kalerkantho

বুধবার । ১১ কার্তিক ১৪২৮। ২৭ অক্টোবর ২০২১। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সঞ্চয়পত্রে বেশি বিনিয়োগে মুনাফার হার কমবে

অনলাইন ডেস্ক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৯:১৬ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সঞ্চয়পত্রে বেশি বিনিয়োগে মুনাফার হার কমবে

ফাইল ফটো

সম্প্রতি জাতীয় সঞ্চয়পত্রের স্কিমগুলোর মুনাফার হার কমিয়েছে সরকার, তবে ১৫ লাখ টাকার কম বিনিয়োগে মুনাফার হার আগের মতোই থাকছে। নতুন হার অনুযায়ী, সঞ্চয়পত্রে যার যত বেশি বিনিয়োগ, তার মুনাফার হার ততো কম হবে। আর

আজ রবিবার নতুন এ মুনাফার হার পালনের নির্দেশনা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এতে বলা হয়, যারা নতুন করে সঞ্চয়পত্র কিনবেন, তাদের জন্য বিভিন্ন স্কিমে এ মুনাফা বা সুদহার কার্যকর হবে। আবার আগের কেনা সঞ্চয়পত্রের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর পুনর্বিনিয়োগ করলেও নতুন মুনাফার হার কার্যকর হবে। এই আদেশ জারির আগে কেনা সঞ্চয় স্কিম ক্রয়কালীন হারে মুনাফা প্রাপ্য হবে। যেই মেয়াদের জন্য ইস্যু করা হয়েছিল সেই মেয়াদ শেষ হওয়া পর্যন্ত উক্ত হারে মুনাফা প্রাপ্য হবে। তবে পুনর্বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বিনিয়োগের তারিখে মুনাফার হার প্রযোজ্য হবে। এটি কার্যকর হবে নির্দেশনা জারির তারিখ হতে।

এর আগে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের জারিকৃত প্রজ্ঞাপন মতে, বর্তমানে পাঁচ বছর মেয়াদি সঞ্চয়পত্রের মেয়াদ শেষে ১১ দশমিক ২৮ শতাংশ মুনাফা পাওয়া যায়। নতুন নিয়মে যাদের সঞ্চয়পত্রে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ হবে মেয়াদ শেষে মুনাফা পাবেন ১০ দশমিক ৩০ শতাংশ হারে। ৩০ লাখ টাকার বেশি থাকলে মুনাফার হার হবে সাড়ে ৯ শতাংশ। বর্তমানে তিন মাস অন্তর মুনাফাভিত্তিক তিন বছর মেয়াদি সঞ্চয়পত্রের মেয়াদ শেষে মুনাফার হার ১১ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ। তবে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মুনাফার হার কমিয়ে ১০ শতাংশ করা হয়েছে।

এখন থেকে সঞ্চয়পত্রে ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগকারী মেয়াদ শেষে মুনাফা পাবেন ৯ শতাংশ হারে। পাঁচ বছর মেয়াদি পেনশনার সঞ্চয়পত্রে মেয়াদ শেষে এতোদিন ১১ দশমিক ৭৬ শতাংশ হারে মুনাফা পাওয়া গেলেও এখন থেকে যাদের বিনিয়োগ ১৫ লাখ টাকার বেশি তারা মেয়াদ শেষে মুনাফা পাবেন ১০ দশমিক ৭৫ শতাংশ হারে। আর বিনিয়োগ ৩০ লাখ টাকার বেশি হলে এ হার হবে ৯ দশমিক ৭৫ শতাংশ। পাঁচ বছর মেয়াদি পরিবার সঞ্চয়পত্রে মেয়াদ শেষে মুনাফার হার ছিল ১১ দশমিক ৫২ শতাংশ। এখন থেকে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগে মুনাফার হার হবে সাড়ে ১০ শতাংশ, ৩০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ হলে এ হার সাড়ে ৯ শতাংশ।

ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংকে তিন বছর মেয়াদি সঞ্চয়পত্রে বর্তমানে মুনাফার হার ১১ দশমিক ২৮ শতাংশ। এখন থেকে এ সঞ্চয়পত্রে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে মুনাফার হার হবে ১০ দশমিক ৩০ শতাংশ, ৩০ লাখ টাকার বেশি হলে হবে ৯ দশমিক ৩০ শতাংশ।

পাঁচ বছর মেয়াদী ওয়েজ আর্নার ডেভেলপমেন্ট বন্ডের মেয়াদ শেষে মুনাফার হার ১১ দশমিক ২০ শতাংশ। এ বন্ডে ১৫ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ হলে মেয়াদ শেষে মুনাফার হার হবে ১০ দশমিক ২৭ শতাংশ, ৩০ লাখ টাকার বেশি হলে ৯ দশমিক ৩৩ শতাংশ, ৫০ লাখ টাকার বেশি হলে ৮ দশমিক ৪০ শতাংশ হবে।

ইউএস ডলার প্রিমিয়াম বন্ড ৩ বছর মেয়াদি বণ্ডে মুনাফার হার পরিবর্তন হয়নি। মেয়াদ শেষে এ বন্ডের মুনাফার হার সাড়ে ৭ শতাংশ। তিন বছর মেয়াদী ইউএস ডলার ইনভেস্টমেন্ট বন্ডের মেয়াদ শেষে মুনাফার হার হবে সাড়ে ৬ শতাংশ। এটাতে পরিবর্তন আনা হয়নি।



সাতদিনের সেরা