kalerkantho

সোমবার । ৯ কার্তিক ১৪২৮। ২৫ অক্টোবর ২০২১। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র ও গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা

অনলাইন ডেস্ক   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৫:৫৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র ও গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র ও গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে একটি বিশেষ আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়েছে। এই প্রতিযোগিতার টেকনিক্যাল পার্টনার হিসেবে থাকছে বাংলাদেশ ফটোগ্রাফিক সোসাইটি (বিপিএস)।  

আজ বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) এক বিবৃতিতে জানানো হয় যে, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে আলোকচিত্রের মাধ্যমে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সাথে জড়িত ঐতিহাসিক স্থান এবং একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচিহ্নগুলো অন্বেষণই হবে এই প্রতিযোগিতার মূল লক্ষ্য। জাতীয় স্মৃতিসৌধ (সাভার), মুজিবনগর কমপ্লেক্স জাদুঘর (মেহেরপুর), বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ (রায়ের বাজার), বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ (মিরপুর), জাতীয় সংসদ ভবন (ঢাকা), কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার (ঢাকা), অপরাজেয় বাংলা, বিভিন্ন জেলায় মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের স্মরণে নির্মিত স্মৃতিসৌধ ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক অন্য যে কোন স্মৃতিসৌধ হচ্ছে এবারের আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার বিষয়বস্তু। ১৮ বছর বয়সী এবং তদুর্ধ্ব যে কোন বাংলাদেশী নাগরিক আগামী ৩১শে অক্টোবর, ২০২১ (বর্ধিত সময়) পর্যন্ত নির্দিষ্ট ৯টি ক্যাটাগরিতে সর্বোচ্চ ২৭টি ছবি জমা দিতে পারবেন।

এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে কোনো ফি প্রয়োজন নেই। ডিসেম্বর মাসে প্রতিযোগিদের মধ্যে থেকে ৯ জন বিজয়ী ও ৯ জন অনারেবল মেনশনকে সর্বমোট ১ লক্ষ ৮ হাজার টাকা সমমূল্যের প্রাইজবন্ড এবং সার্টিফিকেট, ক্রেস্ট, মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কিত ও ফটোগ্রাফি বিষয়ক বই উপহার দেওয়া হবে। এছাড়া প্রতিযোগিতার বিজয়ী আলোকচিত্রগুলো নিয়ে করা হবে একাধিক প্রদর্শনী। ৯টি বিজয়ী এবং প্রদর্শনীর নির্বাচিত আলোকচিত্রগুলো বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ সম্পর্কিত প্রকাশিতব্য একটি বইয়ে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

প্রাথমিকভাবে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের শেষ সময় ২১শে জুলাই রাত ১১ টা ৫৯ মিনিট নির্ধারণ করা হয়েছিল। পরবর্তীতে অংশগ্রহণকারীদের অনুরোধে ও কোভিড-১৯ জনিত কারণে লকডাউন বিবেচনায় নিয়ে ছবি জমাদানের শেষ সময় ৩১শে অক্টোবর ২০২১, ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়েছে। ছবি যাচাই ও বিচার প্রক্রিয়া শেষে নভেম্বরের ৩০ তারিখে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে।

আশা করা যাচ্ছে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এই আয়োজনের পুরস্কার বিতরণী ও প্রথম প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের অফিশিয়াল ফেইসবুক পেজ ভিজিট করার জন্য অনুরোধ করা হল।

 বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র ও গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে একটি বিশেষ আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়েছে। এই প্রতিযোগিতার টেকনিক্যাল পার্টনার হিসেবে থাকছে বাংলাদেশ ফটোগ্রাফিক সোসাইটি (বিপিএস)।

গত ১লা মার্চ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র, সাভারের "বঙ্গবন্ধু চত্বরে" গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রধান নিবার্হী কর্মকর্তা ডা. মনজুর কাদির আহমেদ আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার লোগো ও পোস্টারের মোড়ক উন্মোচনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (চলতি দায়িত্ব) অধ্যাপক ডা. লায়লা পারভীন বানু, রেজিস্ট্রার ড. এস তাসাদ্দেক আহমেদ, গণস্বাস্থ্য সমাজ ভিত্তিক মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ,গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, প্রতিযোগিতার প্রধান বিচারক বাংলাদেশের প্রথম ফিয়াপ স্বর্ণপদক বিজয়ী ফটোগ্রাফার হাসান সাইফুদ্দিন চন্দন, বাংলাদেশ ফটোগ্রাফিক সোসাইটির স্থায়ী পরিষদের সদস্য দেবব্রত চৌধুরী, যুগ্ম-সম্পাদক খন্দকার মফিজুল ইসলাম, প্রদর্শনী সচিব ও ‘ফটোগ্রাফি’ পত্রিকার সম্পাদক কে এম জাহাঙ্গীর আলম এবং গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র, গণ বিশ্ববিদ্যালয় ও গণস্বাস্থ্য সমাজ ভিত্তিক মেডিকেল কলেজের শিক্ষক, চিকিৎসক, পরিচালক, উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, ছাত্র ও কর্মীবৃন্দ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।



সাতদিনের সেরা