kalerkantho

বুধবার । ১৬ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৬ সফর ১৪৪১       

গৃহবধূর লাশ হাসপাতালের বাথরুমে

পটুয়াখালী প্রতিনিধি    

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১২:০৫ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



গৃহবধূর লাশ হাসপাতালের বাথরুমে

পটুয়াখালীর দুমকির একটি বেসরকারি হাসপাতালের বাথরুম থেকে গত বুধবার রাতে গৃহবধূ রুবিনা আক্তারের ফাঁস দেওয়া লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গৃহবধূ রুবিনার ছয় মাস বয়সী শিশু সারা আক্তার ওই হাসপাতালে ভর্তি ছিল।

জানা গেছে, উপজেলার আঙ্গারিয়া ইউনিয়নের বাহেরচর গ্রামের সাইফুল ইসলামের মেয়ে সারা আক্তার ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হলে গত শনিবার লুথার্ন হেলথ কেয়ারে ভর্তি করা হয়। শিশুটির অবস্থারও উন্নতি হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার কথা ছিল রুবিনা ও তাঁর সন্তানের। কিন্তু বুধবার রাতে রুবিনা হাসপাতালের কমন বাথরুমে গিয়ে ভেন্টিলেটরের রডের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরে দীর্ঘ সময় বাথরুম থেকে বের না হওয়ায় অন্য রোগী ও তাদের স্বজনরা বাথরুমের দরজা ভেঙে ফাঁস দেওয়া রুবিনাকে দেখতে পায়। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দুমকি থানায় খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

এ ব্যাপারে রুবিনার স্বামী সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘কেন, কোন কারণে রুবিনা আত্মহত্যা করেছে, বুঝতে পারছি না। আমাদের দুজনের পারিবারিক সম্পর্ক সব সময় ভালো ছিল।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা