kalerkantho

বুধবার । ১২ মাঘ ১৪২৮। ২৬ জানুয়ারি ২০২২। ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আইইউবিতে গবেষণা দক্ষতা বৃদ্ধির ওপর দুই দিনের কর্মশালা

অনলাইন ডেস্ক   

২ ডিসেম্বর, ২০২১ ১৬:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আইইউবিতে গবেষণা দক্ষতা বৃদ্ধির ওপর দুই দিনের কর্মশালা

বিশ্ববিদ্যালয় এবং শিল্প ও গবেষণা সংস্থাগুলোর মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ (আইইউবি)-এর স্কুল অব এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড লাইফ সায়েন্সেস, গবেষণা দক্ষতা তৈরির ওপর 'রিসার্স ক্যাপাসিটি বিল্ডিং' শীর্ষক দুই দিনব্যপী (১-২ ডিসেম্বর) কর্মশালার আয়োজন করে। এই কর্মশালা আয়জনে পৃষ্ঠপোষকতা করে শীর্ষস্থানীয় ওষুধ কম্পানি রেডিয়েন্ট ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেড।

শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজিত এই কর্মশালায় গবেষণাপ্রক্রিয়া, গবেষণানীতি এবং গবেষণানিরাপত্তা নিয়ে বিশদ আলোচনায় অংশ নেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, আইইউবি, আইসিডিডিআর.বি এবং সেন্টার ফর বায়োইনফরমেটিক্স লার্নিং ও সিস্টেমেটিক্স ট্রেনিং (cBLAST) এর বিশেষজ্ঞবৃন্দ।

শিক্ষার্থীরা গবেষণা প্রস্তাবনাপত্র লেখা, মলিকুলার বায়োলজি এবং বায়োইনফরমেটিক্সের বিভিন্ন কৌশল নিয়ে হাতেকলমে প্রশিক্ষণ লাভ করে।

বিজ্ঞাপন

স্কুল অব এনভায়রনমেন্ট ও লাইফ সায়েন্সেস এর ডিন প্রফেসর শাহ এম ফারুক, তাঁর বক্তব্যে এই কর্মশালার উদ্দেশ্য এবং ব্যপ্তি সম্পর্কে আলোচনা করেন।

কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আইইউবির ট্রাস্টি বোর্ড এর চেয়ারম্যান এ মতিন চৌধুরী বলেন, একাডেমিক পর্যায়ে গবেষণা দক্ষতার বিকাশ আমাদের তরুণ প্রজন্মের আগামী দিনগুলোতে নেতৃত্ব দেওয়ার পথ সুগম করবে। এই দক্ষ তরুণ জনগোষ্ঠীই একসময় এগিয়ে নিয়ে যাবে গোটা জাতিকে।

আইইউবি ট্রাস্টি বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান জনাব রাশেদ চৌধুরী বলেন, এই ধরনের কর্মশালা আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের দক্ষ গবেষক হয়ে উঠতে সাহায্য করবে।

আইইউবির উপাচার্য তানভীর হাসান বলেন, গুণগত গবেষণার জন্যে আগামী দিনগুলোতেও বিভিন্ন শিল্প-সংস্থাগুলোর সাথে একাত্ম হয়ে কাজ করবে আইইউবি। রেডিয়েন্ট ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডকে তাদের সহযোগিতর জন্য ধন্যবাদ জানান উপাচার্য।

রেডিয়েন্ট ফার্মাসিউটিক্যালসের চেয়ারম্যান শাহরিয়ার জাহেদি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে গবেষণার পরিমাণ বৃদ্ধিতে উৎসাহ প্রদানের মাধ্যমে শিল্প সংস্থাগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।

দুই দিনব্যাপী এই কর্মশালায় আমন্ত্রিত অতিথি, শিক্ষকবৃন্দ এবং শিক্ষার্থীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করে।  



সাতদিনের সেরা