kalerkantho

সোমবার । ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭। ১ মার্চ ২০২১। ১৬ রজব ১৪৪২

নতুন আঙ্গিকে আবার শুরু হচ্ছে 'সেরা রাঁধুনী'

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৯ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৫:৪৩ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



নতুন আঙ্গিকে আবার শুরু হচ্ছে 'সেরা রাঁধুনী'

'শুধু ঘরের মানুষ আর পরিচিতমহলে নয়, আপনার রান্নার দক্ষতার কথা এবার জানবে সারাদেশ'- এই স্লোগানকে প্রতিপাদ্য করে খুব শিগগিরই শুরু হতে যাচ্ছে এর ষষ্ঠ আসর 'সেরা রাঁধুনী ১৪২৭'। স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের সুপরিচিত ব্র্যান্ড রাঁধুনীর নিয়মিত উদ্যোগ 'সেরা রাঁধুনী'। বাংলাদেশের আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে থাকা নানারকম রান্নায় পারদর্শী রাঁধুনীদের খুঁজে বের করার প্রতিযোগিতা সেরা রাঁধুনী ১৪২৭ প্রচারিত হবে মাছরাঙা টেলিভিশনে। সেরা রাঁধুনীর গত পাঁচ আসরের ভিন্ন ও সফল আয়োজনের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে এবারের আয়োজনেও থাকছে নতুনত্ব এবং উপভোগ্য প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস। থাকছে যথারীতি অভিনব সব পর্ব, রান্নার জমজমাট লড়াই, কঠিন বিচারকাজ, সাথে মনোরম দৃশ্যায়ন।

আজ মঙ্গলবার ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলের বলরুমে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এবারের সেরা রাঁধুনীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা মো. পারভেজ সাইফুল ইসলাম, বিপণন বিভাগের প্রধান ইমতিয়াজ ফিরোজ, মিডিয়াকম লিমিটেডের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা এবং মাছরাঙা টেলিভিশনের নির্বাহী পরিচালক অজয় কুমার কুন্ডু, প্রতিযোগিতার তিন বিজ্ঞ বিচারক- আন্তর্জাতিকভাবে খ্যাতিমান শেফ শুভব্রত মৈত্র, রন্ধন বিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা রীতা, অভিনয়শিল্পী ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব দিলারা হানিফ পূর্ণিমাসহ স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেড, মিডিয়াকম লিমিটেড এবং মাছরাঙা টেলিভিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। 
প্রথমে বক্তব্য রাখেন মো. পারভেজ সাইফুল ইসলাম। তিনি করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি এবং নিজস্ব নীতিমালা অনুসরণ করে প্রাথমিক বাছাই, বিভাগীয় অডিশন, চূড়ান্ত পর্বের প্রতিযোগীদের নির্বাচন এবং স্টুডিও রাউন্ডের চিত্রধারণ সম্পন্ন করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। এরপর অজয় কুমার কুন্ডু নিরাপদে ও সুষ্ঠুভাবে সেরা রাঁধুনী ১৪২৭ আয়োজনের আশাবাদের পাশাপাশি এর মাধ্যমে দক্ষ রাঁধুনীদের গুণের কথা সারাদেশে ছড়িয়ে দেয়ার প্রত্যাশার কথা জানান।

ইমতিয়াজ ফিরোজ তার বক্তব্যে এবারের প্রতিযোগিতা ও অনুষ্ঠান পরিকল্পনা সম্পর্কে ধারণা দেন। তিন বিচারক তাদের সংক্ষপ্তি বক্তব্যের মাধ্যমে জানান, কোন কোন গুণাবলীর ভিত্তিতে এবারের সেরা রাঁধুনী তারা নির্বাচন করবেন।

সেরা রাঁধুনী ১৪২৭ প্রতিযোগিতার রেজিস্ট্রেশন ৩০ ডিসেম্বর ২০২০ শুরু হয়ে ৩১ জানুয়ারি ২০২১ পর্যন্ত চলবে। ১৮ বছরের বেশি বয়সী যেকোনো বাংলাদেশি নারী-পুরুষ এতে অংশ নিতে পারবেন। এবারের সেরা রাঁধুনীর রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়ায় থাকছে কিছুটা ভিন্নতা। করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে যেহেতু এখন পরিস্থিতি অন্যরকম, তাই অডিশন প্রক্রিয়ায় আনা হয়েছে নতুনত্ব। এই নতুনত্বের সুবাদে প্রতিযোগীদের রান্নার পারদর্শিতা ও নিজেকে উপস্থাপনের ক্ষমতা সম্পর্কে ভালো ধারণা পেতে যেনো অসুবিধা না হয়, তাই এবারের সেরা রাঁধুনীতে অংশ নিতে হলে রেজিস্ট্রেশনের সময় প্রতিযোগীদের নিজেদের একটি রান্নার ভিডিও তৈরি করে পাঠাতে হবে। প্রতিযোগীরা তার রান্নার বিভিন্ন ধাপ পর্যায়ক্রমে ভিডিও করতে পারেন। কিংবা তার তৈরি করা ডিশ সামনে রেখে ক্যামেরায় সেটি তৈরির উপকরণ এবং রান্নার প্রণালী বর্ণনা করেও ভিডিও তৈরি করতে পারেন। তবে কেউ ভিডিও পাঠাতে অপারগ হলে রেসিপির ওয়ার্ড ফাইল বা স্পষ্টাক্ষরে হাতে লেখা রেসিপির ছবি তুলে সাথে খাবারসহ প্রতিযোগীর ছবি পাঠিয়েও প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া যাবে। রান্নার ভিডিও অথবা, রেসিপি, প্রতিযোগীদের ছবি ও অন্যান্য তথ্য দিয়ে সেরা রাঁধুনীর নিজস্ব ওয়েবসাইট http://www.sheraradhuni.com এ সাবমিট করে কিংবা সরাসরি http://[email protected] এই ঠিকানায় ভিডিও, রেসিপি, ছবি ও তথ্য ইমেইল করে সেরা রাঁধুনী ১৪২৭-এ রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। সংবাদ সম্মেলনে ভিডিও ও রেসিপি পাঠানোর জন্য সেরা রাঁধুনীর নিজস্ব ওয়েবসাইট http://www.sheraradhuni.com এর সাথেও পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়।

'সেরা রাঁধুনী' বাছাইয়ের জন্য পুরো বাংলাদেশকে ৭টি আলাদা অঞ্চলে ভাগ করে অডিশনের মাধ্যমে ২৪ জনকে বেছে নেয়া হবে। এরপর আরেকটি প্রতিযোগিতার পর তাদের মধ্য থেকে সেরা ১৫ জনকে নিয়ে শুরু হবে গ্রুমিং রাউন্ড। তারাই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন মূল স্টুডিও রাউন্ডে। এরপর প্রতিযোগিতার নানা ধাপে প্রতিযোগীদের ভিন্ন ভিন্ন ঘরানার রান্নায় পারদর্শিতা যাচাইয়ের পাশাপাশি রান্না পরিবেশনা, নিজেকে উপস্থাপন, বাচনভঙ্গি, ব্যক্তিত্ব, বিক্রয় দক্ষতা, নেতৃত্বগুণ, খাবারের ব্যবসা চালানোর ক্ষমতা, বিভিন্ন পরিস্থিতি সামলানোর ক্ষেত্রে তাত্ক্ষণিক বুদ্ধি ও দক্ষতা প্রয়োগের ক্ষমতার ওপর ভিত্তি করে নির্বাচিত হবেন সেরা রাঁধুনী ১৪২৭। পুরস্কার হিসেবে তিনি জিতে নেবেন ১৫ লাখ টাকা। প্রথম ও দ্বিতীয় রানারআপ পাবেন যথাক্রমে ১০ লাখ এবং ৫ লাখ টাকা।

রেজিস্ট্রেশন সংক্রান্ত তথ্যের প্রয়োজনে রয়েছে একটি বিশেষ হটলাইন নম্বর ০৯৬১২১১১৩৩৩ (প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা, রবি থেকে বৃহস্পতিবার) । রেজিস্ট্রেশন ও ভিডিও আপলোডের বিস্তারিত তথ্য জানতে ভিজিট করুন সেরা রাঁধুনীর ফেসবুক পেইজ: http://www.facebook.com/SheraRadhuni

সেরা রাঁধুনী ১৪২৭-এর পুরো আয়োজনটির সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও তত্ত্বাবধানে থাকছে মিডিয়াকম লিমিটেড এবং সম্প্রচারের দায়িত্বে রয়েছে মাছরাঙা টেলিভিশন। আয়োজনের সহযোগী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে দৈনিক কালের কণ্ঠ, বিডিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডট কম, এবিসি রেডিও এবং রাঙামাটি ওয়াটারফ্রন্ট রিসোর্ট।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা