kalerkantho

রবিবার । ১ কার্তিক ১৪২৮। ১৭ অক্টোবর ২০২১। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

হ্যাপি হোম কার্যক্রমে অ্যাকশনএইডের সঙ্গে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৩:২৭ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



হ্যাপি হোম কার্যক্রমে অ্যাকশনএইডের সঙ্গে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক

‘হ্যাপি হোম’ কর্মসূচির আওতায় কেন্দ্রে বসবাসকারী নারী শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার খরচ চালাতে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক সই করেছে অ্যাকশনএইড বাংলাদেশ। গতকাল বৃহস্পতিবার সংস্থাটির কার্যালয়ে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের করপোরেট সোশ্যাল রেসপনসিবিলিটি (সিএসআর) কর্মসূচির আওতায় এই সমঝোতা স্মারক সই করা হয়।

সমঝোতা স্মারক সই অনুষ্ঠানে অ্যাকশনএইড বাংলাদেশের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন- সংস্থাটির কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ্ কবির, হেড অব ফান্ড রেইজিং মারুফ শিহাবসহ অন্যরা। মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের পক্ষে হেড অব কমিউনিকেশন ডিপার্টমেন্ট (এমসিডি) ও সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট (এসভিপি) আজম খান এবং অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে।  

ঢাকার পথশিশুদের জন্য অ্যাকশনএইড বাংলাদেশ ২০০৬ সালে ‘হ্যাপি হোমস’ কর্মসূচি চালু করে। শুরুতে এই কর্মসূচির আওতায় ঢাকার পাঁচ স্থানে পৃথক আবাসনে ৭-১৮ বছর বয়সী ১৫০ জন ছিন্নমূল কন্যাশিশুকে আশ্রয় এবং শিক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে ‘হ্যাপি হোম’ এ পর্যন্ত ১৭ হাজার কন্যাশিশুকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছে। নারীশিক্ষায় একসঙ্গে কাজ করবে অ্যাকশনএইড ও মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড।



সাতদিনের সেরা