kalerkantho

রবিবার। ৫ বৈশাখ ১৪২৮। ১৮ এপ্রিল ২০২১। ৫ রমজান ১৪৪২

বাংলাদেশে ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে ৪/৬৪জিবি

পাওয়া যাচ্ছে ১০,৪৯০ টাকায়

অনলাইন ডেস্ক   

৮ এপ্রিল, ২০২১ ১৫:৩৭ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



বাংলাদেশে ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে ৪/৬৪জিবি

হট সিরিজের সর্বশেষ স্মার্টফোন হট ৯ প্লে-এর উত্তরসূরি হিসেবে দেশের বাজারে নতুন হট ১০ প্লে নিয়ে এসেছে ইনফিনিক্স। বাজেটবান্ধব এবং ব্যবহারকারীদের মধ্যে সাড়া জাগানো ইনফিনিক্স হট ৯ প্লে বড় সাফল্যের পরে ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে ৪/৬৪ জিবি এখন দেশের বাজারে। তরুণ প্রজন্মের সেরা পছন্দের তালিকায় থাকায় হট সিরিজের বাইরে, ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে ফোনটিতে টানা ৫ দিন ব্যবহারের ক্ষমতার ৬০০০ এমএএইচের দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি এবং মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ গেমিং প্রসেসরসহ ফোনটির দাম মাত্র ১০,৪৯০ টাকা।

ইনফিনিক্স হট সিরিজের ফোনগুলো বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্মের কাছে বিশেষ করে গেমারদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। হট ১০ প্লে এর মিডিয়াটেক হেলিও জি ৩৫ অক্টা-কোর প্রসেসরের ব্যবহারকারীদের আরও নিরবিচ্ছিন্ন ভিডিও প্লে এবং গেমিংয়ের অভিজ্ঞতার দেয়ার মধ্যদিয়ে মোবাইল গেমারদের প্রত্যাশা পূরণ করবে। এতে থাকা ৬.৮২ ইঞ্চির বড় স্ক্রিন সিনেমাটিক ভিজ্যুয়াল অভিজ্ঞতা দিবে এবং এক হাতে ফোনটি খুব স্বাচ্ছন্দ্যে ব্যবহার করা যাবে। এছাড়াও ফোনটির ৪ গিগাবাইট র‌্যাম+৬৪ জিবি রমের বড় মেমরি ব্যবহারকারীকে আরও বেশি বেশি মুভি সংরক্ষণ, গেমিং, সিনেমা দেখা এবং গান শোনার ক্ষেত্রে নির্ভেজাল অভিজ্ঞতা দিবে।

আপনি যদি স্মার্টফোনের ব্যাটারি নিয়ে চিন্তিত হয়ে থাকেন তবে আপনার জন্যই ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে বাজারে নিয়ে আসা হয়েছে। ইনফিনিক্সের হট সিরিজের ব্যানারে এখনও অবধি বাজারে থাকা অন্য ফোনগুলোর মধ্যে নতুন ফোনটিকে সেরা হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। পাওয়ার ম্যারাথন টেকনোলজিসহ টানা ৫ দিন ব্যবহারে এতে ৬০০০ এমএএইচের ব্যাটারি যুক্ত করা হয়েছে। ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে-এর বিশাল ব্যাটারি একবার চার্জ করে নিলে ৫৬ দিনের স্ট্যান্ডবাই সুবিধা পাওয়া যাবে। যা দিয়ে একনাগারে ১৫৫ ঘণ্টা গান শোনা, ৫৩ ঘণ্টা কথা বলা, ১৪ ঘণ্টা গেম খেলা, ১৭ ঘণ্টা ইন্টারনেট এবং ১৬ ঘণ্টা ফেসবুকে ব্রাউজ করা যাবে। এমনকি ফোনটি ব্যবহার করতে গিয়ে ব্যাটারি সক্ষমতার ৫% এ পৌঁছে গেলে এতে থাকা আল্ট্রা পাওয়ার মোড অন করে অতিরিক্ত ১৯ ঘণ্টা ব্যাটারি লাইফের সুবিধা পাওয়া যাবে। এক কথায় বলা যায়, দাম পরিসীমার মধ্যে ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে বাজারের সেরা বিনোদনবান্ধব স্মার্টফোন।

নিরাপত্তার বিষয়ে কোনো ধরনের আপোষ না করেই ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে-ফোনটিতে ফেস আনলক ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট নিরাপত্তা সুবিধা রয়েছে যা খুব সহজে ও চোখের পলকে আনলক করা যাবে। আইসল্যান্ডের গ্রিন অরোরার অনুপ্রেরণা নিয়ে ভিজ্যুয়াল ইন্টারফেস এবং স্মার্ট ইন্টারঅ্যাকশনসহ ফোনটিতে এক্সওএস ৭ এর সঙ্গে অ্যান্ড্রয়েড ১০ (গো সংস্করণ) ব্যবহার করা হয়েছে। এতে থাকা কানেক্টিভিটি ফিচারের মধ্যে ৪জি ভিওএলটিই, ডুয়েল-ব্যান্ড ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ৫, জিপিএস এবং মাইক্রো-ইউএসবি পোর্ট সুবিধা রয়েছে।

ইনফিনিক্সের সর্বশেষ হট সিরিজের যুক্ত হওয়া নতুন ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে ফোনটিতে ৮ এমপির এআই ফ্রন্ট শ্যুটার এবং ডেপথ সেন্সর ও এলইডি ফ্ল্যাশসহ একটি ১৩-মেগাপিক্সেল এআই ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা রয়েছে। ফোনটির প্রাইমারি ক্যামেরাতে ডিজিটাল জুম, অটো ফ্ল্যাশ, ফেস ডিটেকশন, টাচ টু ফোকাস ফিচারও থাকবে। অন্যদিকে, এতে থাকা এআই-এর বর্ধিত পোট্রেট সুবিধা আরো বেশি বাস্তবিক ও দৃষ্টিনন্দন পোট্রেট তুলতে সহায়ক হবে।

দেশের সেরা ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম দারাজ এবং পিকাবু, স্মার্ট লিংক এবং গ্যাজেট অ্যান্ড গিয়ারের মতো অন্যান্য অফলাইন প্ল্যাটফর্মে প্রি-অর্ডার করা যাচ্ছে। ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে স্মার্টফোনটি এজিয়ান ব্লু, মোরান্ডি গ্রিন, ওবসিডিয়ান ব্ল্যাক এবং ৭ ডিগ্রী পার্পল- এ চারটি রঙে গ্লাসের টেক্সচারযুক্ত ভেরিয়েন্টে পাওয়া যাবে।

ইনফিনিক্স সম্পর্কে

বিশ্বব্যাপী মোবাইলের ডিজাইন, তৈরি এবং বাজারজাতকরণে দ্রুত বর্ধনশীল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ইনফিনিক্স মোবাইল ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয়। নিজেদের ব্র্যান্ডের ডিভাইসগুলো ব্যবহারকারীদের কাছে পৌঁছে দিতে বড়সড় পোর্টফোলিও নিয়ে কাজ করছে ইনফিনিক্স। জেড প্রজন্মকে লক্ষ্য করে ইনফিনিক্স নিপুনভাবে ডিজাইন করা নান্দনিক স্টাইল, ক্ষমতা এবং পারফরমেন্সসহ স্মার্টফোনের কাটিং-এইজ প্রযুক্তি উন্নয়নে কাজ করছে। ডিভাইসগুলোকে ট্রেন্ডি লুক দেয়া এবং প্রান্তিক ব্যবহারকারী কাছে সহজলভ্য করার ক্ষেত্রে একধাপ এগিয়ে আছে তারা। ‘ফিউচার ইজ নাউ’কে ধারণ করে, ইনফিনিক্স তরুণ গ্রাহকদের এমন সব সুবিধা হাতের নাগালে এনে দিতে চায় যাতে বাজারে থাকা প্রতিযোগীদের ভিড়ে বিশ্বকে তাদের সক্ষমতার কথা জানান দিতে পারে। ইনফিনিক্সের পোর্টফোলিতে থাকা পণ্যগুলো আফ্রিকা, লাতিন আমেরিকা, মধ্য প্রাচ্য, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া এবং দক্ষিণ এশিয়াসহ বিশ্বের ৪০টিরও বেশি দেশে পৌঁছে গেছে। ইনফিনিক্সের বর্তমান বাজার অভাবনীয় দ্রুত গতিতে বাড়ছে। ২০১৮-২০২০ সালে ১৬০% শতাংশ হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। আকর্ষণীয় ডিজাইন ও শক্তিশালী ফিচারসহ ফ্ল্যাগশিপ-পর্যায়ের ডিভাইস তৈরি অব্যাহত রাখতে আগামী দিনগুলোতে বিশাল পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা