kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

নির্বাচনী সহিংসতায় বসতঘর পুড়ে ছাই, প্রধানমন্ত্রী সাহায্য কামনা

ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২০:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নির্বাচনী সহিংসতায় বসতঘর পুড়ে ছাই, প্রধানমন্ত্রী সাহায্য কামনা

গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কেন্দ্রে ছাতকের ভাতগাঁও ইউনিয়নের পাগনারপাড় গ্রামের মৃত জমসেদ আলীর ছেলে রুবেল মিয়ার সাথে একই গ্রামের কয়েকজন যুবকের বাকবিতণ্ডা হয়। এর জের ধরে গত ৬ জানুয়ারি রাতে তার বসত ঘরে আগুন লাগিয়ে ভস্মীভূত করা হয়। 

এ ঘটনার পর থানায় ধর্ণা দিতে দিতে পুলিশ মামলা না নেওয়ায় নিরুপায় হয়ে ১৩ জানুয়ারি সুনামগঞ্জ দায়রা জর্জ আদালতে লিখিত একটি অভিযোগ দেন রুবেল মিয়া। কিন্তু এখনো এটির কোনো অগ্রগতি নেই।

আসামিরা অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য প্রকাশ্যে হুমকি দিচ্ছে। তদন্তের স্বার্থে ভস্মিত ঘরেরও সংস্কার করতে পারছেন না তারা। ফলে দুটি কক্ষে মানবেতর জীবন কাটছে তাদের। 

এতে মামলার অগ্রগতির জন্য অসহায় হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহায্য কামনা করছেন ভুক্তভোগীর পরিবার। বৃহস্পতিবার বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সংবাদ কর্মীদের সামনে সাহায্য প্রার্থনা করেন রুবেল মিয়ার মা আছিয়া বেগম। 

তিনি বলেন আমার ছেলে নৌকার জন্য কাজ করায় গ্রামের লায়েক মিয়া, আলেক মিয়া, দিলোয়ার হোসেন আমার ঘরে পেট্রোল দিয়ে অগ্নিসংযোগ করে। আমি জানলা দিয়ে তাদের দেখেতে পেলে দ্রুত আগুন লাগিয়ে পালিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশীরা প্রায় ১ ঘণ্টা চেষ্টা করে আগুন নিভায়। এতে প্রায় ৪ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। 

কিন্তু ঘটনার এতোদিন পরও মামলার কোনো অগ্রগতি না হওয়ায় তারা সুবিচার থেকে বঞ্চিত হওয়ার শংকায় রয়েছেন। এতে তিনি মামলার অগ্রগতির জন্য প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করছেন। 

এ ব্যাপারে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (ছাতক সার্কেল) দুলন মিয়া জানান, তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘটনার আলামত সংগ্রহ করেছেন। শিগগরিই প্রতিবেদন দাখিল করবেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা