kalerkantho

শুক্রবার । ১১ আষাঢ় ১৪২৮। ২৫ জুন ২০২১। ১৩ জিলকদ ১৪৪২

দেশে ভিভো ভি সিরিজের সবচেয়ে বেশি গ্রাহক তরুণরাই

অনলাইন ডেস্ক   

৯ মে, ২০২১ ২১:৩৩ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দেশে ভিভো ভি সিরিজের সবচেয়ে বেশি গ্রাহক তরুণরাই

“বাংলাদেশে ভিভো’র ভি সিরিজের অন্যতম লক্ষ্য থাকে দেশের তরুণ গ্রাহকরা। তরুণদের মধ্যে স্মার্টফোন ব্যবহারের প্রবণতা বেশি। এরাই সবচেয়ে বেশি ছবি তুলতে পছন্দ করে, গেইম খেলতে এমনকি মোবাইলে মুভিও দেখতে পছন্দ করে। তাই এতসব চাপ সামলাতে একদিকে স্মার্টফোনের ক্যামেরাটি যেমন দুর্দান্ত হওয়া চাই, তেমনি চাই ব্যাটারির পারফরম্যান্স। ভিভো ভি সিরিজের স্মার্টফোনগুলো এই সবগুলো চাহিদারই সমন্বয় ।“

সম্প্রতি এক বিবৃতিতে ভিভো বাংলাদেশের ডেপুটি ব্র্যান্ড ম্যানেজার মি. তানজীব আহামেদ এসব কথা বলেন।

ক্যামেরা প্রযুক্তি বহুজাতিক স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ভিভো’র অন্যতম গবেষণার ক্ষেত্র। স্মার্টফোন ক্যামেরায় পপআপ, গিম্বল স্ট্যাবিলাইজেশন, নিত্যনতুন ক্যামেরার প্রযুক্তি, ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট -এসবই মৌলিক উদ্ভাবন হিসেবে তাদের স্মার্টফোনে ব্যবহার করেছে ভিভো। আবার সুপার নাইট সেলফি প্রযুক্তি, ডুয়েল ভিডিও ক্যামেরার মতো প্রযুক্তিগুলো ভিভো সংযোজন করেছে বাইরে থেকে। ভি সিরিজে শুধু ক্যামেরাই না, গুরুত্ব পেয়েছে উন্নত প্রসেসর , স্টোরেজ আর টেকসই ব্যাটারি।

বাংলাদেশে যাত্রা করা ভিভো ভি সিরিজের স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো ভিভো ভি২০, ভি২০এসই, ভি১৯, ভি১৫, ভি১৫ প্রো, ভি ১১, ভি ১১ প্রো , ভি ৯, ভি ৯ ইয়ুথ , ভি ৭, ভি ৭+ ইত্যাদি। এর মধ্যে ভিভো ভি১৫ এবং ভি১৫প্রো’তে যুক্ত করা হয়েছিলো পপআপ সেলফি ক্যামেরা। পপআপ ক্যামেরা ভিভো’র নিজস্ব উদ্ভাবন। ভি১৭প্রো’তে ছয় ক্যামেরা যুক্ত করেছিলো ভিভো; যার সাথে ছিলো ডুয়েল পপ-আপ সেলফি ক্যামেরাও । এছাড়া ক্যামেরায় ছিলো পোজ মাস্টার ও এআই মেকআপের বাড়তি আকর্ষণ। আর ভি ১৯ মডেলটিতে ছিলো ডুয়েল আই ভিউ ক্যামেরা ।

এছাড়া গত বছর বাজারে আসা ভিভো ভি২০’তে যুক্ত হয়েছিলো দেশের সবচেয়ে বড় ৪৪ মেগাপিক্সেলের আই অটোফোকাস সেলফি ক্যামেরা ও ডুয়েল ভিডিও ক্যামেরা প্রযুক্তি। সে সময় দেশের তরুণদের মধ্যে তুমুল সাড়া ফেলেছিলো ভিভো ভি২০। এরপর আসে ভি২০এসই; যার অন্যতম আকর্ষণ ছিলো এর ১ টেরাবাইটের রম বৃদ্ধি এবং ৩৩ ওয়াট ফ্ল্যাশ চার্জার । অর্থাৎ যত ইচ্ছে ডাউনলোড ও গেইম খেলা, মুভি দেখার পারফেক্ট স্মার্টফোন ছিলো এটি।

এক কথায় বলতে , ভিভো ভি সিরিজ হলো উন্নত প্রযুক্তির আর চাহিদার সংমিশ্রণের ধারাবাহিকতা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ভিভো বাংলাদেশের প্রোডাক্ট ডিরেক্টর মি ডেভিড লী বলেন, ‘এটা সত্যি যে, বাংলাদেশে ভি সিরিজের ওপর বেশি জোর দেয় ভিভো। কেননা এদেশে বিশাল সংখ্যক তরুণ রয়েছে; যাদের স্মার্টফোন কেনার অন্যতম আকর্ষণ থাকে ক্যামেরা, মুভি দেখা ও গেইম খেলা। আর ভিভো ভি সিরিজে ক্যামেরা , ব্যাটারি আর ফ্ল্যাশ চার্জারের যে সমন্বয় রয়েছে, তা তরুণদের এসব চাহিদা পূরণ করে অনায়াসে। এ পর্যন্ত ভি সিরিজের সবচেয়ে বেশি গ্রাহক ছিলো তরুণরাই। ভবিষ্যতেও তাঁরা এভাবে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া জানাবে বলে আশা করি।’ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।



সাতদিনের সেরা