kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৩ মে ২০১৯। ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ১৭ রমজান ১৪৪০

৩৬৬৫ জনকে প্রশিক্ষণ দেবে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর

দেশের বেকার তরুণ-তরুণীদের প্রশিক্ষণ দেবে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর। অংশ নেওয়া যাবে অষ্টম শ্রেণি পাস হলেই। আবেদনের শেষ তারিখ ২৯ অক্টোবর

চাকরি আছে প্রতিবেদক   

১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



৩৬৬৫ জনকে প্রশিক্ষণ দেবে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর

গবাদি পশু, হাঁস-মুরগি পালন, প্রাথমিক চিকিত্সা, মত্স্য চাষ ও কৃষি, ব্লক-বাটিক ও স্ক্রিন প্রিন্ট, ওভেন ও সুইং মেশিন অপারেটিং এবং বিউটিফিকেশন বিষয়ে তরুণ-তরুণীদের প্রশিক্ষণ দেবে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর। সারা দেশে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের মাধ্যমে দেওয়া হবে এ প্রশিক্ষণ।

ভর্তির যোগ্যতা

যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, গবাদি পশু, হাঁস-মুরগি পালন, প্রাথমিক চিকিত্সা, মত্স্য চাষ ও কৃষি বিষয়ে তিন মাস মেয়াদি কোর্সে দেশের ৫৭টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৩২০০ জন প্রশিক্ষণ পাবেন। চার মাস মেয়াদি ব্লক-বাটিক ও স্ক্রিন প্রিন্ট কোর্সে ৯টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ২২৫ জন, দুই মাস মেয়াদি ওভেন ও সুইং মেশিন অপারেটিং বিষয়ে তিনটি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৬০ জন এবং এক মাস মেয়াদি বিউটিফিকেশন বিষয়ে ৯টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ১৮০ জন প্রশিক্ষণ পাবেন। অষ্টম শ্রেণি পাস হলেই আবেদন করা যাবে। অংশ নিতে পারবেন ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী বেকার যুবক-যুবতীরা। তবে মুক্তিযোদ্ধা কোটার প্রার্থীদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা শিথিলযোগ্য।

আবেদন যেভাবে

আবেদন জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৯ অক্টোবর। নিজ হাতে আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। নির্ধারিত আবেদন ফরম পাওয়া যাবে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে (www.dyd.gov.bd)। এ ছাড়া উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের উপপরিচালক, কো-অর্ডিনেটর, ডেপুটি কো-অর্ডিনেটর ও উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে বিনা মূল্যে সংগ্রহ করা যাবে আবেদন ফরম। পূরণ করা আবেদনপত্র নিজ জেলা বা উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দপ্তরে জমা দিতে হবে। আবেদনপত্রের সঙ্গে শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদের ফটোকপি, জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি বা জন্মনিবন্ধনের ফটোকপি ও সদ্য তোলা দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি যুক্ত করতে হবে।

বাছাই প্রক্রিয়া ও সাক্ষাত্কার

জেলা ও উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মাধ্যমে প্রার্থীর আবেদন ফরম যাচাই-বাছাই করা হবে। প্রাথমিক বাছাইয়ের পর ৩০ অক্টোবর সাক্ষাত্কার নেওয়া হবে অধিদপ্তরের নিজ নিজ জেলা ও উপজেলা কার্যালয়ে। সাক্ষাত্কারের দিন প্রার্থীর সব মূল কাগজপত্র সঙ্গে রাখতে হবে। প্রশিক্ষণ কোর্স শুরু হবে ২ নভেম্বর।

প্রশিক্ষণ ফি ও ভাতা

প্রশিক্ষণের সব খরচ বহন করবে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর। তবে গবাদি পশু, হাঁস-মুরগি পালন, প্রাথমিক চিকিত্সা, মত্স্য চাষ ও কৃষি বিষয়ে প্রার্থীদের কাছ থেকে ভর্তি ফি বাবদ ১০০ টাকা (অফেরতযোগ্য) ও জামানত বাবদ ১০০ টাকা (ফেরতযোগ্য) নেওয়া হবে। পাওয়া যাবে উপস্থিতির ভিত্তিতে মাসিক ১২০০ টাকা হারে ভাতা। ব্লক-বাটিক, স্ক্রিন প্রিন্ট এবং ওভেন ও সুইং মেশিন অপারেটিং কোর্সের জন্য ৫০ টাকা ও বিউটিফিকেশন কোর্সের জন্য কোর্স ফি লাগবে ১০০ টাকা।

যোগাযোগ

যেকোনো তথ্যের জন্য যোগাযোগ করতে হবে নিজ জেলা বা উপজেলার যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর কার্যালয়ে। প্রধান কার্যালয় : যুব ভবন, ১০৮ মতিঝিল বা/এ, ঢাকা-১০০০। ওয়েব : www.dyd.gov.bd

মন্তব্য