kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২২ আগস্ট ২০১৯। ৭ ভাদ্র ১৪২৬। ২০ জিলহজ ১৪৪০

মান্দায় গভীর নলকূপের দখল নিয়ে সংঘর্ষ, আহত সাত

মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি   

১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৯:০৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মান্দায় গভীর নলকূপের দখল নিয়ে সংঘর্ষ, আহত সাত

নওগাঁর মান্দায় গভীর নলকূপের দখল নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় উভয়পক্ষের সাতজন আহত হয়েছেন। শনিবার ভোর ৫টার দিকে উপজেলার পরানপুর ইউনিয়নের চকমনোহরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
 
সংঘর্ষে উভয়পক্ষের আহতরা হলেন, চকমনোহরপুর গ্রামের আজাহার আলী সরকার (৫৫), আফসার আলী সরকার (৫২), আলমগীর হোসেন (৩২), সাদ্দাম হোসেন (২৫), নাসির উদ্দিন (২৩), আব্দুল মজিদ (৪৫) ও মোর্শেদা বিবি (২৬)। মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর তাদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আজাহার ও আফসার আলীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, চকমনোহরপুর মৌজায় স্থাপিত গভীর নলকূপের অপারেটর পরিবর্তন নিয়ে কৃষকদের মাঝে বিরোধ চলে আসছিল। গত মওসুমেও ওই নলকূপের অপারেটরের দায়িত্ব পালন করেন চকমনোহরপুর উত্তরপাড়া গ্রামের দেলোয়ার হোসেন। এ মওসুমেও দেলোয়ার হোসেন অপারেটর পদে বহাল রয়েছেন বলে জানিয়েছে বিএমডিএ কর্তৃপক্ষ।

দক্ষিণপাড়া গ্রামের কৃষকরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে তারা অপারেটর পরিবর্তনের দাবি জানিয়ে আসছিলেন। এ অবস্থায় শুক্রবার রাতে ওই গভীর নলকূপ চত্বরে দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদের উন্নয়নকল্পে আলোচনা সভা ও পিকনিকের আয়োজন করে গ্রামের কৃষকরা। ওই অনুষ্ঠানে পরানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান উজ্জল উপস্থিত ছিলেন। খাওয়া-দাওয়া শেষে আওয়ামী লীগ নেতা উজ্জলের উপস্থিতিতে গভীর নলকূপটিতে তালা ঝুলিয়ে দখল নেন গ্রামবাসী।
 
গ্রামবাসীর অভিযোগ, শুক্রবার ভোররাতে আমাদের লাগানো তালা ভেঙে অপারেটর দেলোয়ার হোসেন গভীর নলকূপটি চালু করেন। বাধা দেয়ায় দেলোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে আব্দুস সাত্তার, আইয়ুব আলী, মিজানুর রহমান, নাসির উদ্দিন, আব্দুল মজিদসহ ১০-১২ জন দেশিয় অস্ত্র নিয়ে গ্রামবাসীর ওপর হামলা চালায়। এসময় হামলাকারীরা আজাহার আলী, আফসার আলী, আলমগীর হোসেন ও সাদ্দাম হোসেনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে।

এদিকে গভীর নলকূপের অপারেটর দেলোয়ার হোসেন বলেন, চকমনোহরপুর মৌজায় স্থাপিত গভীর নলকূপের বৈধ অপারেটর হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে আমি দায়িত্ব পালন করে আসছি। গ্রামের আজাহার আলীর প্ররোচনায় আমাকে অপারেটরের পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার চক্রান্ত করে আসছে একটি পক্ষ। এ অবস্থায় শুক্রবার রাতে পিকনিক শেষে তারা ওই নলকূপে তালা ঝুলিয়ে দখল নেয়ার চেষ্টা করে। শনিবার সকালে বোরো ধানের চারাতে পানি দিতে গিয়ে প্রতিপক্ষের হামলার শিকার হয়েছি।

মান্দা বিএমডিএর সহকারী প্রকৌশলী মাহফুজুর রহমান জানান, চকমনোহরপুর মৌজায় স্থাপিত গভীর নলকূপের বৈধ অপারেটর দেলোয়ার হোসেন। গ্রামবাসী বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির লক্ষে নলকূপটিকে তালা ঝুলিয়ে দখল নেয়ার চেষ্টা করেছে বলে আমি শুনেছি। সেখানে  সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
 
মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনায় এজাহার পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা