kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

সিঙ্গাইরে রফিক নগরে হাজারো মানুষের ঢল

সিঙ্গাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:২৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিঙ্গাইরে রফিক নগরে হাজারো মানুষের ঢল

মহান ভাষা দিবসে মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর শহীদ রফিক উদ্দিন আহমদের বাড়িতে মানুষের ঢল নেমেছিল। এদিন সকালে শহীদ রফিকের পারিবারিক শহীদ মিনারে পুস্পার্ঘ অর্পণ করে ভাষা সৈনিকদের শ্রদ্ধা জানান শিশু-কিশোর, বিশিষ্ঠ ব্যক্তিবর্গ ও সমাজের নানা শ্রেণি-পেশার হাজারো মানুষ। ফুলেফুলে ভরে যায় শহীদ বেদী।

৫২’র ভাষা আন্দোলনে প্রথম আত্মোৎসর্গকারী শহীদ রফিক উদ্দীন আহম্মেদের পৈতৃক বাড়ি উপজেলার বলধারা ইউনিয়নের পারিল গ্রামে। ২০০৬ সালে গ্রামের নাম পরিবর্তন করে রফিক নগর নামকরণ করা হয়। এ গ্রামে একুশ আসে শোক আর অহংকারের আমেজে। ভোরের আলো ফোটার আগেই জেগে ওঠে গ্রামের শিশু-কিশোর আবালবৃদ্ধবনিতা। ভোরের শিশির-ভেজা মেঠোপথ পেরিয়ে বাঁধভাঙা জোয়ারের মতো হাতে ফুল নিয়ে আসতে শুরু মানুষ।

শহীদ মিনারে পুস্পার্ঘ অর্পণ করে ভাষা সৈনিকদের শ্রদ্ধা জানান জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাহেলা রহমতুল্লাহ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) হামিদুর রহমান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার ইঞ্জিনিয়ার তোবারক হোসেন লুডু, শহীদ রফিকের ভাই খোরশেদ আলম, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান আনোয়ারা খাতুন, সিঙ্গাইর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ নুরুদ্দীন ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মাজেদ খাঁনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

এদিকে অমর একুশে উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে সকালের প্রভাত ফেরিতে অংশগ্রহণ করেন উপজেলার সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, স্কুল-কলেজের শিক্ষক, অভিবাবক, ছাত্র-ছাত্রী, পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। সবার কণ্ঠে ছিল একুশের গান আর হাতে ফুল।

বিকেলে শহীদ রফিক স্মৃতি জাদুঘর সংলগ্ন মাঠে আয়োজন করা হয় নাচ-গান, আবৃত্তি, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও স্মৃতিচারণমূলক আলোচনাসভার।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা