kalerkantho

শুক্রবার । ১১ আষাঢ় ১৪২৮। ২৫ জুন ২০২১। ১৩ জিলকদ ১৪৪২

এপেক্স কিংবা বাটার বদলে এপুক্স অথবা বালা!

অনলাইন ডেস্ক   

৯ মে, ২০২১ ১৭:৪৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এপেক্স কিংবা বাটার বদলে এপুক্স অথবা বালা!

বুধবার রাজধানীর গুলিস্তান ফুলবাড়িয়ায় চলে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযান। ধরা পড়ল নামিদামি ব্র্যান্ডের নকল জুতা-স্যান্ডেল। এখানকার দেড় শতাধিক দোকানে বছরের পর বছর ধরে চলে আসছে নকল জুতা-স্যান্ডেলের রমরমা বাণিজ্য।

ব্যবসায়ীরা জানান, এসব নকল জুতা তৈরি হয় কেরানীগঞ্জ, কামরাঙ্গীরচরসহ পুরান ঢাকার বিভিন্ন এলাকায়। সেখান থেকে তাদের কাছে বিক্রি করা হয়।   

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর বলছে, দোকানে বাটা কিংবা এপেক্সের সাইনবোর্ড থাকলেও বিক্রি হচ্ছে এপুক্স কিংবা বালা নামক জুতা। নামি ব্র্যান্ডের লোগো নকল করে অনুমোদনহীন এসব পণ্য বাজারজাত করায় তাৎক্ষণিক দোকান বন্ধ ও জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। তবে এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের ওপর চড়াও হন ব্যবসায়ীরা। তাদের দাবি, নামের সদৃশ্য থাকা কোনো অপরাধ নয়।

এদিকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর বলছে, নামি ব্র্যান্ডের লোগো দেখে নিয়মিত ঠকছেন ক্রেতারা। সেই সঙ্গে একই নামে এসব মানহীন পণ্য বিক্রি করায় এপেক্স ও বাটার মতো বড় বড় কোম্পানিও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, 'বিভিন্ন মার্কেটের দোকানগুলো তো নকল করছেই, উল্টো তারা ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণও করছে। তারা যে ভুল করছে সেই বোধগম্যতা তাদের নেই।

এ ধরনের নকল পণ্যের বিরুদ্ধে আরো জোরালো অভিযান চালানো হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ভোক্তা অধিকারের এই কর্মকর্তারা। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।



সাতদিনের সেরা