kalerkantho

বুধবার । ৮ বৈশাখ ১৪২৮। ২১ এপ্রিল ২০২১। ৮ রমজান ১৪৪২

শেষ হলো ব্যতিক্রমী দুর্যোগে সাড়াদান প্রশিক্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ মার্চ, ২০২১ ১৮:১৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শেষ হলো ব্যতিক্রমী দুর্যোগে সাড়াদান প্রশিক্ষণ

বাংলাদেশ সরকারের ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির আওতায় যেসব স্বেচ্ছাসেবক কাজ করেন তাদের অংশগ্রহণে শেষ হয়েছে ‘দুর্যোগে সাড়াদান ও জরুরি উদ্ধার কার্যক্রম’ শীর্ষক উন্নত প্রশিক্ষণ।

আজ বৃহস্পতিবার (৪ই মার্চ, ২০২১) বিকালে কক্সবাজারের ইনানীর অর্কিড ব্লু হোটেলে ২৪ জন প্রশিক্ষণার্থীর অংশগ্রহণে শেষ হয় এই ব্যতিক্রমী প্রশিক্ষণ। এর মধ্যে ১৫ জন ছিলেন পুরুষ ও ৯ জন ছিলেন নারী। পাঁচদিনব্যাপী প্রশিক্ষণ শেষে প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ করা হয়।

তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক সমন্বিত এই প্রশিক্ষণ কার্যক্রমে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মতো। এই প্রশিক্ষণসহ তিনটি পর্বে মোট ৮৫ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে ৪৯ ছিলেন পুরুষ, ৩৬ জন ছিলেন নারী।

গত বছরের ৮ই নভেম্বর থেকে তিনটি পর্বে শুরু হয় প্রশিক্ষণ কার্যক্রম। চলতি বছরের ১৭ই জানুয়ারি শুরু হয় দ্বিতীয় পর্ব। গত ২৮শে ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয় পাঁচ দিনব্যাপী তৃতীয় পর্বের এই প্রশিক্ষণ কার্যক্রম।

শেষ দিনে প্রশিক্ষণের মধ্যে ছিল ভূমিধস ও আগুন লাগার ঘটনায় স্থানীয় জনসাধারণের মাঝে কেউ আহত হলে তাদেরকে উদ্ধারে কী করণীয়, জরুরি সময়ে আহত মানুষকে উদ্ধার করার পদ্ধতি, কেউ অগ্নিদগ্ধ হলে কিভাবে তাদেরকে সেবা দিতে হবে সে বিষয়ে তাত্ত্বিক আলোচনা ও ব্যবহারিক জ্ঞান। এর পাশাপাশি ভূমিধসের ধরণ অনুযায়ী কিভাবে উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোকপাত করা হয়।

গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডা (GAC-গ্যাক) ও অষ্ট্রেলিয়ান সরকারের আর্থিক সহযোগিতায় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাক এই প্রশিক্ষণ কার্যক্রম বাসত্মবায়ন করছে। প্রশিক্ষণ বাস্তবায়নে সহযোগী হিসেবে ছিল বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স।

ভূমিধস, অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা, জরুরি উদ্ধার ও প্রাথমিক চিকিৎসায় করণীয় নিয়ে ছিল মূল প্রশিক্ষণের আয়োজন। স্বেচ্ছাসেবকরা দুর্যোগকালীন সময়ে যাতে মূল উদ্বারকর্মীদের সহায়ক হিসেবে কাজ করতে পারেন এজন্য এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়।

বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স এর পক্ষ থেকে প্রশিক্ষণে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির ট্রেনিং কমপ্লেক্স বিভাগের ইন্সট্রাক্টর মনির হোসেন, ডেপুটি অ্যাসিসট্যান্ট ডিরেক্টর ইকবাল বাহার বুলবুল, মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, নিউটন দাশসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ।

ব্র্যাকের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাকের মানবিক সহায়তা কর্মসূচির আওতাধীন হোস্ট কমিউনিটি কর্মসূচির প্রধান- মো. আব্দুল মতিন সরদার, একই কর্মসূচির দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস কর্মসূচির সেক্টর স্পেশালিস্ট শুভ কুমার সাহা, একই কর্মসূচির সহকারী প্রকল্প কর্মকর্তা মতিয়ার রহমানসহ সংশ্লিষ্টরা।

প্রশিক্ষণে অংশ নিয়েছেন ইডেন কলেজ থেকে গ্র্যাজুয়েশন শেষ করা মৌসুমী আরজু। তিনি জানান, আমরা এই পর্বে ২৪ জন অংশ নিয়েছি। এরমধ্যে থেকে ঘূর্ণিঝড় বা ভূমিধস এইরকম জরুরি অবস্থায় ১০ জনও যদি স্থানীয়দের উদ্ধার কাজে সহায়তা করতে পারে সেটা আমাদের জন্য বড় প্রাপ্তি। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা