kalerkantho

শনিবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৭ নভেম্বর ২০২১। ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

১২ মাসের ইএমআইয়ে দারাজে রিয়েলমি জিটি মাস্টার এডিশন

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ অক্টোবর, ২০২১ ১৬:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১২ মাসের ইএমআইয়ে দারাজে রিয়েলমি জিটি মাস্টার এডিশন

তরুণদের পছন্দের ব্র্যান্ড রিয়েলমি সম্প্রতি বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে এসেছে তাদের ফ্ল্যাগশিপ কিলার 'রিয়েলমি জিটি মাস্টার এডিশন'। রিয়েলমি ফ্যানরা দারাজ থেকে নির্দিষ্ট ব্যাংকের কার্ডের ওপর ১২ মাসের ইএমআই সুবিধায় রিয়েলমি জিটি মাস্টার এডিশন কিনতে পারবেন।

মাত্র ৩৩,৯৯০ টাকা বাজারদরে রিয়েলমি জিটি মাস্টার এডিশন ভয়েজার গ্রে ও ডে-ব্রেক ব্লু দুটি ভিন্ন রঙে পাওয়া যাচ্ছে। কেনার জন্য ক্লিক https://click.daraz.com.bd/e/_6ymYL

রিয়েলমি জিটি মাস্টার এডিশন দেশের সর্বপ্রথম স্ন্যাপড্রাগন ৭৭৮জি ফাইভজি ফ্ল্যাগশিপ প্রসেসর সমৃদ্ধ স্মার্টফোন। এতে রয়েছে ইন্ডাস্ট্রির মধ্যে সর্বপ্রথম থ্রি-ডি লেদার ব্যাক, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে, ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। ডিভাইসটি ডিজাইন করেছেন বিখ্যাত জাপানি ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডিজাইনার নাওতো ফুকাসাওয়া। ফোনটির পেছনে স্যুটকেসের আদলে চমৎকার একটি ডিজাইন ফুটিয়ে তোলা হয়েছে, যা তরুণদের ভ্রমণের দারুণ অভিজ্ঞতার কথা মনে করিয়ে দেবে। সুপার অ্যামোলেড ফুলস্ক্রিনের সাথে রিয়েলমি জিটি মাস্টার এডিশন ব্যবহারকারীদের স্মুথ ও দ্রুতগতির পারফরমেন্স প্রদান করবে। এতে রয়েছে বিশ্বের সর্বপ্রথম ৬৪ মেগাপিক্সেলের স্ট্রিট ফটোগ্রাফি ক্যামেরা। এর ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা দিয়ে ব্যবহারকারীরা প্রফেশনাল ধাচের স্ট্রিট ফটোগ্রাফির পাশাপাশি ঝকঝকে ও স্পষ্ট ছবি তুলতে পারবেন।

রিয়েলমি আগামী ৩ বছরের মধ্যে তরুণ ব্যবহারকারীদের কাছে ১০ কোটি ৫জি ফোন সরবরাহের লক্ষ্যে, ৫জি পণ্যের এক বিস্তৃত পোর্টফলিও তৈরিতে কাজ করছে। এ স্মার্টফোন ব্র্যান্ডটি তাদের উন্নত '১+৫+টি' কৌশলের সাথে এআইওটি ২.০ বিকাশের পর্যায়ে প্রবেশ করেছে। এর ফলে সাশ্রযী মূল্যের ৫জি ফোন ছাড়াও রিয়েলমি তরুণ প্রজন্মের ক্রেতাদের জন্য আরো অনেক এআইওটি পণ্য বাজারে নিয়ে আসবে। ক্যানালিসের তথ্য মতে, ২০২১ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকে বাংলাদেশের শীর্ষ স্মার্টফোন নির্মাতা ব্র্যান্ড হয়েছে রিয়েলমি। এ ছাড়া, কাউন্টারপয়েন্ট রিসার্চ অনুসারে, বিশ্বব্যাপী শীর্ষ ৬ স্মার্টফোন বিক্রেতার তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে রিয়েলমি।



সাতদিনের সেরা