kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

‌'চল আমাদের বিশ্বটাকে সবুজ করি' স্লোগানে

ঈশ্বরদীতে শিক্ষার্থীদের মাঝে গাছের চারা বিতরণ ও রোপণ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০২:৩৯ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ঈশ্বরদীতে শিক্ষার্থীদের মাঝে গাছের চারা বিতরণ ও রোপণ

ছবি : কালের কণ্ঠ

'চল আমাদের বিশ্বটাকে সবুজ করি' স্লোগানে পাবনা ঈশ্বরদীর মানিকনগর বালিকা উচ্চ ও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে গাছের চারা বিতরণ ও রোপণ করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের নির্মাণাধীন বিদেশি কম্পানি ভিনসি কন্সট্রাকশনের ফ্যাসিনেট মেনার্ড নর্থর্দান ইমিরেটস এলএলসি’এর সহযোগিতায় কম্পানির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এই চারা বিতরণ ও রোপণ করেন।

মানিকনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনিসুর রহমানের সভাপতিত্বে শিক্ষার্থীদের মধ্যে গাছের চারা বিতরণ, রোপণ, মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে সনদ বিরতণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের সুনামধন্য প্রতিষ্ঠান ফ্যাসিনেট মেনার্ড নর্থর্দান ইমিরেটস এলএলসি প্রকল্প পরিচালক কিরিল তুসিন, প্রকল্পের প্রকৌশলী ব্যবস্থাপক মাইকেলস্কি ব্লজেজ, প্রকল্পের উৎপাদন ব্যবস্থাপক আয়ন লিচিইম, প্রকৌশলী মো. মেহেদী, প্রকল্পের পরিবেশ, স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা ব্যবস্থাপক ওয়ালি মোহাম্মাদ, অর্থ ব্যবস্থাপক নাজমুল দেওয়ান, সহকারী অর্থ ব্যবস্থাপক মাসুদুল ইসলাম, ডাক্তার ওয়াহেদ, প্রসানিক ব্যবস্থাপক মো. রেজওয়ান উল কাদেরী, প্রশাসনিক সমন্বয়কারী মুসকিক আহমেদসহ প্রকল্পের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারী।

কম্পানির স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা ব্যবস্থাপক ওয়ালি মোহাম্মাদ কালের কণ্ঠকে জানান, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে ভিনসি কন্সট্রাকশনের ফ্যাসিনেট মেনার্ড নর্থর্দান ইমিরেটস এলএলসি বিগত দেড় বছর ধরে কাজ করেছে। এই সময় প্রকল্পে কাজ করা বিদেশী অন্যান্য কোম্পানিগুলো চেয়ে ফ্যাসিনেট মেনার্ড কোম্পনিটি এদেশীয় শ্রমিকদের নিকট দারুণভাবে প্রশংসিত হয়েছে। শ্রমিকের স্বাস্থ্য, বেতন, কর্মের পরিবেশ ও উন্নতমানের স্বাস্থ্যসম্মত খাওয়া এবং বসবাসের  সুব্যবস্থা রাখা হয়েছিল। যা প্রকল্পে কাজ করা অন্যান্য কম্পানিগুলোতে এই ব্যবস্থা নেই।

মানিকনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনিসুর রহমান ও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হেলাল উদ্দিন কালের কণ্ঠকে জানান, কম্পানি বুধবার সকালে বেশ কিছু কর্মকর্তাদের নিয়ে বিদ্যালয়ে আসেন। তাঁরা দুই বিদ্যালয়ের কোমলমতি প্রায় ১৩ শ শিক্ষার্থীদের মাঝে কমলা লেবু, কামরাঙ্গা, জলপাই, ছফেদা চারা বিতরণ করেন। একই সঙ্গে আমাদের পৃথিবীটাকে সবুজ করতে ও শিক্ষা গ্রহণ করে মানুষের মতো মানুষ হতে শিক্ষার্থীদের আহবান জানিয়ে পরামর্শমূলক বক্তব্য দেন প্রকল্পের পরিচালক কিরিল তুসিন। 

এই দুই শিক্ষক আরো জানান, বিদেশি একটি কম্পানি এভাবে বিদ্যালয়ে এসে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ফলজ চারা বিতরণ, মেধাবীদের শিক্ষা সনদ প্রদান করবেন এটা ভাবতেই পারেনি। এ সময় কোম্পানির কর্মকর্তারা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ, চকলেট বিতরণ করে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বেশ কিছু সময় আনন্দ-উল্লাস করেন। এই জন্য কম্পানির প্রকল্প ব্যবস্থাপক কিরিল তুসিনসহ অন্যান্যদের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞা প্রকাশ করেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা