kalerkantho

বুধবার । ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৮ জুলাই ২০২১। ১৭ জিলহজ ১৪৪২

ইনফিনিক্স হট ১০ এস : বাজেটের মধ্যে সেরা গেমিং ফোন?

অনলাইন ডেস্ক   

১৭ জুলাই, ২০২১ ১৫:৪২ | পড়া যাবে ৬ মিনিটে



ইনফিনিক্স হট ১০ এস : বাজেটের মধ্যে সেরা গেমিং ফোন?

বৈশ্বিক স্মার্টফোনের বাজারে নিজেদের উপস্থিতি বাড়াতে মিডরেঞ্জ এবং কম বাজেটের বেশ কিছু স্মার্টফোন নিয়ে ২০২১ সালের ক্যাম্পেইন শুরু করেছিল ইনফিনিক্স। স্মার্টফোন গেমিংয়ের বাজারকে টার্গেট করে গেমিং এবং বিনোদনবান্ধব দুর্দান্ত এক স্মার্টফোন হিসেবে নতুন হট ১০ এস নিয়ে এসেছে প্রতিষ্ঠানটি। গত বছর থেকে আফ্রিকা এবং এশিয়ার নির্ধারিত কয়েকটি বাজারকে লক্ষ্য করে হট ১০ পোর্টফোলিওতে নতুন নতুন ডিভাইস সংযোজন করে আসছে ইনফিনিক্স। তাদের সে প্রচেষ্টার আরেক অনন্য সংযোজন হিসেবে আকর্ষণীয় ফিচারসহ বাজারে আনা হয়েছে ইনফিনিক্স হট ১০ এস।

একগুচ্ছ নতুন ফিচারযুক্ত ইনফিনিক্স হট ১০ এস শক্তি, নতুনত্ব এবং শৈলীর ক্ষেত্রে নতুন মান নির্ধারণ করবে, যা অন্য স্মার্টফোনগুলো থেকে একে আলাদা করে তুলবে। ফোনটিকে এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে, যার ফলে সাশ্রয়ী দামের মধ্যে নতুন কোনো ডিভাইস বাজারে নিয়ে আসার আগে অন্যান্য প্রতিযোগিতা ব্র্যান্ডগুলোকে বারবার ভাবতে হবে। ইনফিনিক্সের নতুন এ ফোন সম্পর্কে আরো জানতে আপনি এই নিবন্ধটিতে চোখ বুলিয়ে নিন।

এমটিকে হেলিও জি৮৫-এর হাই-পাফরম্যান্স ও পাওয়ারফুল এক্সপিরিয়েন্স

সফটওয়্যারের বিষয়ে বলতে গেলে এতে যুক্ত মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৫ চিপসেট ব্যাটারির আয়ু সর্বাধিক বাড়িয়ে গেমিং ক্ষেত্রে অধিকতর দারুণ অভিজ্ঞতা দেবে। ডায়নামিক রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট প্রযুক্তি ব্যবহার করায় মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৫ চিপসেটে ফাস্টার রেসপন্স এবং ফ্রেম রেট সুবিধা পাওয়া যাবে। এর সামঞ্জস্যপূর্ণ ও নির্ভরযোগ্য কানেক্টিভিটি ডিভাসটির ল্যাগ টাইম উল্লেখযোগ্য হারে কমিয়ে আনবে। মিডিয়ারটেকের হাইপারইঞ্জিন প্রযুক্তি সংযুক্ত থাকায় গেমাররা হেভি-লোডিং গেম খেলার ক্ষেত্রে দীর্ঘ সময় ধরে স্মুথ পারফরম্যান্স পাবেন পাশাপাশি রয়েছে সিপিইউর ইন্টেলিজেন্ট ডায়নামিক ম্যানেজমেন্ট সুবিধা। সাধারণত এই বাজেটের মধ্যে প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য স্মার্টফোনগুলোতে ব্যবহৃত প্রসেসরের পারফরম্যান্স হেলিও জি৮৫ তুলনামূলক অনেক কম। সাশ্রয়ী বাজেটের স্মার্টফোন হলেও হেলিও জি৮৫ চিপসেট ব্যবহার করায় অন্যদের থেকে অনেক এগিয়ে থাকবে ইনফিনিক্স হট ১০ এস ফোনটি।

প্রথমবারের মতো হট সিরিজের ফোনে ৯০হার্টজ+১৮০হার্টজের ডিসপ্লে

নতুন এ ফোনটিতে ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট ও ৬.৮২ ইঞ্চির এইচডি+ ডিসপ্লে ছাড়াও এতে সর্বশেষ সিজিআই ভিজ্যুয়াল ইফেক্ট রয়েছে। যা ভিডিও দেখার ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীরা উন্নত অভিজ্ঞতা পাবেন। এর ১৮০ হার্টজের টাচ স্যাম্পলিং রেট সুবিধা টাচের ক্ষেত্রে অসাধারণ অভিজ্ঞতা দিবে এবং ডিভাইসটিকে আনলক করতে এর আত্মস্বীকৃত ফেশিয়াল রিকগনিশন ফোনটিকে দ্রুততর, নিরাপদ এবং আরও বেশি জুতসই সুবিধা দিবে। এতে থাকা ৯০হার্টজ আল্ট্রা স্মুথ ডিসপ্লে আপনাকে স্ক্রিন সোয়াইপ বা হাই-স্পিড মুভিং ফুটেজ চালানোর ক্ষেত্রে আলটিমেট স্মুথ ম্যানুয়েভারিং ও ভিজ্যুয়াল অভিজ্ঞতা সরবরাহ করবে।

টপ নাইটস্কেপ ৪৮ এমপি ট্রিপল ক্যামেরা অন্ধকারেও প্রতিটি বিষয় ফুটিয়ে তুলবে

প্রথমবারের মতো ইনফিনিক্স হট সিরিজের নতুন ফোন হট ১০ এস এ একটি ৪৮ মেগাপিক্সেলের এইচডি রিয়ার ক্যামেরা, একটি ২ এমপি ডেপথ ক্যামেরা এবং রিয়ার ফ্ল্যাশসহ এআই লেন্স ব্যবহার করা হয়েছে। একবারে নতুন ফিচার হিসেবে এতে যুক্ত হওয়া সুপার নাইটস্কেপ ফিচারের আর্শীবাদে অন্ধকারে বা স্বল্প-আলোতে ব্যবহারকারীরা চিত্তাকর্ষক ছবি তুলতে পারবেন। পাশাপাশি এর ২কে রেজ্যুলেশনের ভিডিও রেকর্ডিং সুবিধা দিয়ে আপনি সত্যিকারের চলমান ফুটেজ ধারণ করতে পারবেন। হট ১০ এস ফোনটির নাইটস্কেপ

৪৮-মেগাপিক্সেল রিয়ার এইচডি ক্যামেরা ফিচার দিয়ে ব্যবহারকারীরা দিন ও রাতে নিখুঁত ছবি এবং ভিডিও ধারণ করতে পারবেন। এতে থাকা ২৪০ এফপিএস স্লো-মোশন শুটিং সুবিধা ব্যবহারকারীদের চমৎকার অ্যাকশন শট ক্যাপচারে সহায়তা করবে। হাই-রেজ্যুলেশনের সেলফি ক্যাপচারের জন্য এর এআই পোর্ট্রেইট ফ্রন্ট ক্যামেরার ক্ষমতা বাড়িয়ে ৮-মেগাপিক্সেল করা হয়েছে। হট সিরিজের মধ্যে প্রথমবারের মতো এর ক্যামেরাতে আই-ট্র্যাকিং অটোফোকাস, অটো-ব্লার ভিডিও এবং ফেস বিউটিফিকেশন সুবিধাও রয়েছে।

৬০০০ এমএএইচ বিশাল ব্যাটারির সঙ্গে নিরাপদ চার্জিং সুবিধা

নির্ধারিত সাশ্রয়ী বাজেটের ফোনগুলোর জন্য আদর্শ হিসেবে বিবেচিত দীর্ঘস্থায়ী ৬০০০ এমএএইচ (মিলি অ্যাম্পিয়ার আওয়ার) ক্ষমতার শক্তিশালী ব্যাটারি সংযুক্ত রয়েছে হট ১০ এস ফোনটিতে। সারা দিন গেম খেলা ও ফোন ব্যবহারে আপনার প্রত্যাশা পূরণ করবে, এতে থাকা বিশাল ব্যাটারিটি। ইনফিনিক্স ডাটা ল্যাবের পরীক্ষায় দেখা গেছে, একবার পুরো চার্জ করে নিলে হট ১০ এস স্ট্যান্ডবাই অবস্থায় ৬২ দিন, মিউজিক প্লেব্যাকে ১৮২ ঘণ্টা, নিরবিচ্ছিন্ন গেমিংয়ে ১৭.৩ ঘণ্টা বা টানা ৭৬ ঘণ্টা ফোন কল করা যাবে। বিল্ট-ইন হিসেবে থাকা সেফ-চার্জিং প্রযুক্তি ফোনটিকে ওভারহিটিং ও এনার্জি লস হওয়া থেকে রক্ষা করবে। চার্জিংয়ের সময় ফোনটি একবার পুরোপুরি চার্জ হয়ে গেলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে চার্জ নেওয়া বন্ধ হয়ে যাবে। ব্যবহারের সময় ব্যাটারির চার্জ কমে গেলে পাওয়ার ম্যারাথন প্রযুক্তি ব্যবহার করে অতিরিক্ত আর ২৫ ভাগ সময় ধরে ব্যাটারির পাওয়ার ব্যবহার করা যাবে। যা ব্যবহারকারীদের অতিরিক্ত সাড়ে ৩ ঘণ্টা ফোনকল করার সুবিধা দিবে।

আর যেসব ফিচার আছে

এবার জেনে নেওয়া যাক ফোনটির নেটওয়ার্ক পারফরম্যান্স সম্পর্কে। ফোনটির ভিওএলটিই/ভিআইএলটিই সেবার সাথে থাকা ডুয়েল ৪জি সিম সুবিধার কারণে এটি দিয়ে বিশেষ মানের ভয়েস এবং ভিডিও কল করা যাবে। ইনফিনিক্স হট সিরিজের আগের ডিভাইসগুলোর তুলনায় হট ১০ এস ফোনটিতে নতুন এবং স্মার্ট ইন্টারফেস হিসেবে অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর সাথে এক্সওএস ৭.৬ সিস্টেম সুবিধা রয়েছে। ফোনের ৪ গিগাবাইট (জিবি) র‌্যামের সাথে ১২৮ জিবি স্টোরেজের একটি ডেডিকেটেড মাইক্রোএসডি স্লট রয়েছে, যা ৫১২ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। সহজে ব্যবহারের জন্য ফোনটির ডানপাশে পাওয়ার বাটন এবং ভলিউম রকার রাখা হয়েছে এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারটি রাখা হয়েছে পিছনে। এতে আপনি ডুয়েল ৪জি সিম কার্ড স্লটও পাবেন। এইসব বিশেষ ফিচার ছাড়াও হট ১০ এস ফোনটিতে ডার-লিংক আলটিমেট গেম বুস্টার, ফেশিয়াল ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট আনলক এবং ডিটিএস অডিও প্রসেসিং প্রযুক্তি রয়েছে। যা ব্যবহারকারীদের গেমিং, মিউজিক এবং মুভি দেখার ক্ষেত্রে সাউন্ড এফেক্টগুলো কাস্টমাইজ করে আরও ভাল মানের সাউন্ড শোনার অভিজ্ঞতা দিবে। ইনফিনিক্স হট ১০ এস ফোনটি চারটি আকর্ষণীয়- ৯৫ শতাংশ ব্ল্যাক, মোরান্ডি গ্রিন, হার্ট অব ওশেন এবং ৭ শতাংশ পার্পল- রঙে পাওয়া যাচ্ছে।

গেমিংয়ের জন্য সেরা স্মার্টফোন?

এতো সব দুর্দান্ত ফিচার এবং পাওয়ার বুস্টার পারফরম্যান্সসহ ইনফিনিক্স হট ১০ এস কে আমরা কী এটিকে অসাধারণ গেমিং স্মার্টফোন বলতে পারি না? ফোনটির ফিচারগুলোর বিস্তারিত বর্ণনা শেষে আমরা এ কথা নির্দিধায় বলতে পারি সাশ্রয়ী দামের মধ্যে গেমিং প্রিয় স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য সেরা গেমিং ফোন হলো ইনফিনিক্স হট ১০ এস।

বিশ্বব্যাপী মোবাইলের ডিজাইন, তৈরি এবং বাজারজাতকরণে দ্রুত বর্ধনশীল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ইনফিনিক্স মোবাইল ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয়।
ইনফিনিক্স সম্পর্কে আরও জানতে ভিজিট করুন : http://www.infinixmobility.com/bd/

নিজেদের ব্র্যান্ডের ডিভাইসগুলো ব্যবহারকারীদের কাছে পৌঁছে দিতে বড়সড় পোর্টফোলিও নিয়ে কাজ করছে ইনফিনিক্স। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।



সাতদিনের সেরা