kalerkantho

শুক্রবার । ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ । ৫ জুন ২০২০। ১২ শাওয়াল ১৪৪১

প্রতিকূল অবস্থায়ও ১৯% আয় বেড়েছে হুয়াওয়ের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ এপ্রিল, ২০২০ ০০:৫৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



প্রতিকূল অবস্থায়ও ১৯% আয় বেড়েছে হুয়াওয়ের

প্রতিকূল পরিস্থিতিতেও হুয়াওয়ের আয় বেড়েছে প্রায় ১৯.১ শতাংশ। আমেরিকার সঙ্গে বাণিজ্যযুদ্ধে নানা নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও ইতিবাচক প্রবৃদ্ধি ধরে রেখেছে চীনভিত্তিক বৈশ্বিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৯ সালে বিশ্বব্যাপী কম্পানিটির আয়ের পরিমাণ ১২৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

চীনের শেনঝেনে গত মঙ্গলবার এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে ২০১৯ সালের আর্থিক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেন হুয়াওয়ের কর্মকর্তারা। তাতে বলা হয়, গত বছর হুয়াওয়ের মোট মুনাফার পরিমাণ প্রায় ৮.৮৩ বিলিয়ন ইউএস ডলার ছুঁয়েছে। 

এছাড়া পরিচালন কার্যক্রমে প্রতিষ্ঠানটির অর্থ লেনদেনের পরিমাণ সর্বোচ্চ ১২.৮৮ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে, অন্যান্য বছরের চেয়ে যা প্রায় ২২.৪% বেশি। প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন ও গবেষণার লক্ষ্যে চলমান কর্মকাণ্ডে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার অংশ হিসেবে, ২০১৯ সালে অর্জিত রাজস্বের প্রায় ১৫.৩% হুয়াওয়ে বিনিয়োগ করেছে গবেষণা ও উন্নয়ন খাতে যার পরিমাণ ১৮.৫ বিলিয়ন ডলার।

হুয়াওয়ের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এরিক যু বলেন, ‘বাইরের নানা চাপ থাকা সত্ত্বেও আমাদের কর্মীরা কেবল গ্রাহকদের জন্য ভালোমানের নতুন পণ্য ও সেবা তৈরির প্রতিই অধিক মনোযোগ দিয়েছে। তাদের শ্রদ্ধা ও আস্থা অর্জনে আমরা এবং সারা বিশ্বে আমাদের অন্যান্য অংশীদারেরা কঠোর পরিশ্রম করেছি। ফলশ্রুতিতে ব্যবসাও ভালো হয়েছে।’

২০১৯ সালে হুয়াওয়ের ক্যারিয়ার ব্যবসা ৫জি নেটওয়ার্কের বাণিজ্যিক সম্প্রসারণে নেতৃত্ব দিয়েছে। ৫জি’র অধিক বাণিজ্যিক গ্রহণ এবং এর অ্যাপ্লিকেশনগুলোতে নতুন উদ্ভাবন বাড়াতে কম্পানিটি বিশ্বের অন্যান্য ক্যারিয়ারগুলোর সাথে মিলে সম্মিলিতভাবে ৫জি উদ্ভাবন কেন্দ্র স্থাপন করেছে।

হুয়াওয়ের রুরালস্টার বেজ স্টেশন সমাধানগুলো প্রত্যন্ত অঞ্চলের নেটওয়ার্ক সমস্যারও কার্যকর সমাধান করতে পারে। এই সমাধানগুলো বর্তমানে ৫০টিরও বেশি দেশ ও অঞ্চলে ব্যবহৃত হচ্ছে, যা প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাসরত সারা বিশ্বের চার কোটিরও বেশি মানুষের কাছে মোবাইল ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দিয়েছে। ২০১৯ সালে হুয়াওয়ের ক্যারিয়ার ব্যবসার বিক্রয় আয়ের পরিমাণ প্রায় ২৯৬.৭ বিলিয়ন ইউয়ানে (৪২.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) পৌঁছেছে, অন্যান্য বছরের তুলনায় যা প্রায় ৩.৮% বেশি।  

২০১৯ সালে নিজস্ব কম্পিউটিং কৌশলের অংশ হিসাবে, কম্পানিটি বিশ্বের দ্রুততম এআই প্রসেসর ‘অ্যাসেন্ড ৯১০’ এবং এআই প্রশিক্ষণ ক্লাস্টার ‘অ্যাটলাস ৯০০’ চালু করে। ২০১৯ সালে হুয়াওয়ের এন্টারপ্রাইজ ব্যবসা থেকে বিক্রয় আয় প্রায় ৮৯.৭ বিলিয়ন ইউয়ান (১২.৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) ছুঁয়েছে, অন্যান্য বছরের চেয়ে যা প্রায় ৮.৬% বেশি।

গ্রাহক ব্যবসায় বড় অঙ্কের প্রবৃদ্ধি অর্জন অব্যাহত রেখেছে হুয়াওয়ে। প্রতিষ্ঠানটি বছরব্যাপী মোট প্রায় ২৪ কোটি স্মার্টফোন বিক্রি করেছে। ২০১৯ সালে হুয়াওয়ের গ্রাহক ব্যবসা থেকে বিক্রয় আয় ৬৬.৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে পৌঁছেছে, অন্যান্য বছরের চেয়ে যা প্রায় ৩৪% বেশি।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, অঞ্চলভিত্তিক আয়ের ক্ষেত্রে ২০১৯ সালে হুয়াওয়ে সবচেয়ে বেশি ব্যবসা করেছে চীনে। দেশটির বাজার থেকে আয় হয়েছে প্রায় ৭২.৬ বিলিয়ন ডলার, অন্য বছরের চেয়ে যা প্রায় ৩৬.২% বেশি। এর পরেই রয়েছে ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকা অঞ্চল। এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে গতবছর আয় হয়েছে ১০.১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। 

অন্য বছরের তুলনায় এটি ১৩.৯% বেশি, বছরভিত্তিক আয় বৃদ্ধির হারে যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। এছাড়া গতবছর আমেরিকা অঞ্চল থেকে আয় হয়েছে ৭.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, আর্থিক হিসেবে যা অন্য বছরের চেয়ে ৯.৬% বেশি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা