kalerkantho

রবিবার। ২৮ চৈত্র ১৪২৭। ১১ এপ্রিল ২০২১। ২৭ শাবান ১৪৪২

টিভিএস আনল অ্যাপাচি আরটিআর ১৬০ ফোরভি এবিএস মোটরসাইকেল

অনলাইন ডেস্ক   

৩ মার্চ, ২০২১ ১৬:২৭ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



টিভিএস আনল অ্যাপাচি আরটিআর ১৬০ ফোরভি এবিএস মোটরসাইকেল

গতকাল ২ মার্চ ২০২১ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক ভার্চুয়াল ইভেন্টের মাধ্যমে টিভিএস অটো বাংলাদেশ লিঃ মোটরসাইকেল গ্রাহকদের উপহার দিয়েছে অ্যাপাচি আরটিআর ওয়ান সিক্সটি ফোরভি স্মার্ট এক্সকানেক্ট এর এন্টি লক্ ব্রেকিং সিস্টেম বা এবিএস ভার্সনটি। তরুণ প্রজন্মের চাহিদা মেটাতে বাংলাদেশের মোটরসাইকেল ইতিহাসে একমাত্র মোটরসাইকেল হিসেবে সর্বপ্রথম এই মোটরসাইকেলটি টিভিএস অটো বাংলাদেশ লিঃ উদ্বোধন করলো। এবিএস-এর সাথে এই মোটরসাইকেলটিতে দেয়া হয়েছে স্মার্ট-এক্স-কানেক্ট টেকনোলজি, সম্পূর্ন নতুন এলইডি হেডল্যাম্প, রেডিয়াল টায়ার ও নতুন গ্রাফিক্স।

এই নতুন মোটরসাইকেলটির উদ্বোধন উপলক্ষ্যে দেয়া বিবৃতিতে টিভিএস অটো বাংলদেশ লিমিটেড-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জে. একরাম হোসাইন বলেন, ”টিভিএস আপ্যাচি আরটিআর সিরিজটি ইতিমধ্যেই বাংলাদেশে অসাধারণ গ্রাহক সন্তুষ্টি অর্জন করেছে। এর নতুন যেকোনো ভার্সনই বাংলাদেশের বাইক প্রেমিদের জন্য খুবই এক্সসাইটিং। অ্যাপাচি আরটিআর ওয়ান সিক্সটি ফোরভি সাথে এবিএস এবং স্মার্ট-এক্স-কানেক্ট টেকনোলজি বাংলাদেশের বাইকারদের জন্য সম্পূর্ণ নতুন একটি ফিচার। পাশাপাশি নতুন হেডলাইট, রেডিয়াল টায়ার ও নতুন গ্রাফিক্স স্থানীয় মার্কেটে এর অবস্থানকে আরো শক্তিশালী করবে বলে আমি বিশ্বাস করি। এটি টিভিএস অটো বাংলাদেশের সব শো-রুম ও ২৩৫টি থ্রি-এস অর্থাৎ সেলস্, সার্ভিস ও পার্টস ডিলার পয়েন্টে পাওয়া যাবে।”

এই উপলক্ষ্যে আর দিলীপ, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট- টিভিএস মোটর কোম্পানী বলেন, ”আমরা অ্যাপাচি আরটিআর ওয়ান সিক্সটি ফোরভি সাথে এবিএস মোটরসাইকেলটি বাংলাদেশের মার্কেটে বাজারজাত করছি তাই আমি খুবই আনন্দিত। সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী আমরা ৪ মিলিয়ন মোটরসাইকেল বিক্রির মাইলস্টোন অতিক্রম করেছি। এর জন্য বাংলাদেশের ক্রেতাদের কাছে আমাদের কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। অ্যাপাচি আরটিআর ওয়ান সিক্সটি ফোরভি-এর নতুন সংস্করণটি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে থাকা অ্যাপাচি কাস্টমারদের সত্যিকারের রেসিং অভিজ্ঞতার প্রতি আমাদের প্রতিশ্রুতিবদ্ধতার আরেকটি প্রতিফলন। মোটরসাইকেলটির সর্বাধুনিক প্রযুক্তির উন্নততর কর্মক্ষমতা এবং রেসিং এ উৎসাহী বাংলাদেশের তরুণ সমাজকেও আকৃষ্ট করবে।”

কোম্পানীর যাত্রা শুরুর প্রায় ১৪ বছর পর এলো ফোরভি সাথে এবিএস ভার্সনটি যাতে বাইকাররা পাবেন স্পোর্টস বাইকের অনুভূতি। নতুন অ্যাপাচি আর টি আর ওয়ান সিক্সটি ফোরভি এর রেয়ার হুইল লিফট অফ প্রোটেকশন বা আরপিএল সহ সুপার মোটো এবিএস জরুরী ব্রেকিং-এর সময় চাকাকে লকআপ করা থেকে বিরত রেখে ভেজা, পিচ্ছিল ও ময়লা রাস্তায় মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণকে উন্নত করে বহুগুনে। যেখানে প্রায় সব মোটরসাইকেলের গতি প্রতি ঘণ্টায় ৪০-৫০ কিলোমিটার উঠার পর এবিএস কাজ শুরু করে সেখানে অ্যাপাচি আরটিআর ওয়ান সিক্সটি ফোরভি-এর এবিএস প্রতি ঘণ্টায় মাত্র ৫ কিলোমিটার গতিতে কাজ শুরু করে। এর সিঙ্গেল চ্যানেল এবিএস ভেজা, পিচ্ছিল ও ময়লা রাস্তায় ব্রেক করার সময় বাইকের নিয়ন্ত্রণকে আরও উন্নত করে স্কিডিং প্রতিরোধ করার সাথে সাথে হার্ড ব্রেকিংয়ে থামার জন্য প্রয়োজনীয় দূরত্বকে অনেক কমিয়ে দেয়। একটি বাইক চালানোর সময় শুধুমাত্র পিচ্ছিল, উঁচু-নিচু রাস্তা বা কোনও জরুরী পরিস্থিতিতে নয়, বরং প্রতিদিনের রাস্তায় চলমান অনিয়ন্ত্রিত পরিস্থিতিগুলিতেও রাইডারকে সবসময় সুরক্ষিত রাখবে অ্যাপাচি আরটিআর ওয়ান সিক্সটি ফোরভি এবিএস এর  Steel Braided Brake Bundy Tubeটি। এই টিউবটির জন্য ব্রেক লিভারে আলতো চাপ প্রয়োগ করলেই মোটরসাইকেলটির ব্রেক খুব দৃঢ় ও দ্রুততার সাথে প্রতিক্রিয়া করে। টিউবটি দীর্ঘ সময় ধরে উচ্চ কার্যকারিতা বজায় রাখতেও সক্ষম।

এর সাথে TVS SmartXonnect রাইডারকে মূলত মোটরসাইকেলের সাথে বাইক রাইডারের স্মার্টফোনটিকে টিভিএস কানেক্ট অ্যাপের মাধ্যমে যুক্ত করবে যা অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জন্য প্রযোজ্য। এই অ্যাপের সাহায্যে বাইক রাইডার মোটরসাইকেল চালানো অবস্থায় এলসিডি ডিজিটাল মিটারে বেশ কয়েকটি ফিচার যেমন কল/এসএমএস এলার্ট, নেভিগেশনের সহায়তা, কম জ্বালানি সতর্কতা ইত্যাদি দেখতে ও নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। এক্স কানেক্টের ফিচারগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করতে মোটরসাইকেলের হ্যান্ডেলবারের বা দিকের ইউনিটে একটি নতুন সুইচ দেয়া হয়েছে। এছাড়া অ্যাপাচি আরটিআর ওয়ান সিক্সটি ফোরভি এর রেস টেলিমেট্রি অপশন যেমন টপ স্পিড, অ্যাভারেজ স্পিড, লীন এঙ্গেল এবং আরপিএমের সাথে গিয়ার শিফট প্যাটার্নের গ্রাফ প্যারামিটারগুলির অনেক তথ্য রাইডার খুব সহজেই টিভিএস SmartXonnect অ্যাপে দেখতে পারবেন।

এছাড়া এতে রয়েছে ১৫৯.৭ সিসি পাওয়ারফুল ইঞ্জিন ও টিভিএস মোটর কোম্পানীর গ্লোবাল স্বত্তাধীকারী ওথ্রিসি ও র‌্যাম-এয়ার এসিস্ট টেকনোলজি। এই ওথ্রিসি বা ওয়েল কুলড টেকনোলজি ও র‌্যাম-এয়ার এসিস্ট ইজ্ঞিন ঠান্ডা রাখবে সাধারন ইজ্ঞিনের তুলনায় ১০ ডিগ্রী সেলসিয়াস বেশি। ১৬০ সিসি সেগমেন্টে সবচেয়ে পাওয়ারফুল এই ইঞ্জিন ৮০০০ আরপিএমে ১৬.৫ পিএস শক্তি উৎপাদন করতে সক্ষম যা মাত্র ৪.৭৩ সেকেন্ডেই দেবে ০-৬০ কিলোমিটার স্পিড। ৪টি ভ্যাল্ভ সমৃদ্ধ এই মোটরসাইকেলটিতে রয়েছে ডাবল ব্যারেল এগজ্যস্ট যা ইজ্ঞিনকে দিবে স্মুথ রেসিং সাউন্ড। এতে রয়েছে বিশ্বের অন্যতম সেরা রেসিং বাইক শক্ অ্যাবজারভার ম্যানুফ্যাকচারার SHOWA প্রস্তুতকৃত গ্যাস ফিলড মনোশক্ অ্যাবজারভার যা সাতটি ধাপে অ্যাডজাস্ট করা সম্ভব। এতে ব্যবহার করা হয়েছে ২৭০ এমএম রোটো পেটাল ফ্রন্ট ব্রেকিং সিস্টেম ও ২০০ এমএম রিয়ার ডিস্ক ব্রেক যা গাড়ির গতি কমিয়ে ঝুঁকিমুক্ত স্মুথ ব্রেক দেবে তাৎক্ষনিক। বেস্ট ক্লাস ফোমে বানানো রেসিং ডুয়েল টোন সিট দেবে বাড়তি স্বাচ্ছন্দ্য। সঙ্গে সুরক্ষাও। এ সবকিছু মিলিয়ে Apache RTR 160 4V সময়ের সেরা বাইক।

অ্যাপাচি আরটিআর ১৬০ ফোরভি এবিএস-এর নতুন সংস্করণটির ডাবল ডিস্কের বিক্রয় মূল্য ধার্য করা হয়েছে ২,০৭,৯০০ টাকা। এটি টিভিএস অটো বাংলাদেশের সব শো-রুম ও ডিলার পয়েন্টে আকর্ষণীয় তিনটি রং- রেসিং রেড, নাইট ব্ল্যাক এবং মেটালিক ব্লু-এ পাওয়া যাবে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা