kalerkantho

শনিবার । ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ৪ রজব জমাদিউস সানি ১৪৪১

ক্ষুদ্র উদ্যোগে বিনিয়োগ করবে কেঅ্যান্ডএস

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৫ জানুয়ারি, ২০২০ ১৯:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্ষুদ্র উদ্যোগে বিনিয়োগ করবে কেঅ্যান্ডএস

দেশব্যাপী ক্ষুদ্র শিল্প খাতের ব্যাপক প্রসার ঘটছে। এ খাতের শিল্প ইউনিটের ক্রমবৃদ্ধিই এর সম্ভাবনার কথা জানান দেয়। তবে সময় ও চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে এসব ছোট ছোট শিল্পের শুরুতে যে অর্থের দরকার হয় তা অনেক ছোট উদ্যোক্তা যোগাড় করতে পারেন না। তাই ক্ষুদ্র শিল্পের বিকাশে অর্থায়নে করবে কেঅ্যান্ডএস (খান অ্যান্ড সন্স) লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটি দেশের উদীয়মান বিভিন্ন খাতের যেসব ক্ষুদ্র উদ্যোক্তো ছোট পরিসরে কোন উদ্যোগ শুরু করেছেন তাদের অর্থ সহায়তা দিতে চায়। এই অর্থের পরিমাণ খুব বেশি নয়। যে কোনো উদ্যোগের প্রাথমিক যে ছোট বিনিয়োগ দরকার হয়, মূলত: সেক্ষেত্রে সহায়তা করতে চায় কেঅ্যান্ডএস। 

অপ্রযুক্তিভিত্তিক বিভিন্ন খাত যেমন-অ্যাপারেল, খাদ্যপণ্য ও বেকারি, আইসক্রিম, ডেইরি পণ্য, প্রসাধনি, পস্নাস্টিক, প্যাকেজিং, শিল্প, ভোগ্যপণ্য সেবা ও উত্পাদনে ছোট ছোট উদ্যোগে প্রতিষ্ঠানটি বিনিয়োগ করবে কেঅ্যান্ডএস। যেসব কম্পানির বার্ষিক মুনাফা ১০ লাখ থেকে এক কোটি টাকা শুধু তারাই এই বিনিয়োগের জন্য আবেদন করতে পারবেন। বাজারে প্রতিযোগিতামূলক অবস্থান রয়েছে এবং প্রবৃদ্ধি ত্বরান্বিত করার সক্ষমতা আছে এমন কম্পানিকে পরবর্তী ধাপে যেতে সহায়তা করতে চায় কেঅ্যান্ডএস।

কিছু প্রতিষ্ঠানের দ্রুত প্রবৃদ্ধির জন্য মূলধন এবং গাইডেন্সের প্রয়োজন হয়। কারো কারো পরিবর্তিত প্রতিযোগিতামূলক পরিবেশে অপারেশনগুলিকে পুনর্গঠন করতে আর্থিক এবং কৌশলগত সহায়তা প্রয়োজন হয়। আবার কিছু প্রতিষ্ঠানের প্রতিযোগিতাপূর্ণ বাজারে টিকে থাকতে কম্পানির কৌশলগত পরিবর্তন দরকার হয়। শুধু আর্থিক সহায়তায় নয়, যেসব কম্পানির সম্ভাবনা আছে তাদের মেন্টরসহ অন্যান্য কারিগরি ও কৌশলগত সহায়তাও দিতে চায় কেঅ্যান্ডএস। এটা শুধু রাজধানীর উদ্যোক্তাদের জন্যই নয়, সারাদেশে সম্ভাবনময় সব উদ্যোক্তা এই সুবিধা পাবে। এই লিংকে গিয়ে বিনিয়োগের জন্য আবেদন করা যাবে: https://www.khanandson.com/#applyForInvestment

কেঅ্যান্ডএসের মুখপত্র আশ্রাফ খান বলেন, ‘কম্পানির শেয়ার ধারনের মাধ্যমে কেঅ্যান্ডএস এই বিনিয়োগ করবে এবং কোলাবোরেটিভ অ্যাপ্রোচের মাধ্যমে কাজ করবে। আমরা উচ্চ মানের পরিচালন পারফরম্যান্সের বিনিময়ে একটি অর্থপূর্ণ ইক্যুইটি অংশ অর্জন করতে চায়। আমাদের পরিচালন অংশীদারদের মধ্যে স্বতন্ত্র চিন্তাকে উত্সাহিত করতে চাই।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা