kalerkantho

সোমবার । ১৪ অক্টোবর ২০১৯। ২৯ আশ্বিন ১৪২৬। ১৪ সফর ১৪৪১       

পার্বতীপুরে ১৩ দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি    

১৫ অক্টোবর, ২০১৮ ১৯:৫২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পার্বতীপুরে ১৩ দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ১৩ দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে। চোরেরা ধারালো দেশীয় অস্ত্রের মুখে বাজারের ৩ নৈশ প্রহরীকে বেঁধে রেখে দোকানগুলোর তালা ভেঙে নগদ প্রায় চার লাখ টাকাসহ ১০ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

আজ সোমবার রাত ৩টার দিকে উপজেলার হাবড়া ইউনিয়নের চৌপথি বাজারে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাজারের ৩ নৈশ প্রহরীকে আটক করেছে। এ ঘটনায় পার্বতীপুর মডেল থানায় চুরির মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সরেজমিনে সকাল ৯টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে ৩ নৈশ প্রহরী আবুল কালাম, আলতাফ হোসেন ও ওবায়দুল হকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ২০/২৫ জনের সশস্ত্র একদল দুর্বৃত্ত সোমবার রাত ৩ টার দিকে একটি পিকআপ নিয়ে চৌপথি বাজারে আসে। চোরেরা কৌশলে ৩ নৈশ প্রহরীকে কাছে ডেকে নিয়ে হাত-পা ও মুখ বেঁধে ফেলে। এরপর দোকান ঘরের তালা ভেঙে লুটপাট চালায়।

এ সময় সংঘবদ্ধ চোরেরা রানা মেডিসিন (বিকাশ এজেন্ট ও বরেন্দ্র লোড ডিলার) স্টোর থেকে নগদ আড়াই লাখ টাকা ও ৫০ হাজার টাকার মালামাল, শিমু কসমেটিকস (বিকাশ এজেন্ট) থেকে নগদ ৬৩ হাজার টাকা ও ৩ লক্ষাধিক টাকার মালামাল, রতন কসমেটিকসের দোকান থেকে নগদ টাকাসহ প্রায় ১লাখ ৩০ হাজার টাকার মালামালসহ ১৩ দোকানে তালা ভেঙে নগদ প্রায় চার লাখ টাকাসহ দশ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটপাট করে। তবে চুরির ঘটনার সাথে নৈশ প্রহরীর যোগসাজস থাকতে পারে বলে বাজারের দোকানদার ও ব্যবসায়ীদের ধারনা।

হাবড়া ইউনিয়নের ১নং প্যানেল চেয়ারম্যান মকসেদ আলী জানান, ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে মোবাইলফোনে চুরির খবর পেয়ে তিনি চৌপথি বাজারে গিয়ে দেখতে পান ৩ নৈশ প্রহরী চুপচাপ বসে আছেন। তাদের হাতপা কোনো কিছুই বাঁধা নেই। বাজারে কী হয়েছে জানতে চাইলে নৈশ প্রহরীরা তাকে সংঘটিত চুরির ঘটনার বর্ণনা দেয়।

পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি মোখলেছুর রহমান জানান, খবর পেয়ে সোমবার সকাল ৯ টার দিকে ফোর্স নিয়ে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নৈশ প্রহরী আবুল কালাম, আলতাফ ও ওবায়দুল হককে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা