kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৩ আষাঢ় ১৪২৭। ৭ জুলাই ২০২০। ১৫ জিলকদ  ১৪৪১

করোনায় আপৎকালীন বাজেটের পরামর্শ বিশিষ্টজনদের

বাণিজ্য ডেস্ক   

৩ জুন, ২০২০ ১৫:১৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনায় আপৎকালীন বাজেটের পরামর্শ বিশিষ্টজনদের

আসছে নতুন বাজেট। আগামী ১১ জুন জাতীয় সংসদে উত্থাপন করা হবে। তবে এমণ একটি সময় আমরা বাজেট পাচ্ছি যখন সারা পৃথিবী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। অর্থনীতি এবং মানুষের জীবন জীবিকা বিপর্যস্ত। এরই মধ্যে বাংলাদেশ আক্রান্তের তালিকায় ২০ নম্বরে চলে এসেছে। এরকম পরিস্থিতিতে কেমন রাজস্ব বাজেট হতে পারে।

সোমবার কালের কণ্ঠের নিয়মিত ফেইসবুক লাইভ বিজনেস শোতে অংশ নিয়ে এ বিষয়ে বিশ্লেষণ করেছেন দুইজন বিশিষ্টজন। কালের কণ্ঠের সিনিয়র বিজনেস এডিটর ফারুক মেহেদীর সঞ্চালনায় এই শোতে অংশ নেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড -এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ আবদুল মজিদ এবং বাংলাদেশ উইমেন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ-বিডাব্লিউসিসিআইয়ের সভাপতি সেলিমা আহমাদ এমপি।

ড. মোহাম্মদ আবদুল মজিদ বলেন, করোনা কালের গতিবিধি এখনও আমাদের কাছে স্পষ্ট নয়। কবে শেষ হবে বোঝা যাচ্ছে না। সাধারণত নির্বাচনের বছরের দুইবার বাজেট হয়। একটা আগের সরকারের এবং আরেকটা হয় নির্বাচিত নতুন সরকারের বাজেট। আমি মনে করি করোনার এই সময়ে একটি আপৎকালীন বাজেট হওয়াই ভালো। এবং পরবর্তীতে যখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসবে তখন আরেকটি বাজেট হতে পারে বা এর এটি ধারাবাহিকতা থাকবে।

সেলিমা আহমাদ বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে আমাদের অর্থনীতিও বিপর্যস্ত। সেখানে সামনে রেখে আমাদের বাজেটটা করতে হবে। আমরা গত বছর যে পরিমাণ ট্যাক্স দিতে পেরেছি এবার তো সে পরিমাণ দিতে পারবো না। কারণ আমাদের আয় কমে আসছে। তাহলে কি হবে। এ অবস্থায় করের আওতা বাড়াতে হবে।     

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা