kalerkantho

শনিবার । ১৫ মাঘ ১৪২৮। ২৯ জানুয়ারি ২০২২। ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

৭০% করদাতা এখনো রিটার্ন জমা দেয়নি

সজীব আহমেদ    

২২ ডিসেম্বর, ২০২১ ১০:০২ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



৭০% করদাতা এখনো রিটার্ন জমা দেয়নি

•    টিআইএনধারী ৭০ লাখ, রিটার্ন জমা দিয়েছে ২১ লাখ

•    এখনো জমা দেয়নি ৪৯ লাখ টিআইএনধারী

•    সময় বাড়ানো হলেও রিটার্ন জমা পড়ছে খুবই কম

দেশে মোট কর শনাক্তকরণ নম্বরধারীর (টিআইএন) মাত্র ৩০ শতাংশ করদাতা আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছে। ৭০ শতাংশ করদাতাই আয়কর রিটার্ন জমা দেয়নি। চলতি অর্থবছরে দেশে প্রায় ৭০ লাখের বেশি টিআইএনধারী করদাতার মধ্যে গত ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশের সব কর অঞ্চল মিলে ২১ লাখ আয়কর রিটার্ন জমা পড়েছে। এখনো ৪৯ লাখ টিআইএনধারী করদাতা রিটার্ন জমা দেয়নি।

বিজ্ঞাপন

এনবিআর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

করোনার কারণে গতবারের মতো এ বছরও আয়কর মেলা হয়নি। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) ৩১ কর অঞ্চলের ৬৪৯টি সার্কেলে মেলার মতো উৎসবমুখর পরিবেশে রিটার্ন জমা নেওয়া হয়। গত ৩০ নভেম্বর ২০২১-২২ করবর্ষের ব্যক্তি শ্রেণির করদাতাদের রিটার্ন জমার শেষ দিন ছিল। তবে নির্ধারিত সময়ে আশানুরূপ রিটার্ন জমা না পড়ায় এক মাস সময় বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত করা হয়েছে। এনবিআরের দ্বিতীয় সচিব (জরিপ, কর ফাঁকি ও আইটিপি রেজি., কর-১৫) দীপক কুমার পাল কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘গত ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশের সব কর অঞ্চল মিলে ২১ লাখ আয়কর রিটার্ন জমা পড়েছে। ’

এনবিআরের হিসাবে দেখা যায়, গত অর্থবছরে (২০২০-২১) দেশে টিআইএনধারী ছিল ৫৬ লাখ, যাদের মধ্যে ২৪ লাখ ৩০ হাজার জন আয়কর রিটার্ন জমা দেয়। বাকি ৩১ লাখ ৬৯ হাজার জন রিটার্ন জমা দেয়নি।

সময় বাড়লেও রিটার্ন জমা পড়ছে খুবই কম : রাজধানীর সেগুনবাগিচায় গতকাল বিভিন্ন কর অঞ্চল ঘুরে দেখা যায়, রিটার্ন জমার সময় বাড়ানোর ২১ দিন পার হলেও কর অঞ্চলগুলোতে করদাতাদের উপস্থিতি খুবই কম। সে কারণে প্রতিটি কর অঞ্চলে মেলার মতো উৎসবমুখর পরিবেশে সাজানো বুথগুলো সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

কর অঞ্চল-৬-এর কর কমিশনার মোহাম্মদ জাহিদ হাসান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘যারা নিয়মিত করদাতা, তারা নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছে। এখন যারা দিচ্ছে, তাদের মধ্যে বেশির ভাগ কাগজপত্র গোছাতে না পারায় এখন রিটার্ন দিচ্ছে। এখন সার্কেলে এসেই করদাতারা রিটার্ন জমা দিতে পারছে। ’

মোহাম্মদ জাহিদ হাসান বলেন, ‘কর অঞ্চল-৬-এ ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত ৮২ হাজার রিটার্ন জমা পড়েছিল। এর মধ্যে নভেম্বর মাসের শেষ তিন দিনে রিটার্ন জমা পড়েছিল ৪৫ হাজার। ডিসেম্বরের ২১ দিনে রিটার্ন জমা পড়েছে মাত্র চার হাজার। চলতি বছর এই কর অঞ্চলে রিটার্ন জমা পড়েছে ৮৬ হাজারের বেশি। গত অর্থবছর ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত রিটার্ন জমা পড়েছিল ৮০ হাজার। ’

এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবদুল মজিদ বলেন, ‘চলতি বছরও এক কোটি লোককে নতুনভাবে করের আওতায় আনার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে; কিন্তু বিপুলসংখ্যক মানুষকে আয়করের আওতায় আনতে এখনো তেমন কাঠামো গড়ে ওঠেনি। কেন মানুষ কর দিতে চায় না, এ নিয়ে নেই কোনো গবেষণা। ’

অর্থনীতিবিদ ড. এ বি মির্জ্জা মো. আজিজুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘করদাতাদের মধ্যে যারা আয়কর রিটার্ন দেয়নি, তাদের তথ্য এনবিআরের কাছে রয়েছে। তাদের ফলো-আপ করে জরিমানাসহ রিটার্ন আদায় করার ব্যবস্থা করতে হবে। ’



সাতদিনের সেরা