kalerkantho

সোমবার । ২২ জুলাই ২০১৯। ৭ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৮ জিলকদ ১৪৪০

সৈয়দপুরে আড়াই কোটি টাকা মূল্যের খাস ও পরিত্যক্ত জমি উদ্ধার

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সৈয়দপুরে আড়াই কোটি টাকা মূল্যের খাস ও পরিত্যক্ত জমি উদ্ধার

নীলফামারীর সৈয়দপুরে প্রায় আড়াই কোটি টাকা বাজারমূল্যের খাস ও পরিত্যক্ত জমি উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা সহকারী কমিশনারের (ভূমি) নেতৃত্বে ওই জমি উদ্ধার করা হয়। এ সময় উদ্ধারকৃত জমিতে লাল নিশানা স্থাপন করা হয়।

 ভূমি অফিস সূত্র জানায়, উপজেলার ১ নম্বর কামারপুকুর ইউনিয়নের ধলাগাছ মৌজার জে এল নম্বর ৩৫-এ ৫ একর ৩২ শতক সরকারি খাস ও পরিত্যক্ত জমি রয়েছে। এর মধ্যে খাস ২ একর ১৮ শতক এবং পরিত্যক্ত ৩ একর ১৪ শতক। দীর্ঘদিন যাবৎ একই এলাকার প্রভাবশালী মৃত. জোবায়দুল ইসলাম গং, ইঞ্জিনিয়ার মো. মতিয়ার রহমান, আব্দুল মজিদ ও আমিনুল ইসলাম গং ওই খাস ও পরিত্যক্ত জমি ভোগদখল করে আসছিলেন। 

মঙ্গলবার সকাল থেকে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকারের নেতৃত্বে ওই জমি উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করা হয়। বিকেল পর্যন্ত ওই জমি মেপে সীমানা নির্ধারণ করে সেখানে লাল নিশানা স্থাপন করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত জমির বাজারমূল্য প্রায় আড়াই কোটি টাকা বলে জানা গেছে। 

জমি উদ্ধার অভিযানে কামারপুকুর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ( ভারপ্রাপ্ত) মো. আশিকুর রহমান, সৈয়দপুর থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) মো. সোলায়মান আলী, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) নুর আমিন, অন্যন্য পুলিশ সদস্যসহ উপজেলা ভূমি অফিসের বিপুল সংখ্যক কর্মকর্তা-কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

জমি উদ্ধার অভিযানকালে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস. এম. গোলাম কিবরিয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সব জমির দখলকারীকাদের একজন আমিনুল ইসলামের সঙ্গে সরেজমিনে কথা হয়। তিনি জানান, সরকারি জমি সরকার উদ্ধার করেছে। এতে আমাদের সহযোগিতা ছিল।

সৈয়দপুর উপজেলা কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার বলেন, উদ্ধারকৃত ওই জমিতে ভূমিহীনদের পুনর্বাসন করা হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা