kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১।৮ সফর ১৪৪৩

বিডিআরসিএসের সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে নবগঠিত পরিচালনা পর্ষদকে অবহিতকরণ

সীমান্তবর্তী ১০ জেলায় রেড ক্রিসেন্টের অ্যাম্বুল্যান্স ও অক্সিমিটার

অনলাইন ডেস্ক   

২৭ জুন, ২০২১ ১৮:১১ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সীমান্তবর্তী ১০ জেলায় রেড ক্রিসেন্টের অ্যাম্বুল্যান্স ও অক্সিমিটার

করোনাভাইরাস বেড়ে যাওয়ায় দেশের সীমান্তবর্তী ঝুঁকিপূণ ১০ জেলার জন্য ১০টি অ্যাম্বুল্যান্স ও প্রয়োজনীয় অক্সিমিটার হস্তান্তর করেছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি।

আজ রবিবার বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল এ টি এম আবদুল ওয়াহ্হাব ও নবগঠিত কার্যকর বোর্ড সদস্যদের আনুষ্ঠানিকভাবে সোসাইটির সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে এক অনুষ্ঠানে অবহিত করা হয়। এতে এসব তথ্য উঠে আসে।

অনুষ্ঠানে রেডক্রস রেড ক্রিসেন্ট মুভমেন্ট, সোসাইটির বিভিন্ন বিভাগ, প্রজেক্ট ও প্রগ্রাম সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট পরিচালকরা নবগঠিত কার্যকর বোর্ডকে অবহিত করেন। বর্তমান করোনা মহামারির ফলে সোসাইটির ২০২১-২০২৫ কৌশলগত পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নানামুখী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সোসাইটির গৃহীত কৌশল বর্ণনা করা হয়।

অনুষ্ঠানে আরো  উপস্থিত ছিলেন সোসাইটির ভাইস-চেয়ারম্যান নূর উর রহমান, মহাসচিব মোঃ ফিরোজ সালাহউদ্দিন, পরিচালক (ডিজাস্টার রেস্পন্স) ইমাম জাফর সিকদার, পরিচালক (ডিজাস্টার রিস্ক রিডাকশন) ইকরাম এলাহি চৌধুরী, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রেড ক্রস অ্যান্ড রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিসের হেড অব ডেলিগেশন সঞ্জীব কুমার কাফলী। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি একটি টেকসই মানবসেবী প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হবার পথে নিয়মিতভাবে চার ও পাঁচ বছর মেয়াদি কৌশলগত পরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করে আসছে।

সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী জেলাসমূহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের পরিবহন সংকট আগের তুলনায় অনেকাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। করোনাভাইরাসের এই প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় অস্ট্রেলিয়ান রেড ক্রস ও আইএফআরসি এর সহায়তায় করোনা প্রতিরোধ কার্যক্রম এর অংশ হিসেবে সীমান্তবর্তী ঝুঁকিপূর্ণ ১০ জেলার জন্য ১০টি এ্যাম্বুলেন্স ও প্রয়োজনীয় অক্সিমিটার হস্তান্তর করা হয়। জেলাসমূহ হলো-রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, মাগুরা, সাতক্ষীরা, যশোর, নওগাঁ, নোয়াখালী, খুলনা জেলা ও সিটি, রাজবাড়ি ও গোপালগঞ্জ। ইতোমধ্যে সবগুলো জেলায় এ্যাম্বুলেন্স সেবা প্রদান শুরু হয়েছে। কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত রোগীদের বিনামূল্যে ২৪ ঘন্টা পরিবহণ সেবা প্রদানের পাশাপাশি  আক্রান্ত জেলাগুলোতে রান্না করা খাবার ও নগদ অর্থ সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত আছে। এছাড়া রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সকল জেলাসমূহে জরুরি অক্সিজেন সরবরাহ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

এ্যাম্বুলেন্স সেবার পাশাপাশি বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি কোভিড-১৯ সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাওয়া ৮টি জেলায় মোট তিন হাজার অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের মধ্যে আড়াই হাজার টাকা করে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান কার্যক্রম শুরু হবে। তন্মধ্যে মাগুরা, রাজশাহী জেলা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও যশোর জেলায় ৫০০ পরিবার, নোয়াখালী ও চুয়াডাঙ্গায় ৩০০ পরিবার এবং নড়াইল ও নওগা জেলায় ২০০ পরিবার রয়েছে।

এছাড়াও বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ১৩টি জেলার অসহায় ও দরিদ্র মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ কার্যক্রম পুরোদমে চলছে। ১৩টি জেলার মধ্যে রয়েছে মাগুরা, সাতক্ষীরা, যশোর, নড়াইল, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নাটোর, রাজবাড়ি, গোপালগঞ্জ, ঝিনাইদহ, রাজশাহী সিটি, বাগেরহাট ও নওগাঁ। প্রতিটি জেলায় প্রাথমিকভাবে ৩০০ জন অসহায় ও দরিদ্র মানুষের মাঝে এই রান্না করা খাবার বিতরণ করা হচ্ছে। রেড ক্রিসেন্ট এর তথ্যমতে এই বিতরণ কার্যক্রম মাসব্যাপী চলবে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।



সাতদিনের সেরা