kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭। ২ মার্চ ২০২১। ১৭ রজব ১৪৪২

কিশোরী মুক্তিযোদ্ধা তারামন বিবির দুঃসাহসিক গল্প তুলে আনল বসুন্ধরা

অনলাইন ডেস্ক   

১৫ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৭:১২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিশোরী মুক্তিযোদ্ধা তারামন বিবির দুঃসাহসিক গল্প তুলে আনল বসুন্ধরা

একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাহসীকতার গল্প তুলে ধরতে বসুন্ধরা ফর্টিফাইড সয়াবিন তেল নির্মাণ করেছে ‘যত্নে গড়া বিজয়’-এর গল্প। ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসকে কেন্দ্র করে নির্মিত এই অনলাইন ভিডিওতে উঠে এসেছে মুক্তিযুদ্ধের ১১নং সেক্টরের কিশোরী মুক্তিযোদ্ধা তারামন বিবির দুঃসাহসিক, অজানা সব গল্প। 

তারামন বিবি (বেগম) বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের একজন খেতাবপ্রাপ্ত বীর নারী মুক্তিযোদ্ধা। এই কিশোরী বয়সেই যুদ্ধের মতো একটা টালমাটাল সময়ে যিনি জীবনের তোয়াক্কা না করে ছুটে বেড়িয়েছেন, অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেছেন।

১৯৫৭ সালে কুড়িগ্রামে জন্ম নেওয়া তারামন বিবি মাত্র ১৪ বছর বয়সেই অংশ নেন মুক্তিযুদ্ধে। মুক্তিযোদ্ধা মুহিব হাওলাদার ১১নং সেক্টরের একটি ক্যাম্পে তারামন বিবিকে ‘ধর্মকন্যা’ মেনে রান্নাবান্নার কাজে নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে সহকর্মীদের কাছ থেকে অস্ত্র চালনার প্রশিক্ষণ নিয়ে পাকবাহিনীর বিরুদ্ধে অনেক যুদ্ধেও অংশগ্রহণ করেন তিনি। পাশপাশি, তারামন বিবি ময়লা জামা, কাঁদা মেখে ভিখারী ও পাগল ছদ্মবেশে পাকক্যাম্পে গিয়ে অনেক তথ্যও সংগ্রহ করতেন।  ১৯৭৩ সালে তৎকালীন সরকার মুক্তিযুদ্ধে সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য তারামন বিবিকে “বীর প্রতীক” উপাধিতে ভূষিত করে।  মুক্তিযুদ্ধের অদম্য, দামাল এই কিশোরী ২০১৮ সালের ১ ডিসেম্বর নিজ বাসায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। 

উল্লেখ্যে, বসুন্ধরা গত বছর থেকে মুক্তিযুদ্ধের সত্য ঘটনা অবলম্বনে হৃদয়স্পর্শী ভিডিওচিত্র নির্মাণ করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবারের বিজয় দিবসে বসুন্ধরা বলতে চেয়েছে দুঃসাহসিক তারামন বিবির অজানা, প্রেরণাময় ইতিহাস। নির্মাতা আব্দুল্লাহ মুহম্মদ সাদ এর পরিচালনায় এই ভিডিওটিতে কিশোরী তারামন চরিত্রে অভিনয় করেন মোহনা। বসুন্ধরা ফর্টিফাইড সয়াবিন তেল এর অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজ ও ইউটিউব চ্যানেল ভিজিট করে ভিডিওটি দেখা যাবে।  

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা