kalerkantho

মঙ্গলবার । ২২ অক্টোবর ২০১৯। ৬ কাতির্ক ১৪২৬। ২২ সফর ১৪৪১            

বীরগঞ্জে দিনমজুর নারী ধর্ষণের শিকার

যুবককে ধরে পুলিশে সোপর্দ করল জনতা

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০২:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বীরগঞ্জে দিনমজুর নারী ধর্ষণের শিকার

দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার গণ্ডারঝাড় গ্রামে দিনমজুর এক নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। রবিবার সকালে বৈরী আবহাওয়ায় কাজে যাওয়ার সময় রাস্তায় একা পেয়ে তাঁকে মারধর করে ধর্ষণ করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এই ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ওমর ফারুক (২৫) নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। সে উপজেলার ৪ নম্বর নিজপাড়া ইউনিয়নের গণ্ডারঝাড় গ্রামের মো. কফিল উদ্দিনের ছেলে।

নির্যাতিত নারীর বাবা জানান, রবিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তাঁর মেয়ে প্রতিবেশী ইউসুফ আলীর বাগানে নিড়ানির কাজে যাচ্ছিলেন। এ সময় আকাশ মেঘলা থাকার কারণে রাস্তা ফাঁকা ছিল। রাস্তায় একা পেয়ে ওমর ফারুক তাঁকে জোরপূর্বক পাশের ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরে একই গ্রামের ভ্যানচালক মো. আমিনুল ইসলাম তাঁকে হাত-পা বাঁধা অজ্ঞান অবস্থায় ভুট্টাক্ষেতে পড়ে থাকতে দেখেন। এলাকাবাসীর সহযোগিতায় তিনি তাঁকে উদ্ধার করে বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থাকা অবস্থায় রবিবার সন্ধ্যায় ওই নারী কালের কণ্ঠকে জানান, কাজে যাওয়ার সময় আকাশে মেঘ থাকায় এলাকাটি বেশ নির্জন ছিল। ওই সময় পূর্বপরিচিত ওমর ফারুক তাঁর গতিরোধ করে কুপ্রস্তাব দেয়। প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ওমর ফারুক জোরপূর্বক ভুট্টাক্ষেতে নিয়ে গিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে হাত-মুখ কাপড় দিয়ে বেঁধে ধর্ষণ করে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক সমরেশ দাশ গতকাল সোমবার কালের কণ্ঠকে জানান, ওই নারীর শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাঁকে প্রাথমিক চিকিত্সা দিয়ে রবিবার সন্ধ্যায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

বীরগঞ্জ থানার ওসি সাকিলা পারভিন জানান, মামলার প্রস্তুতি চলছে। ভিকটিম দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা