, সোনারগাঁ জি আর স্কুল অ্যান্ড কলেজে ছাত্রছাত্রী বেশী থাকায় দুই সিফটে ক্লাস নেন বিদ্যালয় কতৃপক্ষ। সকাল সাড়ে ৭টা থেকে ১২ পর্যন্ত ছাত্রীদের পাঠদান চলে। এ সময় সকাল ৭ থেকে ৮ টা এবং ১১ টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত বিদ্যালয়ের গেইটে, গোবিন্দপুর ঋষিপাড়ার মকবুলের দোকানের সামনে, লাহাপাড়া মোড়, পৌরসভার কয়েকটি পয়েন্ট, বিদ্যালয়ের সামনের চা দোকান, গ্রীণ চাইল্ড কিন্ডার গার্টেনের সামনে, খাগুটিয়া মসজিদের সামনে, পানাম নগরের কয়েকটি মোড়ে, যাদুঘরের মোড়, গোয়ালদী মোড়সহ বিভিন্ন পয়েন্টে বখাটেরা দাঁড়িয়ে স্কুলে আসা যাওয়ার পথে ছাত্রীদের ইভটিজিং এবং নানা ধরনের অশালিন অঙ্গভঙ্গি করে। এতে ছাত্রী ও অভিবাবকরা আতঙ্কিত থাকে। রাস্তাঘাট বখাটেমুক্ত করতে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও অভিভাবকরা দীর্ঘদিন যাবৎ দাবি জানিয়ে আসছেন।

এ ব্যাপারে নির্বাহী কর্মকর্তা অঞ্জন কুমার সরকার কালের কণ্ঠকে বলেন, সোনারগাঁয়ের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বখাটেমুক্ত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা