kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

শেরপুরে পানিতে ডুবে দুই স্কুল শিক্ষার্থীর মৃত্যু

শেরপুর প্রতিনিধি    

২৪ আগস্ট, ২০১৮ ০১:৫৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেরপুরে পানিতে ডুবে দুই স্কুল শিক্ষার্থীর মৃত্যু

শেরপুরে নকলায় ঈদ আনন্দ করার সময় ভোগাই নদীর পানিতে ডুবে ষষ্ঠ শ্রেণিপড়ুয়া দুই স্কুল শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে নকলা উপজেলার উরফা ইউনিয়নের তারাকান্দা এলাকায় ভোগাই নদীর  পিছলাকুড়ি রাবার ড্যাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো, নকলা পৌর এলাকার গড়েরগাঁও মহল্লার গেন্দা মিয়ার ছেলে উমর ফারুক (১২) এবং আক্তার মিয়ার ছেলে শান্ত মিয়া (১২)। ফারুক নকলা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী এবং শান্ত মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি বিদ্যানিকেতনের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

নকলা থানার ওসি খান আব্দুল হালিম দুই স্কুলছাত্রের নিহত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বিকেলে ভোগাই নদীর পানিতে নিখোঁজ হওয়ার প্রায় আড়াই ঘণ্টা চেষ্টার পর ভাটির দিক থেকে ওই দুই শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে নিহত শিক্ষার্থীরা তাদের বেশ কয়েকজন বন্ধু মিলে ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে নকলা পিচলাকুড়ি এলাকার ভোগাই নদীল ওপর নির্মিত তারাকান্দা রাবারড্যাম দেখতে যায়। ব্রিজের পূর্ব পাশে নদীতে ভেসে ওঠা ছোট একটি চরের মত স্থানে তারা নেমে আনন্দ করতে থাকে। এমন সময় হঠাৎ পা পিছলে উমর ফারুক, শান্ত মিয়া ও তাদের আরেক বন্ধু গভীর পানিতে পড়ে নিখোঁজ হয়। পরে সাথে থাকা বন্ধুদের ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এসে তাৎক্ষণিক এক শিক্ষার্থীকে জীবিত উদ্ধার করেন। খোঁজাখোঁজির প্রায় দুই ঘণ্টা পরে শান্ত মিয়াকে এবং প্রায় আড়াই ঘণ্টা পর উমর ফারুককে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয়রা। এ সময় নদীর দুই তীরে শত শত লোকজন জড়ো হয়।

নকলা পৌরসভার কাউন্সিলর ফিরোজ মিয়া জানান, মেধাবী দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে এলাকায় চলছে শোকের মাতম। এমন কচি তাজা দুটি প্রাণের অকাল মৃত্যুতে পরিবার-পরিজনসহ এলাকাবাসীর মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।



সাতদিনের সেরা