kalerkantho

শুক্রবার । ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭। ৭ আগস্ট  ২০২০। ১৬ জিলহজ ১৪৪১

করোনা থেকে পোশাক শ্রমিকদের সুরক্ষা দেবে আইএলও

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ জুলাই, ২০২০ ২০:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনা থেকে পোশাক শ্রমিকদের সুরক্ষা দেবে আইএলও

করোনা থেকে পোশাক শ্রমিকদের সুরক্ষায় সহযোগিতা দিচ্ছে আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও)। করোনাকালে কাজের পরিবেশে ঝুঁকি এবং নিরাপত্তার বিষয়টি তদারকিও করা হবে সংস্থার পক্ষ থেকে। এসব কাজে উদ্যোক্তাদের সহযোগিতা নিচ্ছে আইএলও।

‘লার্নিং হাব’ নামে সমন্বিত নিরাপত্তা এবং প্রশিক্ষণেরবিশেষ একটি কর্মসূচি উদ্ভোধন করা হয়েছে আজ বুধবার। পোশাক উৎপাদন ও রপ্তানিকারক উদ্যোদের দুই সংগঠন বিজিএমইএ এবং বিকেএমইএর অংশিদারিত্ব রয়েছে এই কর্মসূচিতে। 

জানা গেছে, করোনা প্রতিরোধে গাইডলাইনের ভিত্তিতে পেশাগত নিরাপত্তা এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষা, শ্রমিক এবং কারখানা ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের মধ্যে করোনা প্রতিরোধে পুর্বসতর্কতা তৈরি ও চলমান সামাজিক সংলাপকে আরো জোরদার করা প্রধানত এই তিন কাজের মাধ্যমে করোনা থেকে শ্রমিকদের সুরক্ষায় প্রচেষ্টা চালানো হবে।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বুধবার এই কর্মসূচি উদ্বোধন করা হয়। এতে অংশ নেন ঢাকায় সুইডেনের রাষ্ট্রদূত সার্লোট্টা স্লাইটার, ডেনমার্কের কাউন্সিলর সরিন অ্যালবার্টসেন, আইএলওর কান্ট্রি ডিরক্টেও টোমু পুটিয়াইনেন, বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক, বিকেএমইএর সভাপতি সেলিম ওসমান, সংগঠনের প্রথম সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম। 

কর্মসূচির প্রথম পর্যায়ে মাস্টার ট্রেইনারদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। পরে ট্রেইনারদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। চলতি জুলাই থেকে আগামী বছরের জুন পর্যন্ত ভার্সুয়াল মাধ্যমে এই প্রশিক্ষণ চলবে। তবে পরিস্থিতি অনুকুল হলে কারখানার অভ্যন্তরে স্বশরীরেই প্রশিক্ষণ পরিচালনা করা হবে। একই কর্মসূচির জন্য অ্যামপ্লয়ার্স ফেডারেশন, সরকারের শ্রম বিভাগ, কলকারখানাও স্থাপনা পরিদর্শন অধিদপ্তর ও শীর্ষ স্থানীয় শ্রমিক সংগঠনগুলোকে প্রস্তাব দেবে আইএলও।

অনুষ্ঠানে আইএলওর কান্ট্রিডিরেক্টর বলেন, পোশাক শ্রমিকদের কাজে ফিরে আসা নিরাপদ এবং টেকসই করতে যৌথ এই প্রচেস্টা নিয়েছে আইএলও। বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, করোনা থেকে শ্রমিকদের সুরক্ষায় যৌথ এই কর্মসূচি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক হিসেবে কাজ করবে। এই কর্মসূচিতে সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হবে বিজিএমইএর পক্ষ থেকে পোশাক শ্রমিকদের করোনা থেকে সুরক্ষায় সময়োপযোগী এই উদ্যোগের জন্য আইএলওর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

বিকেএমইএ সভাপতি বলেন, এই করোনাকালে শ্রমিকদের সুরক্ষাই এখন তাদেরও সবচেয়ে বড় অগ্রাধিকার। সংকট থেকে উত্তরণে আইএলওর এই কর্মসূচি সহায়ক ভূমিকা রাখবে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা