kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২২ আগস্ট ২০১৯। ৭ ভাদ্র ১৪২৬। ২০ জিলহজ ১৪৪০

ঢাকা-২০ আসন

বিএনপির প্রার্থী তমিজ উদ্দিন প্রার্থিতা ফিরে পেলেন

আবু হাসান, ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০১:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিএনপির প্রার্থী তমিজ উদ্দিন প্রার্থিতা ফিরে পেলেন

ঢাকা-২০ (ধামরাই) আসনে বিএনপির প্রার্থী তমিজ উদ্দিনের প্রার্থিতা স্থগিত করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ আপিল বিভাগে চেম্বার জজ আদালত স্থগিত করে দিয়েছেন। একই সঙ্গে আবেদনটি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠানো হয়েছে। আপিল বিভাগের বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর চেম্বারজজ আদালত গতকাল বুধবার এ আদেশ দেন। তমিজ উদ্দিনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিষ্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ, রুহুল কুদ্দুস ও ব্যারিস্টার সানজিদ সিদ্দিকী। রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবি শাহ মঞ্জুরুল হক।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার তমিজ উদ্দিনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষনা করে নির্বাচন কমিশনের দেওয়া সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপ্রতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন। ওই আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক এমপি বেনজীর আহমেদ এ রিট দায়ের করেন। রাষ্ট্রপক্ষের শুনানি করেন ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল  মোতাহের হোসেন সাজু।
 
ব্যারিস্টার সানজিদ সিদ্দিকী বলেন, চেম্বার জজ আদালতে তমিজ উদ্দিনের প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন।

রিটে উল্লেখ করা হয়, ধামরাই উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ থেকে তমিজ উদ্দিনের পদত্যাগপত্র গ্রহণের আগেই তিনি মনোনয়নপত্র জমা দেন। রিটার্নিং কর্মকর্তা ২ ডিসেম্বর তা বাতিল করেন। এর বিরুদ্ধে তিনি আপিল করেন নির্বাচন কমিশনে। আপিল মঞ্জুর করে ৬ ডিসেম্বর বৈধ প্রার্থী ঘোষণা করেন ইসি।

এ বিষয়ে তমিজ উদ্দিন বলেন, ভোট চাওয়ার পরিবর্তে হয়রানিমূলক রিটে আমাকে আদালতে দৌঁড়াতে হচ্ছে আর বেনজীর আহমেদ নির্বিঘ্নে আনাচে-কানাচে ভোট প্রার্থনা করছেন।

এ আসনে বিভিন্ন দলের পাঁচজন প্রাথী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক এমপি বেনজীর আহমদ, উপজেলা বিএনপির সভাপতি উপজেলা পরিষদের সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান তমিজ উদ্দিন, জাতীয় পার্টি ঢাকা জেলার সভাপতি সাবেক এমপি খান মোহাম্মদ ইস্রাফিল খোকন, ইসলামী আন্দোলনের উপজেলার সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) আব্দুল মান্নান। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা