kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ১৯ চৈত্র ১৪২৬। ২ এপ্রিল ২০২০। ৭ শাবান ১৪৪১

বই কিনতে সুদমুক্ত ঋণ দিচ্ছে 'সুবোধ'

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৬:১০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বই কিনতে সুদমুক্ত ঋণ দিচ্ছে 'সুবোধ'

জ্ঞানের আলোয় আলোকিত হওয়ার সর্বজনস্বীকৃত উপায়গুলোর মধ্যে অন্যতম হলো বই পড়া। শিক্ষার আলো, নীতি-আদর্শ, ইতিহাস-ঐতিহ্য, কৃষ্টি-সভ্যতা, সাহিত্য-সংস্কৃতি-সবই জ্ঞানের প্রতীক বইয়ের মধ্যে নিহিত। তবে বই কেনার প্রতি বাঙালির আগ্রহের অভাব দেখে চিন্তিত হয়ে সৈয়দ মুজতবা আলী লিখেছেন ‘বই কেনা’ প্রবন্ধ। সেখানে তিনি বলেন, বাঙালি নাগর ধর্মের কাহিনী শোনে না। তার মুখে ওই এক কথা ‘অত কাঁচা পয়হা কোথায়, বাওয়া, যে বই কিনব?’ 

সৈয়দ মুজতবা আলীর এই প্রবন্ধ লেখার উদ্দেশ্য ছিল, বাঙালিকে বই কেনা ও পড়ার প্রতি আগ্রহী করে তোলা। একই উদ্দেশ্য সুবোধ-এরও। সুবোধ চায় না, শুধু টাকা নেই বলে একুশের বইমেলা থেকে পছন্দের বই না কিনে ভগ্ন হৃদয়ে কেউ ফিরে যাক, তাই ‘নতুন বইয়ের ঘ্রাণে, সুবোধ জাগুক প্রাণে’ শ্লোগানে এবারের বইমেলায় সঙ্গী হয়েছে বইপ্রেমীদের।   

সুবোধ হলো একটি সুদমুক্ত বই ঋণ সেবা। এটি তরুণ প্রজন্মকে বেশি বেশি বই পড়ায় উৎসাহিত করতে এবং বই পড়ার সংস্কৃতি ফিরিয়ে আনতে দেশের বেসরকারি খাতের আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের একটি বিশেষ উদ্যোগ। যারা বই পড়তে ভালোবাসেন এবং প্রিয় লেখকের বই কিনতে বইমেলায় ছুটে আসেন, তাদের যাতে শুধু অর্থের অভাবে খালি হাতে মেলা থেকে ফিরে যেতে না হয় তার জন্য সুবোধ সর্বক্ষণ অবস্থান করছে মেলার ১২৭ নম্বর স্টলে। 

আজকের দিন পর্যন্ত এই সুবিধা গ্রহণ করেছে প্রায় চারশ জন এবং ঋণের জন্য বরাদ্ধকৃত অর্থের পরিমাণ প্রায় ৯ লাখ টাকা। বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে আইপিডিসি’র স্টলে বইপ্রেমীদের জন্য বিনা সুদে তিন হাজার টাকা পর্যন্ত এই ঋণ ব্যবহার করা যাবে, যা পরিশোধ করা যাবে তিন মাসের কিস্তিতে। সর্বোচ্চ তিনটি লেনদেনের মাধ্যমে ঋণটি নেওয়া যাবে। সাথে জাতীয় পরিচয়পত্র এবং বিকাশ-এর মোবাইল অ্যাপ চালু থাকলেই স্টলে গিয়ে যে কেউ তাৎক্ষণিকভাবে সুবিধাটি নিতে পারবেন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা