kalerkantho

মঙ্গলবার। ৯ আগস্ট ২০২২ । ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১০ মহররম ১৪৪৪

'বিশেষ ট্রেন বন্ধ হলেও এখনো নিয়মিত আম ঢাকায় পাঠাচ্ছি'

অনলাইন ডেস্ক   

৩০ জুন, ২০২২ ১৫:৫৫ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



'বিশেষ ট্রেন বন্ধ হলেও এখনো নিয়মিত আম ঢাকায় পাঠাচ্ছি'

রাজশাহীর ইমরুল আসাদ তুহিন। মাস্টার্স শেষ করে চাকরির চেষ্টা শুরু করতে না করতেই করোনার থাবা। এম.ফিল-এ ভর্তি হলেন। পাশাপাশি ঘরে বসে স্বাবলম্বী হওয়ার উপায় খুঁজতে থাকা।

বিজ্ঞাপন

তখনই নজরে এলো অনলাইনে অনেকে আমের ব্যবসা করছেন। নেমে গেলেন তুহিন। ধীরে ধীরে পরিচিত লোকজন ছাড়িয়ে বাইরের অনেকের কাছে পৌঁছে গেলেন তিনি।

তুহিন জানান, এরই মধ্যে একটা চাকরিও তিনি পেয়ে যান। গবেষণা, চাকরি, সঙ্গে এই ব্যবসা- কাজটি সহজ ছিল না। কিন্তু গ্রামীণফোনের ইন্টারনেট সেবার কল্যাণে একসঙ্গে সবই তিনি সামলাতে পারছেন। এখন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছুটে চলে তুহিনের 'আমের গাড়ি'।  

তুহিনের মতো অনেকেই অনলাইনভিত্তিক আম ব্যবসায় সাফল্য পাচ্ছেন। প্রথম ক্রেতাদের সঙ্গে ভার্চুয়ালি যোগাযোগের মাধ্যমে দাম ও নাম-ঠিকানা বিনিময় হয়ে যায়। ক্রেতা যখন নিশ্চিত করেন যে তিনি কিনছেন এবং কিছু দাম বা পুরোটা অগ্রিম শোধ করে দেন- পণ্য পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যায়। চলতি আম মৌসুমে অনেক উদ্যোক্তা এভাবেই বাড়তি আয় করছেন। এমনই একজন তরুণ ব্যবসায়ী চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার নুরুন নবী।   

বিশেষায়িত ট্রেনে আম পরিবহনে এবার তেমন সাড়া না মেলায় গত ২৪ জুন বন্ধ হয়ে যায় বহুল আলোচিত ম্যাংগো ট্রেন। এর ফলে এক রকম বিপাকে পড়ে যান স্থানীয় সেসব ব্যবসায়ী- যারা নিজের বাগানের আম নিয়মিত ঢাকায় পাঠাতেন। তাদেরই একজন নুরুন নবী। অবশ্য তিনি তাৎক্ষণিক বিকল্প উপায়ও খুঁজে নিয়েছেন। আর তা হচ্ছে মোবাইল প্রযুক্তি ব্যবহার। এ জন্য গ্রামীণফোনকে ধন্যবাদ জানাতে চান নুরুন নবী।  

তিনি বলেন, বিশেষ ট্রেন বন্ধ হলেও এখনো নিয়মিত আম্রপালি আম ঢাকায় পাঠাচ্ছি। সরাসরি ক্রেতার সঙ্গে যোগাযোগের পর তাদের হাতেই আম পৌঁছে দিই। এটা সম্ভব হয়েছে মোবাইল ফোনের জন্য।

তরুণ এ উদ্যোক্তা বলেন, শুধু মোবাইল ফোনে যোগাযোগের মাধ্যমে এ বছর প্রায় ছয় লাখ টাকার আম রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় তিনি পাঠিয়েছেন।

প্রযুক্তিসেবা ভালোই পাচ্ছেন জানিয়ে তিনি বলেন, গ্রামেও এত ভালো নেটওয়ার্ক থাকে। ফোন-কলে এবং জিপি ইন্টারনেটে সব সময় যুক্ত থাকা যায়। ফলে ক্রেতারা যেমন ভালোমানের স্বাস্থ্যকর আম পাচ্ছেন। আমরাও ভালো দাম পাচ্ছি। একটা সময় এই সুবিধার কথা স্বপ্নের মতো ছিল।

নুরুন নবী জানান, ক্রেতারা আমের দামও পাঠিয়েছেন অনলাইনের মাধ্যমেই। অর্ডার গ্রহণ থেকে দাম আদায়, সব কিছুতেই মোবাইল ফোনের ব্যবহার- এই পুরো প্রক্রিয়াটিকে নিরাপদই বলছেন তিনি।



সাতদিনের সেরা