kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

মোংলা বন্দরে যুক্ত হচ্ছে অত্যাধুনিক টাগ বোট

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

২০ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৯:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোংলা বন্দরে যুক্ত হচ্ছে অত্যাধুনিক টাগ বোট

চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের নৌবহরে যুক্ত হচ্ছে মালয়েশিয়া থেকে আনা শক্তিশালী টাগবোটটি। ছবি : কালের কণ্ঠ

এ মাসের শেষ সপ্তাহে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের নৌযানবহরে যুক্ত হতে যাচ্ছে অত্যাধুনিক একটি টাগ বোট। বন্দরে কোনো বিদেশি জাহাজ কিংবা দেশীয় নৌযান দুর্ঘটনাকবলিত হলে সেটি উদ্ধার, বয়া ও জেটিতে বিদেশি জাহাজ বাঁধা এবং চ্যানেল দিয়ে জাহাজ আসা-যাওয়ার ক্ষেত্রে দুর্ঘটনা রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে নতুন এই টাগ বা সাহায্যকারী জাহাজ।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার দুরুল হুদা জানান, ৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে মালয়েশিয়া থেকে এমটি সুন্দরবন নামের টাগ জাহাজটি আনা হচ্ছে। এরই মধ্যে পূর্ব মালয়েশিয়ার শিবু এলাকায় জাহাজটির নির্মাণকাজ সম্পন্ন হয়েছে। ৪২ টন ক্ষমতাসম্পন্ন টাগ জাহাজটি নির্মাণ করেছে মালয়েশিয়ার কাইবুক শিপইয়ার্ড। নবনির্মিত জাহাজে কোনো ধরনের ত্রুটি-বিচ্যুতি রয়েছে কি না তা সরেজমিনে পর্যবেক্ষণের জন্য এখন মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছে বন্দরের হারবার মাস্টারের নেতৃত্বাধীন কর্তৃপক্ষের একটি টিম।

সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে জাহাজটি মোংলা বন্দরে পৌঁছবে বলে জানিয়েছেন হারবার মাস্টার দুরুল হুদা। বন্দর ব্যবহারকারী ইউনিক মেরিটাইম লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শেখ বদিউজ্জামান টিটু বলেন, ‘উদ্ধারকারী এ টাগ জাহাজটি আরো আগেই ক্রয়ের প্রয়োজন ছিল। দেরিতে হলেও কর্তৃপক্ষ টাগটি সংযোজন করায় বন্দরে জাহাজ আনা-নেওয়ার ক্ষেত্রে আমরা ঝুঁকিমুক্ত থাকতে পারব। বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কমোডর এ কে এম ফারুক হাসান বিএন বলেন, এমটি সুন্দরবন নামক অত্যাধুনিক যে টাগ জাহাজটি ক্রয় করা হয়েছে, তা দিয়ে বন্দর চ্যানেলের সার্বিক অপারেশন কার্যক্রম পরিচালিত হবে। ফলে দুর্ঘটনা থেকে রেহাই পাবে দেশি-বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজ। এ ছাড়া দ্রুত সময়ের মধ্যে উদ্ধার করা সম্ভব হবে দুর্ঘটনাকলিত যেকোনো নৌযান।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা