kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

ভোলাহাটে ১২ সীমান্ত পিলারের সংশোধন

স্বাধীনতার ৪৬ বছর পর ‘পাক’ কেটে করা হলো ‘বাংলা’

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ   

৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:৫৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



স্বাধীনতার ৪৬ বছর পর ‘পাক’ কেটে করা হলো ‘বাংলা’

স্বাধীনতার ৪৬ বছর পর চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলার বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে থাকা ১২টি সীমান্ত পিলারের নাম সংশোধন করা হয়েছে। বিজয়ের এই মাসে নতুন এক ইতিহাসের স্বাক্ষী হলেন নতুন প্রজন্মের মানুষ। বিজিবি ও বিএসএফের উপস্থিতিতে বুধবার সীমান্ত পিলারগুলোয় থাকা পাকিস্তানের নাম কেটে বাংলাদেশ করা হয়েছে। দীর্ঘদিন পর পিলারগুলোর ভুল সংশোধন হওয়ায় স্বন্তি ফিরে এসেছে সাধারণ মানুষের মাঝে।

জানা গেছে, ৭১ সালের মহান স্বাধীনতার যুদ্ধ শেষ হওয়ার পর বাংলাদেশের অন্যান্য সীমান্তের মতো চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্তের পিলারগুলোতে ‘পাকিস্তান’ কেটে বাংলাদেশ করা হয়। কিন্তু ভোলাহাট উপজেলার চামুসা, গিলাবাড়ি ও চাঁনশিকারী সীমান্তের ১২ পিলারে পাকিস্তান লেখা থেকে যায়। বিষয়টি নজরে এলে তা সংশোধনের জন্য তৎপরতা শুরু করে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি।

কিন্তু নানা জটিলতায় দীর্ঘদিনেও সংশোধনের প্রক্রিয়া শেষ করা সম্ভব হয়নি। বিষয়টি নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৫৯ বর্ডার গার্ড ব্যটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল রাশেদ আলী নতুন করে তৎপরতা শুরু করেন। এ ব্যাপারে বিএসএফের কাছে তিনি একাধিকবার চিঠি দেন।

অবশেষে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের সম্মতিতে ৬ নভেম্বর বুধবার সকাল থেকে সীমান্ত পিলারগুলোর ভুল সংশোধনের কাজ শুরু করে বিজিবি। ৫৯ বর্ডার গার্ড ব্যটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল রাশেদ আলীর নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা ভোলাহাটের চামুসা, গিলাবাড়ি ও চাঁনশিকারী সীমান্তের ১২ পিলারে ‘পাক’ শব্দের পরিবর্তে ‘বাংলা’ শব্দ প্রতিস্থাপন করেন। এ সময় ভারতের মালদা জেলার ৮২ বিএসএফ ব্যটালিয়নের পক্ষে বিরেন্দ্র শিং, জি. কেরকাটা ও অরবিন্দ কুমারসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা