kalerkantho

শনিবার । ৮ কার্তিক ১৪২৭। ২৪ অক্টোবর ২০২০। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বাজারে পেঁয়াজের দামে অস্থিরতা কমেনি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২০:৪৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাজারে পেঁয়াজের দামে অস্থিরতা কমেনি

দেশের বাজারে পেঁয়াজের দামে অস্থিরতা কমেনি। বরং কিছুটা বেড়েছে। আজ বুধবারও পাইকারি ও খচরা পর্যায়ে কেজিতে ৫ থেকে ১০ টাকা পর্যন্ত বাড়তে দেখা গেছে। তবে ক্রেতাদের আতঙ্কের কেনাকাটার চাপ কিছুটা কমেছে। বাজারগুলোতে আগের দিনের তুলনায় কিছুটা কম ক্রেতা দেখা গেছে। অনেকে দাম শুনেই পালিয়ে যাচ্ছেন।

রাজধানীর কারওয়ান বাজারসহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, বর্তমানে দেশে চার ধরণের পেঁয়াজ পাওয়া যায়। এর মধ্যে একটি হলো দেশি জাতের। বুধবার কারওয়ান বাজারে পাইকরিতে এ পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৫০০ টাকা পাল্লা বা ১০০ টাকা কেজি। রাজধানীসহ দেশের খুচরা বাজারে তা ১১০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়। আগের ১০০ টাকায় পাওয়া যেত এগুলো। এ ছাড়া দেশি হাউব্রিড জাতের পেঁয়াজ কারওয়ান বাজারে আড়তে ৮০ টাকা, পাইকরি পর্যায়ে ৪৫০ টাকা পাল্লা বা ৯০ টাকা কেজি বিক্রি হয়েছে। খুচরা বাজারগুলোতে জাতের পেঁয়াজ বিক্রি হয় ১০০ টাকা কেজি। আগের ৯৫ টাকায় পাওয়া গিয়েছিল। আমদানি করা পেয়াজের দামও কিছুটা বেড়েছে।

বুধবার আড়তে ৬৪ টাকা, পাইকারিতে ৩৩০ টাকা পাল্লা বা ৬৬ টাকা কেজি বিক্রি হয় এমানের পেঁয়াজ। আগের দিন ৩০০ টাকা পাল্লা বা ৬০ টাকা কেজিতে পাওয়া গিয়েছিল। মঙ্গলবার সর্বোচ্চ ৭০ টাকায় বিক্রি হলেও বুধবার আমদানি করা পেঁয়াজ ৮৫ টাকা কেজি পর্যন্ত বিক্রি হয় দেশের খুচরা বাজারগুলোতে। কিছুটা নিম্নমানের খোসা ছাড়া আমদানি করা পেঁয়াজ পাওয়া যাচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা কেজি। 

টিসিবির বিক্রি : এদিকে চাপ সামলাতে টিসিবি প্রতিটি ট্রাকে আরো ১০০ কেজি পেঁয়াজ বাড়াচ্ছে আজ থেকে। এখন প্রতিটি ট্রাকে ৩০০ কেজি পেঁয়াজ দেওয়া হয়। এ ছাড়া ঢাকা ও চট্টগ্রামে ৫টি করে ট্রাক বাড়ানো হবে। এতো দেশব্যাপী ট্রাকের সংখ্যা হবে ২৮৫টি। ঢাকায় হবে ৪৫টি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা