kalerkantho

বুধবার ।  ১৮ মে ২০২২ । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩  

ভ্যাট নিয়ে 'উই'-এর অনলাইন ওয়ার্কশপ

‘সঠিক ভ্যাট ব্যবস্থাপনায় দ্রব্যমূল্য হ্রাস সম্ভব’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ এপ্রিল, ২০২২ ১৯:৪৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



‘সঠিক ভ্যাট ব্যবস্থাপনায় দ্রব্যমূল্য হ্রাস সম্ভব’

দেশে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির এই সময়ে সঠিক ভ্যাট ব্যবস্থাপনায় দ্রব্যমূল্য কমানো সম্ভব বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। ভ্যাটবিষয়ক এক কর্মশালায় বক্তারা বলেন, ভ্যাট নিয়ে উদ্যোক্তাদের মধ্যে যে ভীতি, তা দূর করতে হবে। সঠিকভাবে ও দক্ষতার সঙ্গে ভ্যাট প্রদান করলে দ্রব্যমূল্য কমানো সম্ভব।

উইমেন্স অ্যান্ড ই-কমার্স ট্রাস্ট (WE)-এর আয়োজনে গত ২৩ এপ্রিল অনলাইনে অনুষ্ঠিত হয় ভ্যাটবিষয়ক এই কর্মশালা।

বিজ্ঞাপন

‘সঠিক ভ্যাট ব্যবস্থাপনায় দ্রব্যমূল্য হ্রাস সম্ভব’ এই শিরোনামে অনুষ্ঠিত ওয়ার্কশপটিতে মূল আলোচক ছিলেন দ্য রিয়াল কনসালটেশনের ফাউন্ডার ও লিড কনসালট্যান্ট আলিমুজ্জামান।

ছবি : দ্য রিয়াল কনসালটেশনের ফাউন্ডার ও লিড কনসালট্যান্ট আলিমুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উইমেন্স অ্যান্ড ই-কমার্স ট্রাস্ট (WE) প্রেসিডেন্ট নাসিমা আক্তার নিশা, ডিরেক্ট ইসি ইমানা জয়োতি এবং সংগঠনের নারী উদ্যোক্তাগণ।

ভ্যাট দ্রব্যমূল্যের ওপর কিভাবে প্রভাব বিস্তার করে, কিভাবে দক্ষতার সঙ্গে ভ্যাট দিলে দ্রব্যমূল্য কমে আসবে, ভ্যাট কেন ভীতির বিষয় নয়, কখন ভ্যাট দিতে হবে আর কখন দিতে হবে না, নারী উদ্যোক্তা হিসেবে ভ্যাট আইনের প্রাপ্ত সুবিধাসমূহ কিভাবে গ্রহণ করবেন―এ রকম কিছু বিষয় নিয়ে কর্মশালায় আলোচনা করা হয়।

'ভ্যাট বন্ধু' হিসেবে আলিমুজ্জামান ব্যবসায়ীদের ভ্যাট ভীতি দূর করতে এবং তাদেরকে দক্ষতার সঙ্গে ভ্যাট দেওয়ার ওপর প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছেন। তিনি কর্মশালায় বলেন, ‌'দেশের নারী উদ্যোক্তাদের জন্য বাংলাদেশ সরকার নানা ধরনের কর রেয়াত ব্যবস্থা করে রেখেছে। আমরা দেখেছি অনেক নারী না জানার কারণে অতিরিক্ত ভ্যাট প্রদান করছেন। এর ফলে তাদের পণ্যের দামও বেড়ে যাচ্ছে। আমি মনে করি, দক্ষতার সঙ্গে ভ্যাট দিলে পণ্যের দাম ৫ থেকে ৭ শতাংশ কমানো সম্ভব। '

এই কর্মশালার ফলে নারী উদ্যোক্তাদের মধ্যে থেকে ভ্যাট ভীতি ও ভ্যাট নিয়ে বিভ্রান্তি দূর হবে এবং এখন থেকে নিজের ভ্যাট নিজেই দিতে পারবেন বলে আয়োজকরা মনে করছেন।



সাতদিনের সেরা