kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

যুবদের উন্নয়নে ‘জাতীয় যুব বাজেট অধিবেশন’ অনুষ্ঠিত

অনলাইন ডেস্ক   

১৯ জুন, ২০২১ ১৯:৫৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুবদের উন্নয়নে ‘জাতীয় যুব বাজেট অধিবেশন’ অনুষ্ঠিত

যুবকদের ভাবনা, মতামত ও প্রত্যাশা নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো জাতীয় যুব বাজেট অধিবেশন-২০২১। শনিবার ধুব্রতারা ইয়ুথ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন ও অ্যাকশন এইড বাংলাদেশ এ ছায়া সংসদ বাজেট অধিবেশনের আয়োজন করে। জাতীয় যুব বাজেট অধিবেশনে ছায়া যুব সংসদ সদস্য হিসেবে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তিনশ বেশি তরুণ-তরুণী ওয়েবিনারের মাধ্যমে অংশগ্রহণ করে।

দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানের শুরুতে ছায়া সংসদের বাজেট আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ডক্টর আতিউর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্য সচিব আবুল কালাম আজাদ ও জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফখরুল ইমামসহ অনেকে। অন-লাইন আলোচনায় আরো ছিলেন- বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ক্যাম্পই জাতীয় সমন্বয়ক কে এম এনামুন হক। আলোচনায় অংশ নেন ধ্রুবতারার চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহ আজম। ছায়া সংসদে স্পিকারের দায়িত্বে ছিলেন ধ্রুবতারা নির্বাহী পরিচালক অমিয় প্রাপণ চক্রবর্তী অর্ক। এ ছাড়াও সারা দেশ থেকে যুব প্রতিনিধিরা ওয়েবিনারে যুক্ত যুবদের উন্নয়নে বাজেট নিয়ে তাদের মতামত তুলে ধরেন।

ভার্চুয়াল ছায়া সংসদের বাজেট আলোচনায় জলবায়ু পরিবর্তনের ধাক্কা সামলাতে বিশেষ বরাদ্দ, অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে নারী উদ্যোক্তাদের বিশেষ প্যাকেজের আওতায় আনাসহ বাজাটে আলাদা বরাদ্দ দিয়ে যুবদের উন্নয়নে যুব ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করার দাবি তুলা হয়। শহরে ও গ্রামে সব জায়গায় উচ্চ গতির ইন্টারনেট সেবা নিশ্চিতের জন্য বাজেটে আলাদা বরাদ্দ দিয়ে যুবদের অর্থনৈতিক উন্নয়নে সরকারকে অগ্রণী ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান ওয়েবিনারে যুক্ত হওয়া বক্তা ও যুবরা।

বাজেট নিয়ে আয়োজিত যুব সংসদ সদস্যদের আলোচনায় ছিল- কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য বেসরকারি খাতের সহজীকরণের জন্য করোনা পরবর্তী শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে বাজেট বরাদ্দ দেওয়া, প্রণোদনার মাধ্যমে যুব নেতৃত্ব ও শিল্পোদ্যোক্তাকে বিকশিত করা, ৪র্থ শিল্পবিপ্লবের সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য জাতীয় যুবনীতির বাস্তবায়নে বাজেটকে যুগপোযোগী করে সাজানো, যুব কাউন্সিলর গঠন, গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন ও করোনা পরবর্তী এসডিজি-২০৩০ অর্জনের লক্ষে বাজেট প্রত্যাবর্তনে কার্যকর কমপরিকল্পনা গ্রহণ করা।

আয়োজক সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন, যুবকদের সাথে দেশের নীতি-নির্ধারকদের মতবিনিময় সংলাপের মাধ্যমে ঘোষিত বাজেট পরিমার্জন, সংযোজন, বিয়োজন ও মান উন্নয়নের দ্বারা দেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে এবং এর সাথে অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের রূপরেখা বাস্তবায়িত হবে।



সাতদিনের সেরা