kalerkantho

শুক্রবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৭ নভেম্বর ২০২০। ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

শেখ রাসেলের জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে মিনিস্টার-মাইওয়ান গ্রুপের দোয়া মাহফিল

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:২৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শেখ রাসেলের জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে মিনিস্টার-মাইওয়ান গ্রুপের দোয়া মাহফিল

গতকাল চুয়াডাঙ্গায় মিনিস্টার-মাইওয়ান গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এ রাজ্জাক খান রাজ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শহীদ শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষ্যে দোয়া, আলোচনা ও মিলাদ মাহফিল আয়োজন করেন। শুক্রবার বাদ মাগরিব পলাশপাড়ার বাগান বাড়িতে এ আয়োজন করা হয়। 

মিনিস্টার-মাইওয়ান গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এ রাজ্জাক খান রাজের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ মেহমান ও অতিথী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সাবেক মেয়র জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ওবায়দুর রহমান চৌধূরী জিপু, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আব্দুল মালেক, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি আফজালুল হক, জেলা দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইবরুল হাসান জোয়ার্দ্দার, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও জেলা যুবলীগের আহ্ববায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার, যুগ্ম আহবায়ক জিল্লুর রহমান, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক ও জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. জানিফ। 

আলোচনা সভায় সভাপতি এম এ রাজ্জাক খান রাজ বলেন, বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৭ তম জন্মদিনে এ জেলার আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীদের শুভেচ্ছা। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়া বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ একটি বিশাল বড় দল। বঙ্গবন্ধুর সেই বড় দলের আদর্শকে কাজে লাগিয়ে দেশকে আরো বড় জায়গায় নিয়ে যাওয়া সম্ভব। তাই আমাদের সকলের উচিৎ সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে ঐক্যের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের রাজনীতি ও দেশের উন্নয়ন সাধন করা। আমি বিশ্বাস করি সুস্থ ধারার রাজনীতি ও ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারের মাধ্যমে দেশকে বহুদুর এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব এবং যা আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করে দেখিয়েছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আমি ধন্যবাদ জানাই এই জন্য যে, যারা ভালোকাজ ও সৎভাবে যারা ব্যবসা-বাণিজ্য করেন সব সময় তিনি তাদের পাশে থেকেছেন। যার প্রমাণ মেলে যখন তিনি আমার মত একজন ব্যবসায়ীর প্যাভিলিয়ন (ঢাকা বাণিজ্য মেলায়) পর পর দুই বছর সময় দিয়ে অনেকক্ষণ অবস্থান করেছেন। যা আমার কাছে অনেক বড় পাওয়া। তাই সেই পাওয়া ও উৎসাহ থেকে আমি বলতে চাই বঙ্গবন্ধুর আর্দশে গড়া বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পতাকাতলে দাঁড়িয়ে চুয়াডাঙ্গাসহ দেশের মানুষের জন্য কিছু করতে চাই।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা