kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ শ্রাবণ ১৪২৮। ৫ আগস্ট ২০২১। ২৫ জিলহজ ১৪৪২

বিশ্বে গত বছর গ্রিনফিল্ড বিনিয়োগে এগিয়ে ১১ খাত

করোনায় বড় বিনিয়োগ তথ্য-প্রযুক্তি খাতে

বাণিজ্য ডেস্ক   

২৫ জুন, ২০২১ ১১:৪৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনায় বড় বিনিয়োগ তথ্য-প্রযুক্তি খাতে

করোনা মহামারিতে ২০২০ সালের পাশাপাশি চলতি বছরও বিশ্ব অর্থনীতি দমিয়ে রেখেছে ‘লকডাউন’। এতে করে বিদ্যমান বিনিয়োগ প্রকল্পগুলো যেমন শ্লথ হয়ে পড়েছে, তেমনি নতুন প্রকল্প নিয়েও পুনর্মূল্যায়ন করছে বহুজাতিক কম্পানিগুলো। ভয়াবহ বৈশ্বিক মন্দার আভাস বিনিয়োগকারীদের থমকে যাওয়ার বড় কারণ। এতে গত বছর বিশ্বজুড়ে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই) ৩৫ শতাংশ কমে হয়েছে এক ট্রিলিয়ন ডলার। এর পাশাপাশি ঘোষিত গ্রিনফিল্ড বিনিয়োগও ৩৩ শতাংশ কমে হয়েছে ৫৬৪ বিলিয়ন ডলার, যা রেকর্ড সর্বনিম্ন।

গ্রিনফিল্ড বিনিয়োগ এমন সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগকে (এফডিআই) বলা হয়, যখন মূল কম্পানি অন্য দেশে নতুন করে সহায়ক কম্পানি তৈরি করে। সেখানে কারখানা, অফিস, বিতরণ নেটওয়ার্ক ইত্যাদি তৈরির মাধ্যমে নতুন করে কার্যক্রম শুরু করে। এটি দীর্ঘস্থায়ী বিনিয়োগ, তাই গ্রিনফিল্ড বিনিয়োগ প্রকল্প পরবর্তী কয়েক বছরের এফডিআই প্রবাহ কেমন হবে, তার একটি নির্দেশক।

গত বছর যে খাতগুলোতে সবচেয়ে বেশি গ্রিনফিল্ড বিনিয়োগ ঘোষিত হয়েছে ওই খাতগুলোর মধ্যে জ্বালানি ও গ্যাস সরবরাহ খাতে ৯৯ বিলিয়ন ডলার। আগের বছরের চেয়ে বিনিয়োগ কমেছে ১৩ শতাংশ। বিদেশি বিনিয়োগকারীরা এখন প্রথাগত জ্বালানি থেকে সরে এসে নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে ঝুঁকছে। তবে করোনার কারণে গত বছর এ খাতটিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ২০২০ সালে নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতে গ্রিনফিল্ড বিনিয়োগ আগের বছরের চেয়ে ৫ শতাংশ কমে হয়েছে ৮৮ বিলিয়ন ডলার। করোনায় বিশ্বজুড়ে ব্যাপকভাবে বেড়েছে ডিজিটাল অবকাঠামো নির্মাণ ও সেবা। ফলে গত বছর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) খাতে গ্রিনফিল্ড বিনিয়োগ ২২ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৮১ বিলিয়ন ডলার। সবচেয়ে বেশি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে এ খাতেই।

ইলেকট্রনিকস ও ইলেকট্রিক্যাল সরঞ্জামে গ্রিনফিল্ড বিনিয়োগ হয়েছে ৪৬ বিলিয়ন ডলার, যা আগের বছরের চেয়ে ১৪ শতাংশ কম। কেমিক্যাল খাতে বিনিয়োগ ১৫ শতাংশ কমে হয়েছে ৪০ বিলিয়ন ডলার। নির্মাণ খাতে বিনিয়োগ আগের বছরের চেয়ে ৪৭ শতাংশ কমে হয়েছে ৩৫ বিলিয়ন ডলার। অটোমোটিভ খাতে বিনিয়োগ হয়েছে ৩৩ বিলিয়ন ডলার। ২০১৯ সালের চেয়ে কমেছে ৪৭ শতাংশ। কয়লা ও পরিশোধিত পেট্রোলিয়াম খাতে বিনিয়োগ ৬৯ শতাংশ কমে হয়েছে ৩০ বিলিয়ন ডলার। ২০২০ সালে পরিবহন ও স্টোরেজে বিনিয়োগ হয়েছে ২৬ বিলিয়ন ডলার। আগের বছরের চেয়ে কমেছে ৩৯ শতাংশ। তবে হ্রাসের ধারাবাহিকতা ভেঙে আরেকটি খাতে বিনিয়োগ প্রবৃদ্ধি হয়েছে গত বছর। সে খাতটি হচ্ছে বাণিজ্য। ২০২০ সালে এ খাতে বিনিয়োগ ৫ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ২৩ বিলিয়ন ডলার। আর্থিক ও বীমা খাতে বিনিয়োগ হয়েছে ১৯ বিলিয়ন ডলার, যা আগের বছরের চেয়ে ১৯ শতাংশ কম।



সাতদিনের সেরা