kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৪ অক্টোবর ২০১৯। ৮ কাতির্ক ১৪২৬। ২৪ সফর ১৪৪১       

ছোট উদ্যোগে বড় সাফল্য

সোহেল হাফিজ, বরগুনা   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৭:৩৪ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



ছোট উদ্যোগে বড় সাফল্য

বরগুনার বড়িয়ালপাড়া এলাকা। জীর্ণশীর্ণ ঘরে নানা শ্রেণি-পেশার মানুষের বসবাস এখানে। কয়েকটি ঘরের সামনে এক চিলতে উঠোন। উঠোনে খেলছে ছোট ছোট কয়েকটি ছোট্ট শিশু। আরেকদিকে ছোট্ট একটি এফ এম রেডিওকে ঘিরে বসে আছেন বেশ কয়েকজন মধ্য বয়স্ক নারী ও কয়েকজন কিশোরী। গভীর মনোযোগ নিয়ে কিছু একটা শুনছেন তারা। কাছে যেতেই বোঝা গেল আসল বিষয়। বরগুনার লোকোবেতার এফএম ৯৯.২ থেকে প্রচারিত স্বাস্থ্য বিষয়ক একটি অনুষ্ঠান শুনছেন তারা। অনুষ্ঠানটির নাম সুরক্ষা।

নারীদের বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যার পাশাপাশি জন্মনিয়ন্ত্রণ, প্রসব পরবর্তী সেবাসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য ঝুঁকিসমূহ ও করণীয় বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিনোদনমূলক লোক সংগীতের ফাঁকে ফাঁকে সহজ ভাষায় বর্ণনামূলক একটি অনুষ্ঠান ‘সুরক্ষা’। নারীদের বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যার পাশাপাশি বিভিন্ন স্বাস্থ্য ঝুঁকিসমূহ ও করণীয় বিষয়গুলোকে সুকৌশলে আলোকপাত করা হয়েছে এ অনুষ্ঠানটিতে। 

অনুষ্ঠান শেষে কয়েকজন শ্রোতার সাথে কথা বলে জানা গেল, লোকবেতারের নানা আয়োজনের মধ্যে নারীদের বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যার পাশাপাশি বিভিন্ন স্বাস্থ্য ঝুঁকিসমূহ ও করণীয় বিষয়ক ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘সুরক্ষা’ একটি।

পিছিয়ে পড়া উপকূলীয় এই জনপদের স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন পরামর্শ দেয়া হয় এই অনুষ্ঠানে। তাই উপকূলের গণমানুষের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠান হিসেবে বিবেচিত এ অনুষ্ঠানটি। স্থানীয় একজন শ্রোতা নাজমা বেগম (২৩) বলেন, ‘অনেক স্বাস্থ্য সেবা থেকেই আমার বঞ্চিত। কোথায় কোন ধরণের সেবা পাওয়া যায়, সে সম্পর্কেও অনেকের ধারণা ছিল না। এই অনুষ্ঠানটির মাধ্যমে আমরা অনেক কিছু জানতে পেরেছি। কোথায় গেলে কি ধরণের সেবা পাওয়া যায়, সে সম্পর্কে আমাদের ধারণা দিয়েছে এই অনুষ্ঠানটি।

সুরক্ষা অনুষ্ঠানের একজন নিয়মিত শ্রোতা চামেলী আক্তার বলেন, তাদের গ্রামের নাম কুমড়াখালী। উপকূলীয় জেলা বরগুনার সদর উপজেলার একটি গ্রাম। শহরের খুব কাছে হলেও বর্ষায় কর্দমাক্ত একমাত্র মাটির সড়কটিও। তাই শুকনো মৌসুমে তাদের গ্রামে দু’একজন স্বাস্থ্য কর্মীর দেখা মিললেও, বর্ষার মৌসুতে তাও মেলোনা। আবার চাইলেইন বর্ষার মৌসুমে নারীদের পক্ষে স্বাস্থ্যকেন্দ্রেও যাওয়া সম্ভভ হয়না। তাই এক দিকে অজ্ঞতা ও অন্যদিকে অসচেতনতার কারণে বিশেষ করে তাদের গ্রামের নারীরে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ছিল।

তিনি আরো বলেন, বরগুনার লোকবেতারে ‘সুরক্ষা নামের একটি অনুষ্ঠান উঠোন বৈঠক তাদের গ্রামের নারী ও কিশোরীদের সচেতন করে তুলেছে। তাই লোকবেতারে এ ধরণের অনুষ্ঠান নিয়মিত প্রচারের অনুরোধ জানান তিনি।

বরগুনা জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক গোলাম সরোয়ার বলেন, লোকবেতারে সুরক্ষা নামের অনুষ্ঠানটি এই এলাকার বিশেষ করে নারীদের সুস্থ ও স্বাভাভিক জীবন যাপনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এই অনুষ্ঠানের লাইভ প্রোগ্রামে তিনিও অতিথি হয়েছিলেন জানিয়ে বলেন, জনবলেন অভাবে প্রত্যেক বাড়ি গিয়ে আমাদের পক্ষে নারীদের স্বাস্থ্য বিষয়ক সব ধরণের পরামর্শ দেয় সম্ভব হয়না। অথচ এই প্রোগ্রামের মাধ্য বরগুনার প্রায় প্রতিটি নারী তাদের স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন পরামর্শ ঘরে বসেই পেয়েছেন। এ ধরণের অনুষ্ঠান লোকবেতারের নিয়মিত প্রচার করা হলে, এই অঞ্চলের নারীদের স্বাস্থ্যঝুঁকি শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা সম্ভবলেও জানান তিনি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিএনএনআরসি’র সহযোগিতায় ও আইপাস বাংলাদেশ নামের একটি বে-সরকারি সংস্থার অর্থায়নে চারমার ব্যাপী নারীদের জন্মনিয়ন্ত্রন, মাসিক নিয়মিতকরণ, প্রসব পূর্ব ও পরবর্তী সেবাসহ নারীদের বিভিন্ন স্বাস্থসেবা নিয়ে অনুষ্ঠান প্রচার করে বরগুনার কমিউনিটি রেডিও লোকবেতার এফএম ৯৯.২। কম সময় হলেও এ ধরণের প্রোগ্রামের ফলে উপকূলীয় এই জেলার নারীদের স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে গুরুত্ব অবদান রাখে লোকবেতার।

এ বিষয়ে লোকবেতার বরগুনার স্টেশন ম্যানেজার মনির হোসেন কামাল জানান, নারীদের স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন প্রোগ্রাম নিয়মিত প্রচার করতে হলে অর্থের প্রয়োজন রয়েছে। সরকারি বা বেসরকারি কোন সহায়তা না পেলে এ ধরণের প্রোগ্রাম নিয়মিত প্রচার করা সম্ভব নয়। 

এ বিষয়ে বরগুনার জেলা প্রশাসক মোঃ কবীর মাহমুদ বলেন, লোকবেতার দুর্যোগপ্রবণ উপকূলীয় জেলা বরগুনায় আবহাওয়া সংবাদসহ জনসচেতনতামূলক বিভিন্ন অনুষ্ঠান প্রচার করে সর্বস্তরের সাধারণ মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে। তিনি আরও জানান, ‘সুরক্ষা’ নামের একটি স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রোগ্রাম এই জনপদের নারীদের সচেতনতা বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে সারা ফেলেছে। লোকবেতারে যাতে এ ধরণের প্রোগ্রাম নিয়মিত আয়োজনের জন্য যাতে সরকারী সহায়তা প্রদান করা হয়, সেজন্য তিনি বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে তুলে ধরবেন বলে জানান। পাশাপাশি জনসচেতনতামূলক বিভিন্ন অনুষ্ঠান প্রচারের জন্য বে-সরকারী সংগঠনগুলোকে লোকবেতারের সঙ্গে কাজ করার আহবান জানান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা